টমেটোর নানা পদ

প্রকাশ:| রবিবার, ২২ জানুয়ারি , ২০১৭ সময় ০৯:০৫ অপরাহ্ণ

টমেটো হলো একটি বিশেষ সবজি এবং একই সাথে উপাদান যা দিয়ে যেকোন খাবারের স্বাদ দিগুণ করে তোলে। এই শীতকালীন সবজিটি এখন বাজারে খুব পাওয়া যায় তাই নিয়ে এসে বানিয়ে ফেলুন টমেতোর হরেক রকম পদ।

আসুন জেনে নেই –

 

টমেটো পেঁয়াজ চাটনি

উপকরণ:

বড় পেঁয়াজ ৪টা, কাঁচামরিচ ৪ টা, টমেটো ছোট ছোট ৪টা, আদা কুচি ১ টেঃ চামচ, রসুন কুচি ২ কোয়া, লবণ সিকি চা চামচ, লেবুর রস ৫ চা চামচ, চিনি আধা চা চামচ, ধনেপাতা কুচি সিকি কাপ।
প্রণালিঃ

উপরের সব উপকরণন একসঙ্গে ব্লেন্ডারে আধা ভাঙ্গা করে নিতে হবে। ধনেপাতা ও টমেটো  দিয়ে সাজিয়ে সুন্দর করে পরিবেশন করুন। লেবুর রস, চিনি ও লবণ স্বাদমতো কম-বেশি করতে পারেন। এ চাটনি যে কোন পরোটা, পুরি দিয়ে খেতে মজা।

 

টমেটোর নানান পদে হরেক স্বাদ

টমেটোর আচার

 

উপকরনঃ  টমেটো আধা কাঁচা, পাকা ২ কেজি, সরিষার তেল ২ টেবিল চামচ, ধনেগুঁড়া ২ টেবিল চামচ, রসুন ৪টি, শুকনা মরিচ ২০টি, আদা ২ চা চামচ, কালোজিরা ১ চা চামচ, চিনি ১ কাপ, মৌরি ১ চা চামচ, সিরকা ১ কাপ।
প্রণালিঃ

অল্প তেলে সব মসলা ভেজে সিরকা দিয়ে বেটে নিতে হবে। টমেটো ফুটানো পানিতে কয়েক মিনিট রাখতে হবে। টমেটোর উপরের পাতলা আবরণ ছাড়িয়ে পানি ঝরাতে হবে। তেল চুলায় দিয়ে বাটা মসলা, লবণ, চিনি, সিরকা দিয়ে ফুটাতে হবে। টমেটো দিয়ে কয়েকবার ফুটার পর তেল উপরে উঠলে নামিয়ে নিতে হবে। পরিষ্কার শুকনা বয়ামে গরম আচার রাখতে হবে।
টমেটোর নানান পদে হরেক স্বাদ
টমেটো পুরি

উপকরণ:

ময়দা ৩ কাপ, টমেটো পিউরি ১ কাপ, গোলমরিচ গুঁড়া ১ টেঃ চামচ, লবণ ১চা চামচ, ঘি ৩ টেবিল চামচ, গরমমসলা গুঁড়া আধা চা চামচ, পানি প্রয়োজনমতো। ডুবো তেলে পুরি ভাজতে হবে।
প্রণালিঃ

পাত্রে শুকনা ময়দা, লবণ, গোলমরিচ, গরমমসলা ও ঘি দিয়ে শুকনা ময়দাসহ টমেটো পিউরি দিয়ে মেখে প্রয়োজনে পানি লাগতে পারে। খামির বানিয়ে আধা ঘণ্টা রেখে দিতে হবে। পরে পুরি বানিয়ে ডুবোতেলে ভেজে গরম গরম পুরি চাচনি দিয়ে পরিবেশন করুন।

 

