টেকনাফ পৌরসভা উন্নয়নে ১৫ কোটি টাকা বরাদ্দ

প্রকাশ:| শুক্রবার, ১০ এপ্রিল , ২০১৫ সময় ০৫:৫২ অপরাহ্ণ

ফরহাদ রহমান, টেকনাফ,প্রতিনিধি।
টেকনাফ পৌরসভা উন্নয়নে ১৫ কোটি টাকা বরাদ্দটেকনাফ পৌরসভার পরিকল্পিত উন্নয়নে ১৪ কোটি ৪২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা চুড়ান্ত অনুমোদন পেয়েছে। উখিয়া-টেকনাফ থেকে পর পর ২ বার নির্বাচিত এমপি ৩ বারের সিআইপি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আলহাজ্ব আবদুর রহমান বদি সিআইপি এবং টেকনাফ পৌর মেয়র হাজী মোঃ ইসলামের আন্তরিক উদ্যোগ ও প্রচেষ্টায় এই বিশাল বরাদ্দ লাভ করতে সক্ষম হয়েছেন। ঢাকা মিরপুর গ্রামীণ ব্যাংক ভবনস্থ লেভেল-১৩ ‘পৌরসভায় পরিকল্পিত উন্নয়নে সহায়তাকারী অর্থ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন সরকারী কোম্পানী” বাংলাদেশ মিউনিসিপ্যাল ডেভেলপমেন্ট (বিএমডিএফ) প্রাথমিক পর্যায়ে উক্ত অংকের টাকা চুড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে। গত ৫ এপ্রিল সকাল ১১টায় বাংলাদেশ মিউনিসিপ্যাল ডেভেলপমেন্ট (বিএমডিএফ) এর প্রধান কার্যালয়ে ১৪ কোটি ৪২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকার প্রকল্প বাস্তবায়ন চুক্তি সম্পাদিত হয়েছে। যাবতীয় শর্ত পুরন এবং প্রয়োজনীয় আনুষ্টানিকতা সম্পন্ন করে টেকনাফ পৌর সভার মেয়র হাজী মোঃ ইসলাম ও বাংলাদেশ মিউনিসিপ্যাল ডেভেলপমেন্ট (বিএমডিএফ) এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক কে এম নুরুল হুদা দ্বি-পাক্ষিক চুক্তিনামায় স্বাক্ষর করেন। উখিয়া-টেকনাফ থেকে পর পর ২ বার নির্বাচিত এমপি ৩ বারের সিআইপি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আলহাজ্ব আবদুর রহমান বদি সিআইপি, বাংলাদেশ মিউনিসিপ্যাল ডেভেলপমেন্ট (বিএমডিএফ) এর সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা, টেকনাফ পৌরসভার প্রকৌশলী জহির আহমদ, সচিব মহিউদ্দিন ফয়েজীসহ অন্যান্যরা এসময় উপস্থিত ছিলেন। টেকনাফ পৌর সভার মেয়র হাজী মোঃ ইসলাম (০১৮১৯০৮৭৬৩০) বরাদ্দ প্রাপ্তি ও চুক্তি সম্পাদনের সত্যতা নিশ্চিত পুর্বক এজন্য মহান আল্লাহর শুকরিয়া আদায় ভ্রাতুষ্পুত্র এমপির আন্তরিক প্রচেষ্টায় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে পরিকল্পিত টেকনাফ আধুনিক পৌর শহর গঠন ও উন্নয়নে সর্বমহলের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেছেন। ১৪ কোটি ৪২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা চুক্তিমুল্যের শতকরা ১০ ভাগ হিসাবে ম্যাচিং কনট্রিবিউশন বাবদ ১ কোটি ৪৪ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা টেকনাফ পৌর সভা থেকে পরিশোধ করতে হবে। তাছাড়া চুক্তিমুল্যের অনুদান অংশ ১০ কোটি ৩৮ লক্ষ ৬০ হাজার টাকার উপর ১.৫% হারে সার্ভিস চার্জ এবং প্রযোজ্য সরকারী ভ্যাটসহ মোট ১৭ লক্ষ ৯১ হাজার ৫৮৫ টাকা টেকনাফ পৌর সভার ফান্ড থেকে পরিশোধ করতে হবে। সম্পাদিত চুক্তি মতে পৌরসভা কতৃক প্রদেয় ১০% ম্যাচিং কনট্রিবিউশনের সাথে ৯০% অর্থ বিএমডিএফ থেকে গ্রহণের, প্রদত্ত টাকার ৮০% অর্থ পৌরসভার অনুদান হিসেবে পাওয়ার এবং অবশিষ্ট্য ২০% অর্থ ঋণ হিসেবে গ্রহণের শর্ত সংযোজন করা হয়েছে। গৃহীত ঋণ এক বছর রেয়াতীসহ পরবর্তী ১০ বছরে ৩৭ কিস্তিতে পরিশোধ করতে হবে। বিএমডিএফের অর্থ ব্যাবহারের ক্ষেত্রে পাবলিক প্রসিউরমেন্ট এ্যাক্ট ২০০৬, পাবলিক প্রসিউরমেন্ট রোল্স ২০০৮, আয়কর আইন, মোশক বিধিমালা, বিশ্বব্যাংকের নীতিমালা, প্রকল্পের সোশ্যাল ম্যানেজম্যান্ট ফ্রেমওয়ার্ক (এসএমএফ), এনভায়রনমেন্টাল ম্যানেজমেন্ট ফ্রেমওয়ার্ক (ইএমএফ) বাস্তাবয়নসহ প্রাসঙ্গিক সকল নিয়ম প্রতিপালন করতে হবে। এব্যাপারে শীঘ্রই সংবাদ সম্মেলন ডেকে বিস্তারিতভাবে পৌরবাসীকে অবহিত করা হবে বলেও জানান। এব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে টেকনাফ পৌরসভার সচিব মহি উদ্দিন ফয়েজী (০১৭১৭১৮৬৮৩৬) এবং প্রকৌশলী জহির আহমদ (০১৮১৯৮১৭৪৭৮) জানান- দুটি প্যাকেজে বরাদ্দ প্রাপ্ত অর্থ নিয়ে প্রকল্পসমূহ বাস্তবায়ন করা হবে। প্রথম প্যাকেজে ৮ কোটি ১৬ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ৫৫টি সোলার প্যানেল স্থাপন, ৬ টি সড়ক উন্নয়ন ও ৭ টি ড্রেন নির্মাণ করা হবে। দ্বিতীয় প্যাকেজে ৬ কোটি টাকা ব্যয়ে আধুনিক কিচেন ও সুপার মার্কেট এবং পার্কিং পয়েন্ট নির্মাণ করা হবে। আগামী অল্প দিনের মধ্যে এব্যাপারে দরপত্র আহ্বান করা হবে। ২০১৫-২০১৬ অর্থ বছরের জুন মাসের আগেই প্রকল্প সমুহ বাস্তবায়ন সম্পন্ন করা হবে বলেও তাঁরা আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন।