জমির হুকুম দখলই দক্ষিণ হালিশহর ওয়ার্ডের প্রধান আতঙ্ক

প্রকাশ:| বুধবার, ৬ ডিসেম্বর , ২০১৭ সময় ০৯:১০ অপরাহ্ণ

জমির হুকুম দখলই ৩৯ নম্বর দক্ষিণ হালিশহর ওয়ার্ডের প্রধান আতঙ্ক মন্তব্য করে নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খোরশেদ আলম সুজন বলেছেন, বন্দর, ইপিজেডসহ বিভিন্ন সরকারি, বেসরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামো বিনির্মাণে এই ওয়ার্ডের ভূসম্পত্তি বারবার অধিগ্রহণ করা হয়।

তিনি বলেন, অধিগ্রহণের কারণে এ ওয়ার্ডের মানুষ বিভিন্ন জায়গায় মাইগ্রেশন করতে বাধ্য হয় একাধিকবার।এখনো এ ওয়ার্ডের মানুষ রাতে ঘুম যায় হুকুম দখলের আতঙ্ক নিয়ে।এখানে হাজারো লোকের কর্মসংস্থান হয়েছে।শুধুই যাদের ভূসম্পত্তির ওপর এমন স্থাপনা তাদের জন্য এসব প্রতিষ্ঠানে চাকরি কিংবা ব্যবসার সব দরজা বন্ধ।তাই বঞ্চনার ক্ষোভ বেড়েই চলছে।

ক্ষোভ নিরসনে বন্দরসহ সব প্রতিষ্ঠানে হুকুম দখলে ক্ষতিগ্রস্ত স্থানীয় বেকার যুবকদের যোগ্যতার নিরিখে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে নিয়োগ দেওয়ার আহ্বান জানান সুজন।

বুধবার (৬ ডিসেম্বর) জনদুর্ভোগ লাঘবে জনতার ঐক্য চাই শীর্ষক নাগরিক উদ্যোগ শীর্ষক এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সমাজসেবক মো. মহসিনের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন ইপিজেড থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক হারুনুর রশীদ, যুগ্ম-আহবায়ক মো. আবু তাহের, ৩৯ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক  শফিউল আলম, বন্দর থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. ইলিয়াছ, আব্দুর রহমান মিয়া, এসএম কামাল, নাগরিক উদ্যোগের সদস্যসচিব হোসেন কোম্পানি, নগর যুবলীগ সদস্য আব্দুল আজিম, বন্দর থানা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক মোরশেদ আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল হোসেন, সমাজসেবী আনোয়ার আহমদ মামুন, ছালেহ আহমদ জঙ্গি, মো. কামরুল, সচেতন নাগরিক সমাজের সদস্যসচিব হাবিব শরীফ, মওলানা মো. শুক্কুর, নগর যুবলীগ নেতা সমীর মহাজন লিটন, নগর স্বেচ্ছাসেবকলীগ সদস্য স্বরূপ দত্ত রাজু, জাগ্রত যুব জনতার সচিব রকিবুল আলম সাজ্জ্বী, সফি আলম বাদশা, নগর যুবলীগ সভাপতি এম ইমরান আহমেদ ইমু, সাংগঠনিক সম্পাদক আমির হামজা, মো. জাহিদ হাসান, হাসান মুরাদ, মো. কাইয়ুম, হোসেন চৌধুরী সাদ্দাম, মো. কামাল, মো. শামসু, মো. সাখাওয়াত, মো. রাকিব, মো. বাপ্পী, মো. মিন্টু প্রমুখ।