টইটংয়ে বোরকা বাহিনীর দুই গ্রুপে গোলাগুলি

প্রকাশ:| শনিবার, ১২ সেপ্টেম্বর , ২০১৫ সময় ০৯:৩১ অপরাহ্ণ

বন্দুকযুদ্ধ
পেকুয়া প্রতিনিধি
পেকুয়া উপজেলার টইটং ইউনিয়নের খুইন্নাভিটা এলাকায় বোরকা বাহিনীর দুগ্র“পে ব্যাপক গোলাগুলির ঘটনা ঘঠেছে। প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে মতে দু’পক্ষে ১৮ রাউন্ডের মত গুলিবর্ষন করে। ১২ সেপ্টেম্বর ২ টার দিকে ওই এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। কমপক্ষে ৩জন আহত হলেও তাদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

প্রাপ্ত সুত্রে জানা গেছে, বোরকা বাহিনীর প্রধান যুবদল নেতা এমইউপি শাহাদত হোসেন ও তার সেকেন্ড-ইন-কমান্ড খোকন সদ্য জেল থেকে বের হয়েছে। এর মধ্যে খোকন আগের সন্ত্রাসী কার্যক্রম থেকে সরিয়ে আসলে দুজনের মাঝে বিরোধ দেখা দেয়। ঘটনার দিন সকালে বোরকা বাহিনীর প্রধান শাহাদত থাকে একটি সন্ত্রাসী কার্যক্রমে অংশ নেওয়ার জন্য আহবান করলে খোকন তা না করে দেয়। পরে এ ঘটনার জের ধরে নাপিতখালী এলাকা থেকে বোরকা বাহিনীর শাহাদত তার আরেক অনুসারী হেলালকে সাথে নিয়ে অবৈধ অস্ত্র নিয়ে খুনিয়াভিটায় খোকনের বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় খোকনও তাদের পাল্টা হামলা চালালে দুই পক্ষে অস্ত্রের মহড়ায় প্রায় ১৮ রাউন্ড গুলি বর্ষন করে।

তবে স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, খোকন জেল থেকে বের হয়ে নতুন একটি বাহিনী গঠন করার উদ্দ্যেগ নিলে আধিপত্য বিস্তার ধরে রাখতে বোরকা বাহিনীর প্রধান শাহাদত তাতে বাধ সাধে। আর এ নিয়ে শুরু হয় গুলাগুলি। পরে স্থানীয়রা জড়ো হয়ে দুই পক্ষকে ধাওয়া দিলে এলাকায় আতংক ছড়িয়ে তা পালিয়ে যায়। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ আর এলাকায় চরম আতংক দেখা দিয়েছে। দোকান পাড় বন্ধ রয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গোলাগুলির বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। দোষীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।