টেণ্ডার বাক্স ছিনতাই প্রতিরোধ না করায় এসআই ক্লোজ

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ৯ মার্চ , ২০১৭ সময় ১১:২৫ অপরাহ্ণ

টেণ্ডার বাক্স ছিনতাই প্রতিরোধ না করায় চন্দনাইশ থানার তিন উপ-পরিদর্শককে (এসআই) প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে ক্লোজ হয়েছে। একইসঙ্গে মামলা না নেয়ায় চন্দনাইশ থানার ওসি ফরিদ উদ্দিন খন্দকারকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছেন পুলিশ সুপার (এসপি) নূরে আলম মিনা।

বৃহস্পতিবার (০৯ মার্চ) পুলিশ সুপার তিন উপ-পরিদর্শককে তাদের দায়িত্ব থেকে প্রত্যাহার করে জেলা পুলিশ লাইনে ক্লোজ করার আদেশ দেন।

তিন উপ পরিদর্শক হলেন, রাজীব হোসেন, সাধন চন্দ্র নাথ এবং আল আমিন।

বুধবার চন্দনাইশ পৌরসভা ভবনে কাঁচাবাজার ইজারা নেয়ার জন্য দরপত্র জমা দেয়ার নির্ধারিত দিন ছিল। সকাল ১১টার দিকে একদল সন্ত্রাসী পৌর ভবনের দোতলায় উঠে টেণ্ডার বাক্স নিচে ফেলে দেয় এবং দরপত্রগুলো নিয়ে যায়।

এসময় সেখানে অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যরা ঘটনা প্রতিরোধে কোন ভূমিকা পালন না করে নির্বিকার থেকেছেন বলে অভিযোগ পেয়েছেন এসপি। এছাড়া চন্দনাইশের পৌর মেয়র ‍মাহবুবুল আলম খোকন থানায় মামলা করার জন্য গেলে ওসি মামলা নিতে গড়িমসি শুরু করেন।

জানতে চাইলে এসপি নূরে আলম মিনা বলেন, টেণ্ডার বাক্স ছিনতাইয়ের মতো গুরুতর একটি ঘটনা ঘটল। বিষয়টি আমি জানতামই না। আজ (বৃহস্পতিবার) পত্রিকা পড়ে আমি ওসিকে শোকজ করেছি। এছাড়া তাকে অবিলম্বে মামলা রেকর্ড করার নির্দেশ দিয়েছি। ঘটনার সঙ্গে যে-ই জড়িত থাকুক তাকে গ্রেফতারের নির্দেশ দিয়েছি।

তিন এসআই পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত জেলা পুলিশ লাইনে ক্লোজ থাকবেন বলে জানিয়েছেন এসপি।