জাতীয় দলের বাইরে থাকাদের জন্য পনি

প্রকাশ:| রবিবার, ৯ আগস্ট , ২০১৫ সময় ১১:৫৯ অপরাহ্ণ

“জাতীয় দলের বাইরে থাকারা যেন সারা বছর সক্রিয় থাকে, যে কোনো সময় জাতীয় দল হোক বা ‘এ’ দল, ডাক পেলে সবাই যেন প্রস্তুত থাকতে পারে।” এমন ক্রিকেটারদের নিয়ে বিসিবির উদ্যোগ ‘পনি’ (প্লেয়ার্স অফ ন্যাশনাল ইন্টারেস্ট)। আপাতত এটির তত্ত্বাবধানে আছেন বিসিবি একাডেমির অন্যতম কোচ ও জাতীয় দলের সাবেক কোচ সরওয়ার ইমরান।, এই উদ্যোগের আওতায় আছেন ছয়জন ক্রিকেটার। ক্রিকেটার-তিন পেসার রবিউল ইসলাম, শফিউল ইসলাম, আল আমিন হোসেন, উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুন, অল-রাউন্ডার শুভাগত হোম ও বাঁহাতি স্পিনার আরাফাত সানি।
জাতীয় দলের বাইরে থাকাদের জন্য পনি
রোববার বিকেলে পনি ক্রিকেটারদের অনুশীলন শেষে এই উদ্যোগের বিশদ জানালেন কোচ সরওয়ার ইমরান।

“এইচপির সঙ্গে পার্থক্য হলো, এখানে সুনির্দিষ্ট ক্রিকেটারদের নিয়ে একান্তে কাজ করা হয়। যার যেটা প্রয়োজন। কারও কোনো সমস্যা থাকলে, ইনজুরি বা ফিটনেসে সমস্যা থাকলে, টেকনিকে সমস্যা থাকলে কাজ করা। এইচপির ট্রেনিং একটু কঠিন। জাতীয় দলে যারা এখন নেই কিন্তু ঢুকতে পারে, তাদের প্রস্তুত রাখার জন্য পনি।”

সরওয়ার ইমরান দায়িত্ব নিয়ে এর মধ্যেই দুটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ করেছেন। বাংলাদেশ দলের বাইরে থাকা দুই পেসারের অ্যাকশন আরও পরিশীলিত করেছেন।

“শিবলুর (রবিউল ইসলাম) অ্যাকশনে একটু সমস্যা ছিল। হাত পেছন থেকে আসত। এটার জন্য ওর শরীরের অনেক জায়গায় টান পড়ত, ইনজুরি হত। অ্যাকশন তাই একটু বদলে দিয়েছি। এখন অ্যাকশন দেখতেও ভালো লাগছে, ইনজুরি হওয়ার শঙ্কাও কম। সুহাসের (শফিউল ইসলাম) ফ্রন্ট ফুট ল্যান্ডিংয়ে সমস্যা ছিল। ফ্রন্ট আর্ম আগেই ওপেন হয়ে যেত। সেটা ঠিক করা হয়েছে।”

ইমরান জানালে, ঘুরে ফিরে আরও অনেক ক্রিকেটারই আসবে পনির আওতায়। দু-একদিনের মধ্যে যোগ হতে পারেন অস্ট্রেলিয়া থেকে অস্ত্রোপাচার করিয়ে আসার পর পুনর্বাসনে থাকা পেসার শাহাদাত হোসেন। বছর জুড়েই চলতে থাকবে পনির কার্যক্রম।