জমির বিরোধ নিয়ে হামলা-আহত ২, থানায় অভিযোগ

প্রকাশ:| রবিবার, ২০ ডিসেম্বর , ২০১৫ সময় ০৭:১০ অপরাহ্ণ

অভিযোগ
পেকুয়া প্রতিনিধি
পেকুয়া উপজেলার মগনামা ইউনিয়নের মহুরী পাড়ায় জায়গা জমির বিরোধ নিয়ে হামলার ঘটনা ঘঠেছে। এ সময় হামলাকারীর আঘাতে পিতা ও পুত্র আহত হয়েছে। আহতরা হলেন, মোস্তাফিজুর রহমান (৪৭) ও তার পুত্র মগনামা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহব্বায়ক সাইদুর রহমান সোহেল (১৭)। ঘটনাটি ঘঠেছে, গত ১৯ ডিসেম্বর শনিবার বিকাল ৪টায় উপজেলার মগনামা ইউনিয়নের মুহুরীপাড়া এলাকায়।
থানায় দায়েরকৃত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, স্বত্ব মালিকানা নিয়ে স্থানীয় মৃত ছদরউদ্দিনের পুত্র মোস্তাফিজুর রহমান তার সহোদর মফিজুর রহমানের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এনিয়ে ন্থানীয় পর্যায়ে শালিষি মিমাংশার সিদ্ধান্তও হয়। গত ১৯ডিসেম্বর মোস্তাফিজুর রহমানের মা আজবাহার খাতুন(৮৪)কে’ মফিজুর রহমান গংয়ের লোকজন ফুসলিয়ে তাদের ঘরে নিয়ে জিম্মি করে ৩০০টাকা মূল্যের একটি অলিখিত জুড়িশিয়াল ষ্ট্যাম্পে টিপসহি হাতিয়ে নেয়। সংবাদ পেয়ে মোস্তাফিজুর রহমান মফিজুর রহমানের বাড়িতে গিয়ে তার বৃদ্ধা মায়ের কাছ থেকে জোর পূর্বক ষ্ট্যাম্প হাতিয়ে নেওয়ার কারণ জানতে চাহিলে মৃত ছদর উদ্দিনের পুত্র মফিজুর রহমান, মৃত রফিক আহমদের পুত্র মনির আহমদ, তার ভাই মুজিবুর রহমান ও মফিজুর রহমানের স্ত্রী আয়েশা বেগম পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে মোস্তাফিজুর রহমান গংয়ের উপর অতর্কিত হামলা চালায়। এতে মোস্তাফিজুর রহমান(৪৭) ও তার পুত্র মগনামা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহব্বায়ক সাইদুর রহমান সোহেল(১৭) নামের পিতা পুত্র গুরুতর আহতের ঘটনা ঘঠে। আহতরা সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করে বলেন, হামলা চালিয়ে তাদের গুরুতর আহতের ঘটনাকালীন সময়ে হামলাকারীরা তাদের নগদ ৫হাজার টাকা ও ৮হাজার টাকা মূল্যের ১টি স্যামসাং মোবাইল সেট ছিনিয়ে নেয়। এসময় তাদের শৌর চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা দ্রুত ঘটনাস্থল ছেড়ে পালিয়ে যান। এঘটনায় মোস্তাফিজুর রহমান বাদী হয়ে ঘটনায় জড়িতদের নামোল্লেখ করে পেকুয়া থানায় একখানা অভিযোগ দায়ের করেছেন।