জানে আলম দোভাষ অস্তিত্বের আশ্রয়স্থল

প্রকাশ:| শুক্রবার, ২৮ অক্টোবর , ২০১৬ সময় ০৮:০৮ অপরাহ্ণ

%e0%a6%9c%e0%a6%be%e0%a6%a8%e0%a7%87-%e0%a6%86%e0%a6%b2%e0%a6%ae-%e0%a6%a6%e0%a7%8b%e0%a6%ad%e0%a6%be%e0%a6%b7-%e0%a6%85%e0%a6%b8%e0%a7%8d%e0%a6%a4%e0%a6%bf%e0%a6%a4%e0%a7%8d%e0%a6%ac%e0%a7%87চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব এ.বি.এম. মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, মরহুম জানে আলম দোভাষ চট্টগ্রামে আওয়ামী পরিবারের বাতিঘর এবং অওয়ামী পরিবারের অস্তিত্বের আশ্রয়স্থল। তিনি সংকটে-দুঃসময়ে দলের দায়িত্ব পালনে কখনো হাল ছাড়েননি। এম.এ আজিজ, জহুর আহমদ চৌধুরী, এম.এ হান্নান, এম.এ মান্নানের মতই আমাদের মাঝে চিরকাল অমলিন থাকবেন। তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা জাতিকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। তাঁর অগ্রযাত্রায় জানে আলম দোভাষের মত ব্যক্তিত্ব আলোর দীপাবলী জ্বালিয়ে রাখবেন। আজ তিনি অমরত্ব লাভ করেছেন। তাই তাঁকে আমাদের প্রতিক্ষণ মনে রাখতে হবে। আজ বিকালে জানে আলম দোভাষের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে তারই বাসভবন প্রাঙ্গনে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সভাপতির ভাষণে তিনি এ কথা বলেন। চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ.জ.ম নাছির উদ্দিন বলেন, জানে আলম দোভাষ আপাদমস্তক পরিচ্ছন্ন রাজনীতিক। বঙ্গবন্ধুর আর্দশ প্রতিষ্ঠায় নিবেদিত প্রাণ এই মানুষটি আমাদের সকলের জন্য অনুকরণীয় দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবেন। বংশীয় আভিজাত্য সত্বেও তিনি সাধারণ মানুষের সাথে মিলেমিশে একাত্ব হয়ে ছিলেন। সেই সময়ে আওয়ামী লীগ করা অনেকটা ঝুঁকিপূর্ণ ছিল। তারপরও এই বাসভবনটি ছিল আওয়ামী লীগের আশ্রয়স্থল। আমাদেরকে এই আশ্রয়স্থলগুলোকে রক্ষা করতে হবে। তা হলেই আওয়ামী লীগের অস্তিত্ব আরো সুদৃঢ় হবে। মরহুম জানে আলম দোভাষের সন্তান ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এম. জহিরুল আলম দোভাষ বলেন, মহানগর আওয়ামী লীগ প্রতিবছর আমার পিতার মৃত্যুবার্ষিকীতে তাঁকে স্মরণ করে যে আয়োজন করে থাকে সেজন্য এই সংগঠনের সকলস্তরের নেতা-কর্মীদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। এই কৃতজ্ঞতার মধ্য দিয়ে দলের সাথে আমার সম্পৃক্ততাকে আরো সৃদুঢ় করতে চাই।
সাবেক এম.পি ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি মরহুম জননেতা এম. জানে আলম দোভাষের ২৭তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বিকাল ৪টায় স্বীয় বাসভবন প্রাঙ্গনে মরহুমের স্মরণে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আলহাজ্ব শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় আরো বক্তব্য রাখেন মরহুমের একমাত্র সন্তান মহানগর আওয়ামী লীগের অন্যতম সহ-সভাপতি এম. জহিরুল আলম দোভাষ, বাইশ মহল্লার সর্দ্দার কমিটি সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোকসুদ আহমদ সর্দ্দার, ওয়ার্ড মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল হোসেন বাচ্চু, আলকরণ ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আবদুর রহমান। স্মরণ সভা মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব নঈম উদ্দিন চৌধুরী, এড. সুনীল কুমার সরকার, আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব বদিউল আলম, আলহাজ্ব এম.এ রশিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহামুদ, শফিক আদনান, আইন সম্পাদক এড. ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক চন্দন ধর, ধর্ম সম্পাদক আলহাজ্ব জহুর আহমদ, শ্রম সম্পাদক আবদুল আহাদ, কার্যনির্বাহী সদস্য আলহাজ্ব মুহাম্মদ ইয়াকুব, আবুল মনছুর, সৈয়দ আমিনুল হক, বখতেয়ার উদ্দিন খান, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আবু মোহাম্মদ আবছার উদ্দিন চৌধুরী, এস.কে পাল, মো. মুসলিম উদ্দিন, আবুল কাশেম, দিলদার খান দিলু, মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক দেলোয়ার হোসেন খোকা, সভা প্রারম্ভে কোরআন থেকে তেলোয়াত পাঠ করেন কোতোয়ালী থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও কার্য নির্বাহী সদস্য আলহাজ্ব আবুল মনছুর। মরহুম কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণ ও ফাতেহা পাঠ করা হয়।