জঙ্গিবাদ ও মাদকের বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তুলুন

প্রকাশ:| শনিবার, ১৮ মার্চ , ২০১৭ সময় ১১:৫১ অপরাহ্ণ

করমপাড়া সমাজ কল্যাণ সমিতির উদ্যোগে সন্ত্রাস ও জঙ্গি বিরোধী সমাবেশে কাউন্সিলর আশরাফুল আলম

কমরপাড়া সমাজ কল্যাণ সমিতির উদ্যোগে সন্ত্রাসবাদ-জঙ্গিবাদ, মাদক ও ইভটিজিং বিরোধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ৬নং ষোলশহর ওয়ার্ড কাউন্সিলর এম আশরাফুল আলম বলেছেন, জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাসবাদ আমাদের দেশ ও সমাজের জন্য একটি ভয়ংকর বিষয়। এখন জঙ্গিরা বিভিন্ন পরিচয়ে বাসা-বাড়িতে উঠে পড়ছে। ভয়ংকর বোমাসহ বিভিন্ন সারঞ্জামাদী নিয়ে তারা আমাদের জন্য মহাবিপদ সংকেত হয়ে দাঁড়িয়েছে। জঙ্গিবাদ-সন্ত্রাসবাদ একে অপরের পরিপূরক। দেশ ও সমাজকে বাঁচাতে হলে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তোলতে হবে। তিনি আরো বলেন, তরুন সমাজকে ধ্বংসকারী মাদক, জুয়া ও ইভটিজিং এর কারণে সমাজে অহরহ অপকর্ম ঘটছে, নতুন প্রজন্মকে নষ্ট করার জন্য এসব মাদকই যতেষ্ট। তাই আমাদেরকে অসামাজিক ও সকল অন্যায়মুলক কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে সজাগ থাকতে হবে।
অদ্য বিকাল ৪টায় চট্টগ্রাম নগরীর চান্দগাঁও থানার করমপাড়া নাজের কমিশনার মাঠে অনুষ্ঠিত বিশাল সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এম আশরাফুল আলম উপরোক্ত কথা বলেন।
বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও কমরপাড়া সমাজ কল্যাণ সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব ইসকান্দর হোসাইনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক হাজী আবুল কালাম। মো: এরশাদ হোসাইনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন মোহাম্মদ কবির, মো: জিয়াউর রহমান, ইমরান হোসেন হৃদয়, সেকান্দর মিয়া, নাছির উদ্দিন, জানে আলম, খোরশেদ আলম, এসকান্দর, রেজাউল করীম প্রমুখ।
সমাবেশে নেতৃবৃন্দরা বলেন, চান্দগাঁও থানা এবং বাস টার্মিনালের পাশেই করম পাড়ার অবস্থান হওয়ার কারণে ইদানিং মাদকসেবীদের আনাগোনা বেড়ে গিয়েছে যার ফলে এলাকার যুবসমাজের সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে। এর থেকে পরিত্রাণ পেতে হলে পুলিশ প্রশাসনকে অনতিবিলম্বে ব্যবস্থা নিতে হবে। তরুন ও নতুন প্রজন্মকে সঠিক ও আদর্শের পথে ধাবিত করতে হলে অসামাজিত কার্যকলাপ বন্ধ করতে হবে। এলাকায় সুন্দর পরিবেশ বজায় রাখার জন্য সকল বাসিন্দাদের ঐক্যবদ্ধভাবে সমিতিকে সহযোগিতা করতে হবে। সমিতির সকল কাজে কর্মে একে অপরের সহযোগি হতে পারলে আমরা সফল হবো।


আরোও সংবাদ