চোটের কারণে নেই সৌম্য, একাদশে মাহমুদউল্লাহ

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর , ২০১৭ সময় ০২:২৮ অপরাহ্ণ

 

চোটের কারণে বাংলাদেশ পাচ্ছে না ওপেনার সৌম্য সরকারকে। দলে এসেছেন লিটন দাস, মাহমুদউল্লাহ। বাংলাদেশ একাদশ সাজিয়েছে তিন পেসার ও এক স্পিনার নিয়ে।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ, সাব্বির রহমান, লিটন দাস, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাসকিন আহমেদ, শফিউল ইসলাম, মুস্তাফিজুর রহমান।

অনুমিতভাবেই দক্ষিণ আফ্রিকা দলে অভিষেক হচ্ছে ওপেনার এইডেন মার্করামের। সঙ্গে টেস্ট ক্যাপ পেয়েছেন পেস বোলিং অলরাউন্ডার আন্দিলে ফেলুকওয়ায়ো।

টস জিতে বোলিংয়ে বাংলাদেশ

মুশফিকুর রহিম ডাকলেন ‘হেড।’ ম্যাচ রেফারি জানালেন, টস জিতেছে বাংলাদেশ। মুশফিকের মুখে হাসি। তবে তার সিদ্ধান্তে হাসি ফুটে উঠল দক্ষিণ আফ্রিকা অধিনায়কের কণ্ঠেও। বাংলাদেশ নিয়েছে বোলিং, দক্ষিণ আফ্রিকার পছন্দও ছিল আগে ব্যাটিং!

মুশফিক জানালেন, উইকেট ব্যাটিং সহায়কই; তবে পেসারদের জন্য কিছু থাকলে সেটা শুরুতেই থাকবে। সেই ভাবনা থেকেই বোলিং নেওয়া।

বাংলাদেশের সিদ্ধান্তে বিস্মিত দক্ষিণ আফ্রিকা অধিনায়ক ফাফ দু প্লেসি। জানালেন, এই ব্যাটিং উইকেটে আগে ব্যাট করার সুযোগ তারা লুফে নিতে চান।

শুষ্ক উইকেট

পিচ রিপোর্টে শন পোলক জানালেন, উপরিভাগ শক্ত থাকলেও নিচে একটু নরম উইকেট। একই সঙ্গে বেশ শুষ্ক। ম্যাচের পরের দিকে টার্ন পেতে পারেন স্পিনাররা।

একই ধারণা মুশফিকেরও। বাংলাদেশ অধিনায়কের বিশ্বাস, তৃতীয় দিন থেকে টার্ন করতে পারে বল।

না থাকা তারা

ক্লান্তি ও অবসাদ কাটাতে সাকিব আল হাসান বিশ্রামে যাওয়ায় বাংলাদেশ এই সিরিজ খেলবে দলের সেরা ক্রিকেটারকে ছাড়া।

তবে না থাকা তারকার পাল্লা অনেক ভারী দক্ষিণ আফ্রিকা দলে। খেলছেন না এবি ডি ভিলিয়ার্স। চোটের কারণে নেই তিন পেসার ডেল স্টেইন, ভার্নন ফিল্যান্ডার ও ক্রিস মরিস।

দক্ষিণ আফ্রিকা দলে অভিষেক হতে যাচ্ছে এইডেন মার্করামের। দক্ষিণ আফ্রিকার একমাত্র বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক তিনি, যদিও সেটি যুব বিশ্বকাপ। ২৩ ছুঁইছুঁই ওপেনার শুধু ভবিষ্যতের ব্যাটিং ভরসাই নন, মনে করা হচ্ছে প্রোটিয়াদের ভবিষ্যৎ অধিনায়ক।

৯ বছর পর

ইমরুল কায়েসের সেটি অভিষেক সিরিজ। তামিম ইকবাল তখনও নবীন, সাকিব আল হাসান ব্যাট করতেন সাত-আটে। তখনও টেস্ট খেলছেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। বাংলাদেশ সবশেষ দক্ষিণ আফ্রিকায় টেস্ট খেলেছিল তখন, সেই ২০০৮ সালে। ৯ বছর পর আবার প্রোটিয়া আঙিনায় বাংলাদেশ।

২০০২ ও ২০০৮, দক্ষিণ আফ্রিকায় দুবারের সফরে চার টেস্টের সবকটিতেই বাংলাদেশ হেরেছে ইনিংস ব্যবধানে। তবে সেই সময়ের দলের সঙ্গে অনেক ব্যবধান এই সফরের দলের। মাঠের পারফরম্যান্সে এবার সেটি প্রমাণ করার পালা।