সরকার বিচার বিভাগের কফিনে শেষ পেরেক ঠুকছে-ফখরুল

প্রকাশ:| বুধবার, ২৭ আগস্ট , ২০১৪ সময় ০৬:১৯ অপরাহ্ণ

সরকার বিচার বিভাগের কফিনে শেষ পেরেক ঠুকছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বলেছেন, সরকার বিচার বিভাগের কফিনে শেষ পেরেক ঠুকতে চায় সরকার। এ জন্যই বিচারপতিদের অভিশংসনের ক্ষমতা সংসদের হাতে নেয়া হচ্ছে। যাতে কোন বিচারক তাদের বিরুদ্ধে কোন রায় দিতে না পারেন। এরপর জনগণ আর ন্যায়বিচার পাবে না। বিচারপতিদের অভিশংসনের ক্ষমতা সংসদের হাতে নেয়ার সরকারি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে আজ বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে ২০-দলীয় জোটের সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন। তিনি অভিযোগ করেন, বিরোধী দলের নেতাদের রাজনীতি ও নির্বাচন থেকে দূরে রাখার জন্য তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয়া হচ্ছে। সারা দেশে পাঁচ লাখ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হয়েছে। এখনই এ শক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে, অন্যথায় দেশের সার্বভৌমত্ব ও গণতন্ত্র থাকবে না। সরকারের উদ্দেশে মির্জা আলমগীর বলেন, র‌্যাব-পুলিশ-বিজিবি না নিয়ে আসুন। কার কত ক্ষমতা আছে, তখন দেখা যাবে। সরকারের উদ্দেশে তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়াকে খুনি বলবেন, তারেক রহমানকে কুলাঙ্গার বললেন, আর দেশপ্রেমিক মানুষ বসে তামাশা দেখবে? এখন থেকে মনে রাখবেন, ইট মারলে পাটকেল খেতে হবে। জিয়াউর রহমান, তারেক রহমানকে গালিগালাজ করে পার পাবেন না। তিনি বলেন, সত্য কথা বললে তাদের গায়ে লাগে। আর এখন পাটকেল খেয়ে সরকারের মন্ত্রীরা দিশেহারা হয়ে বক্তব্য দিচ্ছেন। তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু ও ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা রাশেদ খান মেননের বক্তব্যের সমালোচনা করে মির্জা আলমগীর বলেন, জনগণকে বিভ্রান্ত করবেন না। প্রকাশ্যে বলেন, ‘৭২ থেকে ’৭৫ সাল পর্যন্ত বাকশাল নিয়ে আপনাদের ভূমিকা কী ছিল, বক্তব্য কী ছিল। বলুন সেদিন আপনারা শেখ মুজিবুর রহমানের বাকশাল সমর্থন করেছিলেন কি না?