জামায়াতের আইনজীবী তাজুল ‘আটক’

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ৫ মার্চ , ২০১৫ সময় ১০:১৫ অপরাহ্ণ

ব্যারিস্টার তাজুল ইসলাম

জামায়াতে ইসলামীর আইনজীবী তাজুল ইসলামকে রাজধানীর পল্টন এলাকা থেকে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে আটকের কিছুক্ষণ পর ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ। তাকে আটকের কথা অস্বীকার করলেও ছেড়ে দেয়ার কথা স্বীকার করেছেন পল্টন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোর্শেদ আলম।

ওসি মোর্শেদ আলম জানান, আইনজীবী তাজুল ইসলামের চেম্বারের সামনে চারটি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটলে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে থানায় আনা হয়।

এদিকে তাজুল ইসলামের ভাই অ্যাডভোকেট তারিকুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে পল্টনের চেম্বার থেকে সাদা পোশাকে পুলিশ তাকে নিয়ে যায়। এরপর থেকে তার সঙ্গে কোনো যোগাযোগ করা সম্ভব হচ্ছিল না।

জামায়াত নেতাদের মানবতাবিরোধী অপরাধের বিভিন্ন মামলায় তাদের পক্ষে আইনি লড়াই চালিয়ে আসছিলেন তাজুল।

আটকের খবর জানার পর যোগাযোগ করা হলে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-কমিশনার (পূর্ব জোন) জাহাঙ্গীর হোসেন মাতুব্বর বলেন, ‘আমার কোনো টিম তাকে আটক করেনি।’

পল্টন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোরশেদ আলম জানান, এরকম কোনো তথ্য তার জানা নেই।

যোগাযোগ করা হলে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-কমিশনার (পূর্ব জোন) জাহাঙ্গীর হোসেন মাতুব্বর বলেন, ‘আমার কোনো টিম তাকে আটক করেনি।’

পল্টন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোরশেদ আলম জানান, এ রকম কোনো তথ্য তার জানা নেই।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের আসামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট তাজুল ইসলামকে আটক করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন সুপ্রিমকোর্ট বারের সভাপতি অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে তাজুলকে আটকের খবর শুনে এর প্রতিবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘সুপ্রিমকোর্টের একজন আইনজীবীকে বিনা ওয়ারেন্টে গ্রেপ্তার করে সরকার অন্যায় করেছে। একটি গণতান্ত্রিক দেশে এ রকম হয়রানি ও গ্রেপ্তার মোটেও ঠিক নয়।’

তিনি আরো বলেন, ‘দেশের আইনজীবীদের এভাবে গ্রেপ্তার করে আইনের শাসনের প্রতি অবজ্ঞা করা হচ্ছে।’