টানা বর্ষনে কাপ্তাইয়ে ১৪ জনের মৃত্যু, নিখোঁজ ৫

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ১৩ জুন , ২০১৭ সময় ১০:৩৩ অপরাহ্ণ

কাপ্তাই প্রতিনিধি,
কয়েক দিনের টানা বর্ষণে কাপ্তাই উপজেলার বিভিন্ন স্থানে পাহাড় ধ্বস ও গাছ চাপা পড়ে দুদিনে ১৪ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ৫ জন নিখোঁজ রয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। এছাড়া প্রবল বর্ষনে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতিও হয়েছে।
জানা গেছে, গত সোমবার বিকেলে কাপ্তাই কার্গো সংলগ্ন এলাকায় পাহাড়ের ঢালে নির্মিত একটি ঘর অপর একটি ঘরের উপর পড়লে মোঃ রমজান আলী (৪) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়। ওইদিন গভীর রাতে কাপ্তাই লগ গেইট এলাকায় ঘরের মধ্যে গাছ পড়ে আবুল হোসেন (৪৫) এর মৃত্যু হয়। একই দিন গভীর রাতে উপজেলার রাইখালী ইউনিয়নাধীন কারিগর পাড়ায় পাহাড় ধ্বসে মা মেয়ে উচিংনু মারমা (৩৫) ও নিথিচিং মারমা (৮) এর মৃত্যু হয়। এ ব্যাপারে কাপ্তাই ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ ও রাইখালী ইউপি চেয়ারম্যান সায়ামং মারমা মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন। এ দিকে গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে চন্দ্রঘোনা ইউনিয়নের মিতিঙ্গাছড়ি এলাকায় পাহাড় ধ্বসে একই পরিবারের তিন জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন চন্দ্রঘোনা ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম চৌধুরী (বেবী) মৃত বৃক্তিরা হলেন নুর নবী (৫৫), রুবি (২৫), রোহান (৫)। এছাড়া ওয়া¹া ইউনিয়নের মুরালি পাড়ায় মাটি চাপা পড়ে থুয়াইঅং প্র“ মারমা (৪০) এর মৃত্যু হয়। ওয়া¹া ইউনিয়নে সাম্রা উ মারমা (২৫) ও কেমাপ্র“ মারমা (৪৯) নিখোঁজ রয়েছে বলে জানা গেছে। ওইদিন মোঃ ইকবাল (৩২) নামের এক যুবক কর্ণফুলী ষ্টেডিয়াম সংলগ্ন কর্ণফুলী নদীতে জ্বালানী কাঠ সংগ্রহ করতে গিয়ে পানিতে তলিয়ে যায়। হরিণছড়ায় অজ্ঞাতনামা এক ব্যক্তিও নিখোঁজ রয়েছে বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ দিলদার হোসেন জানান, এ পর্যন্ত তিনি ১৪ জনের মৃত্যুর খবর পেয়েছেন। এর মধ্যে কর্ণফুলী নদীতে ১ জন ও হরিণছড়ায় ১ ব্যক্তির নিখোঁজ রয়েছে বলে তিনি জানান। এ দিকে টানা বর্ষনে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে পাহাড় ধ্বসে বাড়িঘর ও সম্পদের ব্যাপক ক্ষতি সাধিত হয়েছে। অনেক এলাকা পানির নিচে তলিয়ে গেছে। উপজেলার বিভিন্ন স্থানে যোগাযোগ ব্যবস্থা বিছিন্ন অবস্থায় রয়েছে। তাৎক্ষণিক ক্ষয়ক্ষতির কোন হিসাব পাওয়া যায়নি।