জাতীয় শিল্প কারখানা আর ব্যক্তিখাতে বিক্রী হবে না

প্রকাশ:| সোমবার, ৮ সেপ্টেম্বর , ২০১৪ সময় ০৯:৪৯ অপরাহ্ণ

শ্রমিক সমাবেশে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের শ্রম ও কর্মসংস্থান বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ

জাতীয় শিল্প কারখানা আর ব্যক্তিখাতে বিক্রী  হবে নাবাংলাদেশ আওয়ামীলীগের শ্রম ও কর্মসংস্থান বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ বলেছেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার শ্রম বান্ধব সরকার। তিনি বলেন, আওয়ামীলীগ শ্রমিকদের স্বার্থে কল-কারখানা জাতীয় করন করেছেন, শ্রমিকদের মজুরী কমিশন দিয়েছেন। জনাব হাবিবুর রহমান সিরাজ বলেন, জাতীয় শিল্প কারখানা আর ব্যক্তিখাতে বিক্রী হবে না। তিনি বলেন, শ্রমিক বাচাঁও-শিল্প বাচাও-দেশ বাচাও- এ শ্লোগান জননেত্রী শেখ হাসিনার। জনাব সিরাজ মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সমৃদ্ধ ও উন্নত বাংলাদেশ গড়তে শ্রমিক-কর্মচারীদের সুদূড় ঐক্য কামনা করেন। ৮ সেপ্টম্বর ২০১৪খ্রি. সোমবার বিকেলে টি এস পি কারখানার মিলনায়তনে জাতীয় শ্রমিকলীগ পতেঙ্গা হালিশহর আঞ্চলিক শাখার উদ্যোগে অনুষ্ঠিত শ্রমিক সমাবেশে প্রধান অতিথির ভাষনে জনাব হাবিবুর রহমান সিরাজ এ সব কথা বলেন। সমাবেশে বাংলাদেশ ইষ্পাত ও প্রকৌশল কর্পোরেশন, কেমিক্যাল কর্পোরেশন, পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন এর সি বি এ নন সি বি এ নেতৃবৃন্দ সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন। শ্রমিক সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন, টি এস পি সিবিএ’র সভাপতি ও বাংলাদেশ কেমিক্যাল কর্পোরেশন সভাপতি মো. কামাল উদ্দিন। শ্রমিক সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় শ্রমিক লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব সফর আলী। আলোচনা করেন, জাতীয় শ্রমিক লীগ পতেঙ্গা হালিশহর শিল্পাঞ্চল শাখার সভাপতি মোহম্মদ ইউনুচ, সাধারণ সম্পাদক হাজী মোহম্মদ হোসেন, সাবেক শ্রমিক নেতা মো. আবদুর রহিম এর উপস্থাপনায় অনুষ্ঠিত শ্রমিক সমাবেশে সি বি এ নন সি বি এ নেতাদের মধ্যে ডি এ পি সিবিএ সভাপতি আবদুল ওহাব চৌধুরী, ওসমানিয়া গ্ল্যাস সিট লিঃ সি বি এ সভাপতি মো. সামশুদ্দিন, জি ই এম প্লান্ট সি বি এ সভাপতি নুর আহমদ, ইষ্টার্ন কেবলস সি বি এ সভাপতি সুলতান মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, মেঘনা’র সি বি এ’র সাবেক সভাপতি জসিম উদ্দিন ভুইয়া, ড্রাইডক সি বি এ’র সাবেক সভাপতি ফিরোজ ভূইয়া, ইর্ষ্টান রিফাইনারী’র শ্রমিক নেতা নুরুল আবছার খোকন, বন্দর শ্রমিকনেতা কাজী আবদুস সাদেক নান্না ও কামাল উদ্দিন। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলেয়াত ও দাড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। জাতীয় শ্রমিকলীগ পতেঙ্গা হালিশহর শিল্পঞ্চল শ্রমিক লীগের সভাপতি মোহাম্মদ ইউনুচ, সাধারণ সম্পাদক হাজী মোহাম্মদ হোসেন প্রধান অতিথি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের শ্রম সম্পাদককে তার ছবি খচিত ক্রেষ্ট উপহার দেন। এছাড়াও বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চারনেতা স্মৃতি পরিষদ প্রধান অতিথিকে অভিনন্দন সম্মাননা প্রদান করেন। জাতীয় শ্রমিকলীগ পতেঙ্গা হালিশহর শিল্পাঞ্চল শাখার সহ সভাপতি মো. রুহুল আমিন পদ্মার শ্রমিক নেতা মো. নুরুল হক, ড্রাইডকের শ্রমিকনেতা মো. রাশেদ মিয়া, রুবি সিমেন্টের মো. ইকবাল নাসের, ইআর এলের শ্রমিক নেতা নুরুল আবছার খোকন প্রধান অতিথি ও অন্যান্য অতিথিদের ফুলেল শুভেচ্ছায় বরণ করেন।
প্রধান অতিথি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের শ্রম সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ বলেন, তারেক জিয়া বা অন্য কারোর আলোচনা বা সমালোচনায় মহান মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত ইতিহাস ম্লান হবে না। তিনি বলেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী ও জাতির জনকের মর্যাদা কেউ ক্ষুন্ন করতে পারবে না। জনাব হাবিবুর রহমান সিরাজ বলেন, পৃথিবীর ইতিহাসে স্বীকৃত সত্য হলো আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর আহবানে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধ পরিচালিত হয়েছে। তিনি বলেন, জঙ্গীবাদী ও সন্ত্রাস বাদীদের হুমকি ধমকিতে জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার ভীত নয়। দেশের বাহিরের অর্থ ও ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে শেখহাসিনার সরকার দেশকে উন্নতির শীর্ষে পৌছে দেব। তিনি শ্রমিক শ্রেনীর ঐক্য কামান করেন। শ্রমিক সমাবেশে বিশেষ অতিথি জতীয় শ্রমিকলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব সফর আলী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার মেহনতি মানুষের সুন্দর জীবন গড়ে তুলতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি মুজরি কমিশন ও পে-কমিশন একসাথে ঘোষনা ও কার্যকর করার দাবী জানান।


আরোও সংবাদ