টেকনাফে এনাম বাহিনীর অত্যচার নির্যাতনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| শনিবার, ৮ সেপ্টেম্বর , ২০১৮ সময় ০৬:৫৮ অপরাহ্ণ

বিশেষ প্রতিনিধি:
এনাম বাহিনীর আধিপাত্য বিস্তার পূর্বশত্রুতার জের ধরে একটি পরিবারের উপর নির্যাতন ও একের পর এক মিথ্যা সড়যন্ত্রমূলক মামলা দিয়ে হয়রানী করে যাচ্ছে। ঘটনাটি ঘটছে, টেকনাফ সদর ইউনিয়নের নাজির পাড়া এলাকায়। স্থানীয় এক মেম্বার একাদিক মামলা মাথা নিয়ে এলাকায় প্রকাশ্যে ত্রাসের রাজত্ব চালিয়ে যাচ্ছে। তাঁর নেতৃত্বে তার সহোদয় এবং সন্ত্রাসীদের নিয়ে গোটা নাজির পাড়াকে জিম্মি করে রেখেছে। শান্ত পরিবেশকে ওরা অশান্ত করে ঘোলাও পানিতে মাছ শিকার করছে। ওদের নানা অপকর্ম এবং মিথ্যা মামলার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করলে একটি পরিবারের উপর চলে নির্যাতন, মামলা ও তথ্য সন্ত্রাস। মাদকের কালোটাকার পেশি শক্তির বলে ওরা ধরাকে শরাজ্ঞান মনে করে আসছে। শেষ পর্যন্ত নাজির পাড়ার মোজাহের মিয়ার স্ত্রী আবেদা খাতুন নিজে বাদী হয়ে শাহাব মিয়াকে প্রধান আসামী করে টেকনাফ মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগে বাদী উল্লেখ করেন, আমার স্বামী মোজাহের মিয়া ও সন্তানেরা লবণ, চিংড়ি চাষ ও বৈধ ব্যবসা করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছে। এ ব্যবসার প্রতি ঈশান্নিত ও পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এ পরিবারের প্রতি বারংবার নির্যাতন চালিয়ে চাঁদাসহ অনৈতিকদাবী করে আসছে। এতে সম্মতি না দিলে উক্ত পরিবারের উপর চলে নানা ধরনের নির্যাতন, হুমকি ও ধমকি দিয়ে আসছে। ২৪ আগষ্ট রাত ৯ টায় বাড়ীতে গৃহকর্তা ও ছেলে সন্ত্রান না থাকায় অবস্থায় দুবৃত্তরা সন্ত্রাসী কায়দায় অগ্নোস্ত্র ও চুরিসহ লাটি সোটা নিয়ে বাড়ীতে অনুপ্রবেশ করে গৃহকর্তী ও অন্যান্যদের জিম্মি করে রাখে এবং বাড়ীর দরজা জানালা, আলমীরা, টেবিল ভাংচুর করে এবং ঘরে থাকা লোকদের বেদড়কভাবে মারধর করতে থাকে। এ অবস্থায় বাড়ীতে রক্ষিত থাকা ১লাখ ৪০ হাজার টাকা, ১ভরি ৮আটা স্বর্ণের চেইন ও কানফুল লুট করে নিয়ে যায়। এর প্রতিকার চেয়ে গৃহকর্তী আবেদা খাতুন নিজে বাদী হয়ে ৬ জনের বিরুদ্ধে টেকনাফ মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযুক্তরা হচ্ছেন, শাহাব মিয়া, নুরুল আমিন, এনামুল হক, চাঁনমিয়া ও শহীদ উল্লাহ, সর্বসাং নাজির পাড়া, টেকনাফ।