চ্যানেল আই ১৯ বছরে পদার্পন উপলক্ষে বর্ণাঢ্য কর্মসূচি

প্রকাশ:| রবিবার, ১ অক্টোবর , ২০১৭ সময় ১০:৩৫ অপরাহ্ণ

 

দেশের প্রথম ডিজিটাল বাংলা টেলিভিশন চ্যানেল, চ্যানেল আই ১৯ বছরে পদার্পন উপলক্ষে চট্টগ্রামে নানান বর্ণাঢ্য কর্মসূচি পালন করেছে চ্যানেল আই দর্শক ফোরাম ও চ্যানেল আই চট্টগ্রাম অফিস।

বর্ণাঢ্য র‌্যালি, সমাবেশ ও ৬০ পাউন্ড ওজনের কেক কেটে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।

রোববার (১ অক্টোবর) নগরীর চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব চত্বরে সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি।

তিনি বলেন, আমরা যদি সবাই চ্যানেল আইকে ভালোবাসি তাহলে চ্যানেল আই দেশের উন্নয়ন ও সমাজ গঠনে যে সবকাজ করে যাচ্ছে তার সাথে আমরাও সম্পৃক্ত হবো। দেশের ধনী-গরীব, মেহনতি সর্বস্তরের মানুষের আনন্দ বেদনায় চ্যানেল আইয়ের পাশাপাশি সবাইকে এগিয়ে আসার আহবান জানান মন্ত্রী।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) প্যানেল মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনীর সভাপতিত্বে সমাবেশে স্বাগত বক্তব্য দেন চ্যানেল আই চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধান চৌধুরী ফরিদ।

সমাবেশে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন পটিয়ার সংসদ সদস্য সামশুল হক চৌধুরী, বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান, নগর পুলিশ কমিশনার ইকবাল বাহার, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, টিভি জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আলহাজ আলী আব্বাস, চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাফফর আহমদ, রাউজান উপজেলা চেয়ারম্যান এহসানুল হায়দার চৌধুরী বাবুল, চসিকের কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন, চবি অধ্যাপক ড. মঞ্জুরুল কিবরিয়া, লায়ন জেলা গভর্নর মঞ্জুরুল আলম মঞ্জু, জহুর আহাম্মদ চৌধুরী ফাউন্ডেশনের সভাপতি শরফুদ্দিন আহম্মেদ রাজু, জেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ রেয়াজুল হক, মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনি, আওয়ামী লীগ নেতা জামশেদুর রহমান প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, চ্যানেল আই হৃদয়ে বাংলাদেশকে ধারণ করে। শুধু ঊনিশ বছর নয়, যাতে ঊনিশত বছর দেশ ও দেশের মানুষের কল্যাণ এবং সমৃদ্ধিতে কাজ করতে পারে, সেই প্রত্যাশা করেন তারা।

সভাশেষে বেলুন উড়িয়ে বর্ণাঢ্য র‌্যালির উদ্বোধন করেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি। র‌্যালিটি নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে চসিক চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। সেখানেই চ্যানেল আইয়ের ১৯ বছরে পদার্পন বর্ষপূর্তি উপলক্ষে ৬০ পাউন্ড ওজনের বিশাল কেক কাটা হয়।