জনপ্রতিনিধিদের ঝাউবাগান রক্ষার নির্দেশ

প্রকাশ:| রবিবার, ২৩ অক্টোবর , ২০১৬ সময় ১১:৩৫ অপরাহ্ণ

কুতুবদিয়া উপকূলের ঝাউবাগান রক্ষার্থে ইউএনও‘র পদক্ষেপ

লিটন কুতুবী, কুতুবদিয়া-কক্সবাজার।
%e0%a6%9d%e0%a6%be%e0%a6%89%e0%a6%ac%e0%a6%be%e0%a6%97%e0%a6%be%e0%a6%a8

কুতুবদিয়া দ্বীপের সবুজ বনায়ন রক্ষার্থে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জরুরী বৈঠকের আহবান করেন। ইউএনও সালেহীন তানভীর গাজীর কার্যালয়ে উত্তর ধুরুং ইউপির সদস্য মোঃ ফারুক একই ইউপির মহিলা সদস্য ফারেছা বেগম,উত্তর ধুরুং ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি অধ্যাপক শফিউল মোর্শেদ চৌধূরী, সাবেক উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হাছিনা আকতার বিউটি, কুতুবদিয়া উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস.কে.লিটন কুতুবী,গণমাধ্যম কর্মীসহ এলাকার সচেতন মহল উপস্থিত ছিলেন। কুতুবদিয়া দ্বীপের উত্তর ধুরুং ইউনিয়নের চর ধরুং নামক স্থানে উপকূলীয় বনবিভাগের অর্থায়নে গত ২০১০-১১অর্থ বছরে ১০ একর বালু চরে ঝাউবাগান সৃজন করে। এ বাগানের গাছ কিছু সংখ্যক দূস্কৃতিকারী ঝাউগাছ কেটে নিয়ে যায়। এ ঝাউবাগান রক্ষার্থে উপজেলা প্রশাসন জরুরী ভিত্তিতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি,রাজনৈতিক ব্যক্তি,এলাকার লোকজনের সাথে বৈঠক করে। ঝাউবাগান রক্ষার জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধি মোহাম্মদ ফারুককে পাহারার ব্যবস্থা করার জন্য দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে ইউএনও সালেহীন তানভীর গাজী বলেন, কুতুবদিয়া দ্বীপ রক্ষার জন্য উপকূলের বনায়নের প্রয়োজন। কিছু সংখ্যক দূর্বৃত্ত উত্তর ধুরুং এলাকায় ঝাউবাগান থেকে গাছ কেটে নিয়ে যায়। এলাকায় গাছ কাটা নিয়ে মিশ্রপ্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। স্থানীয় জনগণ,জনপ্রতিনিধি মিলে বাগান রক্ষার্থে সোচ্চার হওয়ার জন্য বলেন। এছাড়াও বাগান বক্ষার জন্য দিনে রাতে পাহারার ব্যবস্থা করার নির্দেশ দেন। এ দিকে ইউপির মহিলা সদস্য ফারেছা বেগম জানান,স্থানীয় কিছু সংখ্যক প্রভাবশালী ব্যাক্তি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধী করে হেরে গিয়ে কোন উপায় না দেখে দূর্বৃত্তরা ঝাউগাছ কেটে নেওয়াকে কেন্দ্র করে তাকে এবং তার পরিবারের সদস্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধি মোঃ ফারুকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন গনমাধ্যমে মিথ্যাচার সংবাদ প্রকাশ করেছে। নির্বাচনে পরাজিত প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থীদের বিচক্ষনাতার কারণে ধ্বংস হচ্ছে কুতুবদিয়া উপকূলের ঝাউবাগান। তিনি উপকূলীয় বনবিভাগ কুতুবদিয়া রেঞ্জ অফিসে জনবল বৃদ্ধি করে ঝাউবাগান পাহাররার ব্যবস্থা করার জন্য বন বিভাগ কর্তৃপক্ষের নিকট অনুরোধ জানান।