টমেটোর নানান পদে হরেক স্বাদ

টমেটো দোলমা

উপকরনঃ

টমেটো বড় সাইজ ৮টি, পেঁয়াজ কুচি ৪টি, মাছ হাফ কেজি, রসুন কুচি হাফ চা চামচ, হলুদবাটা বা গুঁড়া হাফ চা চামচ, কাঁচামরিচ ৩টি, মরিচবাটা বা গুঁড়া ১ চা চামচ, লবণ ২ টেবিল চামচ, ধনেবাটা বা গুঁড়া ২ চা চামচ, সয়াবিন তেল ১/৩ কাপ।

 

প্রণালিঃ

টমেটোর বোঁটার মুখ গোল করে কেটে নিতে হবে। ভেতরের অংশ বের করে টমেটো ধুয়ে রাখতে হবে। মাছসেদ্ধ করে কাঁটা বেছে নিতে হবে। মাছে টমেটোর ভেতরের অংশ এবং অন্যান্য উপকরণ মিশিয়ে তেলে ভাল করে ভেজে নিন। টমেটোতে মাছের কিমা ঠেসে ভরে দিতে হবে। টমেটোতে তেল মাখিয়ে  ফ্রাইপ্যানে বা তাওয়ায় রাখবেন। তাওয়া চুলায় দিয়ে মৃদু আঁচে ঢেকে রাখতে হবে। টমেটো একবার উল্টে দিতে হবে। ওভেনে মাঝারি তাপে বেক করতে হবে। টমেটো সামান্য নরম হলে নামিয়ে নিন। গরম গরম পরিবশেন করুন।

 

টমেটোর নানান পদে হরেক স্বাদ

প্রন টমেটো থাই স্যুপ

উপকরণ:

 

ম্যাগি থাই স্যুপ ১ প্যাকেট, পেঁয়াজ স্লাইস ১ টেবিল চামচ, টম্যাটো কুচি ২টি, লাউ স্লাইস ১/৩ কাপ, চাল কুমড়া স্লাইস ১/৩ কাপ, শসা স্লাইস ১/৩ কাপ, চিংড়ি খোসা ছাড়ানো ১/২ কাপ, কাঁচামরিচ কুচি ৪টি, তেল ১ টেবিল চামচ, লেবুর রস ১চা চামচ এবং  লবণ স্বাদমতো।
প্রণালিঃ

 

৩৫০ মিঃলিঃ সাধারণ তাপমাত্রার পানিতে স্যুপ পাউডার গুলে নিন। অন্য একটি হাঁড়িতে তেল দিন। তেলে পেঁয়াজ হাল্কা ভেজে টম্যাটো দিয়ে নাড়তে থাকুন। টমেটো সেদ্ধ হয়ে মিশে গেলে সব সবজি ও লবণ দিয়ে ১ মিনিট ভাজুন। আড়াই কাপ পানি দিন। সবজি সেদ্ধ হয়ে গেলে গুলানো স্যুপ ঢেলে দিন। চিংড়ি দিন। স্যুপ ফুটে উঠলে ৩-৪ মিঃ অল্প আঁচে সেদ্ধ করুন। কাঁচামরিচ দিন। ১ মিনিট রাখুন। সার্ভিং ডিশে ঢেলে  লেবুর রস দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন। মেতে উঠুন মজাদার থাই স্যুপের অনন্য স্বাদে।

 

টমেটোর নানান পদে হরেক স্বাদ

টমেটো পোলাও

 

উপকরণ:

 

পোলাওয়ের চাল হাফ কেজি, পেঁয়াজ কাটা হাফকাপ, টম্যাটো কাটা ১ কাপ, ঘি/ সয়াবিন/ বাটার অয়েল হাফকাফ কাপ, গোটা জিরা হাফ চা চামচ, এলাচ ৫টা, লবঙ্গ ৫/৬ টা, শুকনা মরিচগুঁড়া ১ চা চামচ, টম্যাটো পিউরি ২টেঃ চাঃ, টম্যাটো জুস ১ কাপ, লবন স্বাদমতো, বেরেস্তা হাফকাপ সাজানোর জন্য।
প্রণালিঃ

