জেল হত্যা জাতির ইতিহাসে আরেকটি কলঙ্কময় অধ্যায়

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ৩ নভেম্বর , ২০১৬ সময় ১১:৩৬ অপরাহ্ণ

বঙ্গবন্ধু শিল্পী গোষ্ঠির উদ্যোগে স্মরণ সভায় ড. অনুপম সেন

%e0%a6%9c%e0%a7%87%e0%a6%b2-%e0%a6%b9%e0%a6%a4%e0%a7%8d%e0%a6%af%e0%a6%be-%e0%a6%9c%e0%a6%be%e0%a6%a4%e0%a6%bf%e0%a6%b0-%e0%a6%87%e0%a6%a4%e0%a6%bf%e0%a6%b9%e0%a6%be%e0%a6%b8%e0%a7%87-%e0%a6%86
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য, ২১ শে পদক প্রাপ্ত, আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন সমাজ বিজ্ঞানী, প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. অনুপম সেন বলেছেন, পৃথিবীতে স্বাধীনতা যুদ্ধের পর স্বাধীনতা বিরোধী শক্তিরা প্রতিবিপ্লব ঘটাতে মরিয়া হয়ে চেষ্টা করে। তারই ফলশ্র“তিতে বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যা করার পর জেল খানায় জাতীয় চার নেতাকে হত্যা তারই একটি ধারাবাহিকতা। জেল হত্যা জাতির ইতিহাসে আরেকটি কলঙ্কময় অধ্যায়। জাতি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। বঙ্গবন্ধু জাতীয় চারনেতাকে হত্যার পর অনেক আওয়ামী লীগ নেতাই এক রকম প্রাণ ভয়ে খন্দকার মোস্তাকের সঙ্গে হাত মিলাতে বাধ্য হয়েছে। অত্যন্ত দুঃখের বিষয় খন্দকার মোস্তাকের আর্শিবাদ পুষ্ট সামরিক বাহিনী এ নৃশংস হত্যাকান্ডের নায়কদের বিচার করাতো দুরের কথা তাদেরকে বিভিন্নভাবে দেশে এবং বিদেশে পুনঃবার্সন করা হয়েছে। এদেশের রাষ্ট্র যন্ত্র যদি সামরিক বাহিনীর কালো থাবা থেকে মুক্ত না থাকে তবে কখনই গণতন্ত্রের সুবাতাস থেকে দেশবাসী বঞ্চিত হবে। এ হত্যার মাধ্যমে তারা আওয়ামী লীগকে ধ্বংস করতে চেয়েছিল। কিন্তু বাংলাদেশের আপামর জনসাধারণ স্বাধীনতা বিরোধী শক্তিকে নিমূর্লে ধ্বংস করার জন্য জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য তনায়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় অদিষ্ঠিত করেন। তারই ধারাবাহিকতায় বর্তমান প্রধানমন্ত্রী পাকিস্তানী সহচর একে একে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের মাধ্যমে এদেশকে কলঙ্কমুক্ত করে যাচ্ছেন। আজ ৩ নভেম্বর রোজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৫ ঘটিকায় চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু শিল্পী গোষ্ঠীর উদ্যোগে জেল হত্যা দিবসের শহীদদের স্মরণে এক শোক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. অনুপম উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু শিল্পগোষ্ঠী চট্টগ্রামের সহ-সভাপতি হাসিনা জাফর ও সভা পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ লিপটন। সভায় আরও বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ-সভাপতি লায়ন জাফর উল্লাহ, সহ-সভাপতি কাউন্সিলর মুহাম্মদ সাইফুদ্দীন খালেদ, সহ-সভাপতি কবি সঞ্জয় কুমার দাশ, রাজনীতিবিদ স্বপন সেন, উত্তর জেলা জাসদের সহ-সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম রিপন, শফিকুল মাওলা, রতন ঘোষ, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক জুলেখা বেগম, চলচ্চিত্র বিষয়ক সম্পাদক কবি মোশতারি মোর্শেদ স্মৃতি, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. বাবলা দাশ, সহ-মহিলা বিষয়ক সম্পাদক, শরিফা ইয়াসমিন, কণ্ঠশিল্পী রেখা বড়–য়া, কণ্ঠশিল্পী, সাদিয়া, আবৃত্তি শিল্পী সাজু, টিনা, সোনিয়া, জাফর ইকবাল ভুইয়া, সাহেদুল আলম অপু, বেলাল হোসেন, রেজাউল করিম মিলু প্রমুখ।


আরোও সংবাদ