চুয়েট উপাচার্যকে প্রায় দেড় ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রাখে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১০ জুলাই , ২০১৪ সময় ০২:১৪ অপরাহ্ণ

শিক্ষকদের অসদাচরণের প্রতিবাদে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) বৃহষ্পতিবার সকাল ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত উপাচার্যকে প্রায় দেড় ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রাখে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

চুয়েট কর্মকর্তা সমিতির সাধারণ সম্পাদক আমিন মোহাম্মদ মুছা বাংলানিউজকে জানান, বুধবার দুপুরে ক্যাম্পাস থেকে চট্টগ্রাম নগরীর উদ্দেশ্যে বিশ্ববিদ্যালয় বাসে উঠার সময় কয়েকজন শিক্ষক উপস্থিত কর্মকর্তাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন।

চুয়েটএ সময় শিক্ষকরা যাওয়ার পর কর্মকর্তারা বাসে উঠতে পারবে দাবি করে তারা কর্মকর্তাদের বাস থেকে নামিয়ে দেন। এ ঘটনার প্রতিবাদে উপাচার্যকে অবরোধ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় বাসগুলোতে শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারী সবাই উঠেন। শিক্ষকদের জন্য ১০/১৫টি আসন খালি রেখে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বসেন। তবে আসন সংকটের কারণে প্রতিদিনই উল্লেখযোগ্য শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীকে দাঁড়িয়ে যেতে হয়। কিন্তু বুধবার দুইজন শিক্ষক আসন না পাওয়ায় কর্মকর্তাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে গাড়ি থেকে নামিয়ে দিয়েছেন। আমরা এ ঘটনার প্রতিবাদ করেছি।’

চুয়েট সূত্র জানায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের মেকানিক্যাল বিভাগের শিক্ষক মো. হুমায়ন কবির ও ইউআরপি বিভাগের রাশেদুল হাসানের সঙ্গে বুধবার গাড়িতে উঠা নিয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাকবিতণ্ডা হয়।

বৃহষ্পতিবার সকালে বিষয়টি অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে সবাই জড়ো হয়ে উপাচার্য কার্যালয় অবরোধ করে রাখেন তারা।

পরে বেলা সাড়ে ১২টার দিকে উপাচার্য এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নিবেন আশ্বস্ত করলে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা তাদের অবরোধ প্রত্যাহার করে নেন।

দুপুর ১ টায় এ প্রতিবেদন লেখার সময় এ ঘটনায় কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের বৈঠক চলছিল।