চাল ধুয়ে ১০-১৫ মিঃ ভিজিয়ে রেখে পানি ঝরিয়ে নিতে হবে। ঘি বা তেল গরম করে জিরা, এলাচ, লবঙ্গের ফোঁড়ন দিয়ে পেঁয়াজ দিয়ে বাদামি রং হলে টমেটো ও মরিচগুঁড়া দিয়ে ভুনা করে টম্যাটো নরম হলে চাল দিয়ে ভুনে সঙ্গে টমেটো পিউরি ও জুসের সঙ্গে চালের ডবলের একটু কম পানি দিয়ে ঢেকে বলক তুলে অল্পআঁচে পোলাও রান্না করে নিতে হবে। সার্র্ভিং ডিশে ঢেলে টম্যাটো ও বেরেস্তা দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

 

টমেটোর নানান পদে হরেক স্বাদ

 

টমেটো গোস্ত

যা লাগবে: মাংস ১ কিলোগ্রাম, টমেটো (পাকা) ১৫০ গ্রাম, পেঁয়াজ ৩টি, রসুন ১০টি কোয়া, আদা বাটা ১ চা চামচ, তিল (খোসা ছাড়ানো), ১ চা চামচ, পোস্ত ২ চা চামচ, শুকনো মরিচ ৪টি, গরম মসলা প্রতিটি তিনটি করে, চিনি আধা চামচ, তেল ১০০ গ্রাম, লবণ আন্দাজমতো।

যেভাবে করবেন: মাংস পরিষ্কার করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন। পেঁয়াজ, আদা, রসুনসব বেটে নিন। টমেটোগুলো ১০ মিনিট গরম পানিতে ভিজিয়ে রেখে পানি থেকে তুলে খোসা ছাড়িয়ে চটকে নিয়ে ছেঁকে নিন। মোটা তারের চালুনি দিয়ে ছেঁকে নেবেন।

এবার পোস্ত, তিল, গরম মসলা ও শুকনো মরিচ শুকনো খোলায় টেলে শিলে মিহি করে গুঁড়ো করে নিন।

তারপর চুলায় ডেকচি বসিয়ে তেল গরম করে তাতে মাংস লবণ আদা বাটা পেঁয়াজ বাটা ও রসুন বাটা দিয়ে ঢেকে দিন। পানি শুকিয়ে গেলে ভাল করে ভেজে নিন। যদি সেদ্ধ না হয় তাহলে এক কাপ গরম পানি দিয়ে সেদ্ধ করে নিন। এবার পানি শুকিয়ে নিয়ে সব গুঁড়ো মসলা ও চিনি ছড়িয়ে ভাজা ভাজা করুন। ভাজা হলে টমেটো পিউরি দিয়ে অল্প আঁচে ৫/৭ মিনিট দমে রেখে নামিয়ে নিন।

ইন্দোনেশিয়ান চিকেন

যা লাগবে: মুরগির মাংস ১ কেজি, অলিভ অয়েল ১০০ গ্রাম, টমেটো (বড়) ৩টি, ধনেপাতা ৪ আঁটি, রসুন ২টি, লবণ পরিমাণমতো, হট চিলি সস ও শসা প্রয়োজনমতো।

যেভাবে করবেন: দুটো টমেটো, রসুন, ধনেপাতা কেটে সব এক সঙ্গে ভাল করে বেটে নিন।

ফ্রাইপ্যানে তেল গরম করে মুরগি ছেড়ে অল্প ভেজে টমেটো, ধনেপাতা ও রসুন বাটার মিশ্রণ এবং লবণ দিয়ে ভাল করে নেড়ে ঢেকে অল্প আঁচে রাখুন। শুকনো হলে চিলি সস দিয়ে নামিয়ে ওভেনে দশ মিনিট বেক করুন। যাদের ওভেন নেই তারা অল্প আঁচে দমে রাখুন দশ মিনিট। মাখা মাখা হলে নামিয়ে পাত্রে রেখে টমেটো ও শসা কেটে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

