জলাবদ্ধ বিদ্যালয় গুলোতে ছুটে গেলেন চসিক প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা

প্রকাশ:| রবিবার, ২২ জুন , ২০১৪ সময় ১১:২৭ অপরাহ্ণ

p22.6গত চার দিনের টানা বৃষ্টিতে চট্টগ্রাম শহরের অধিকাংশ জায়গা বেশ কয়েক ফুট পানির নিচে ছিল, এ থেকে বাদ পড়েনি সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত বিদ্যালয়গুলো। আর এমন বস্তবতার মধ্যে চলছে বিদ্যালয়গুলোর অর্ধবার্ষীক পরীক্ষা। গত শনিবার বৈরী আবহাওয়ার করানে পরীক্ষা বন্ধ ছিল। কিন্তু বিভিন্ন মহলের অনুরোধের প্রেক্ষিতে রবিবার থেকে ভারি বৃষ্টির মধ্যে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। আর পরীক্ষা দিতে শিক্ষার্থীদের অবস্থা ও বিদ্যালয়গুলোর সামগ্রীক পরিবেশ সরজমিনে দেখতে সিটি কর্পোরেশনের প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা প্রফেসর মো: শহিদুল্লাহ একাধিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করেন। এ সময় তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, এ জলাবদ্ধতার মধ্যে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা দিতে গিয়ে সমস্যা হচ্ছে এ সমস্যা কিভাবে কমানো যায় সে বিষয়ে শিক্ষক ও সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করা হয়েছে। আগামী রমজান মাস উপলক্ষ্যে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে, এজন্য জলজটে অসুবিধা হলেও শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে পরীক্ষাগুলো নিতে হচ্ছে। যে সকল শিক্ষার্থী জলবদ্ধতার কারণে পরীক্ষা দিতে পারবে না সে ব্যাপারে অভিভাবক ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সাথে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে পরবর্তীতে পরীক্ষা দেওয়ার বিশেষ সুযোগ করে দেওয়া হবে। তিনি বলেন, টানা বৃষ্টির কারণে নিচু এলাকা পানির নিচে তলিয়ে গেছে তাই আমি কিছু পথ গাড়িতে ও কিছু পথ পায়ে হেঁটে জলাবদ্ধ বিদ্যালয় গুলোতে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের খোঁজ-খবর নিচ্ছি এবং শিক্ষার্থীরা যাতে মনোবল না হারায় সে ব্যাপারে উৎসাহ দিচ্ছি। ইনশাল্লাহ, আমি মাননীয় মেয়র সাহেবের সাথে আলাপ আলোচনা করে শিক্ষক শিক্ষার্থীদের যে সকল সমস্যা থাকবে তা সমাধান করার জন্য চেষ্টা করবো। আর প্রয়োজন হলে শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা ও ঝুকি বিবেচনায় পরীক্ষার সূচিতে যে কোন ধরণের পরিবর্তন করবো। শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের অনুরোধ করবো তারা যেন নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে চলাচল করে। আর কোন সমমস্যার সম্মূখিন হবে দেখলে তা আমাদের নজরে নিয়ে আসে।