টমেটোর ওমলেট

যা লাগবে: ডিম ৩টি, শক্ত টমেটো ৩টি, ক্রিম চিজ ২ টেবিল চামচ, গোল মরিচ গুঁড়ো ও লবণ আন্দাজমতো, তেল পরিমাণমতো।

যেভাবে করবেন: প্রথমে ফুটন্ত পানিতে টমেটো ৫/৬ মিনিট ডুবিয়ে রাখুন। এবার পানি থেকে তুলে ঠাণ্ডা পানিতে রাখুন এবং খোসা ছাড়িয়ে নিন। খোসা ছাড়ানো টমেটো বিচি ফেলে কুচি কুচি করে কাটুন। ডিমগুলো একটা পাত্রে ভেঙে ২ চা চামচ পানি দিয়ে ফেটিয়ে নিন। এবার আন্দাজমতো লবণ দিন। চিজ দিন। ফ্রাইপ্যানে তেল গরম করে ফেটানো ডিম ঢেলে দিন। এমনভাবে ঢালবেন যাতে সারা ফ্রাইপ্যানে সমানভাবে তা ছড়িয়ে যায়। এবার কুচানো টমেটো মাঝখানে লম্বাভাবে ছড়িয়ে খুন্তি দিয়ে দু’পাশ থেকে ডিমের ওমলেট দিয়ে মুড়ে নিন। দেখতে পাটিসাপটার মতো হবে। দু’পিঠ ভাজা হলে গোলমরিচ গুঁড়ো ছড়িয়ে পরিবেশন করুন।

টমেটো রুই

যা লাগবে: রুই মাছ ৬ টুকরো, টমেটো ৮টি (মাঝারি আকারের), পেঁয়াজ ৩টি, রসুন ৫ কোয়া, তেঁতুলের কাই ১ টেবিল চামচ, লবণ আন্দাজমতো, কাঁচা মরিচ ২টি, তেজপাতা ১টি, আদা বাটা ১ চা চামচ, এলাচ লবঙ্গ ২টি করে, দারুচিনি এক টুকরো, তেল পরিমাণমতো।

যেভাবে করবেন: মাছের টুকরো ধুয়ে হলুদ মাখিয়ে হালকা করে ভেজে তুলে নিন। কড়াইয়ের গরম তেলে তেজপাতা ১টি, কুচানো পেঁয়াজ, বাটা রসুন ও ২টি বাটা পেঁয়াজ ছেড়ে কষিয়ে নিন। টমেটো কুচিয়ে সঙ্গে হলুদ, লবণ কষানো মসলার মধ্যে দিন। সব মসলা ভাল করে কষান। টমেটো গলে থকথকে হলে এতে মাছ ও কাঁচা মরিচ দিন। কিছুক্ষণ ঢেকে রেখে শুকিয়ে এলে তেঁতুলের কাই দিন। মাখা মাখা হলে গরম মসলা ছড়িয়ে নামিয়ে নিন।

টমেটোর চাটনি

যা লাগবে: পাকা টমেটো ২ কিলোগ্রাম (ধুয়ে পাতলা স্লাইস করা), চিনি ৭৫০ গ্রাম, কিশমিশ ১০০ গ্রাম, আদার মিহি কুচি ৩ চা চামচ, রসুনের মিহি কুচি ১২ কোয়া, শুকনো মরিচ কুচি ২টি, লবণ স্বাদমতো।

যেভাবে করবেন: সব উপকরণ একসঙ্গে মিশিয়ে মাঝারি আঁচে ডেকচির মুখ খোলা রেখে সেদ্ধ করুন। টমেটো গলে গেলে এবং একটু ঘন হলে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে শুকনো বোতলে ভরে রাখুন। এই চাটনি ফ্রিজে রেখে বেশ কিছুদিন খাওয়া যায়।


আরোও সংবাদ