চুয়েটে জাপান শিক্ষা মেলা ২০১৪ অনুষ্ঠিত

প্রকাশ:| রবিবার, ২৩ নভেম্বর , ২০১৪ সময় ০৫:৩৭ অপরাহ্ণ

শফিউল আলম, রাউজানঃ চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)-এ জাপন শিক্ষা মেলা ২০১৪ উপলক্ষে গতকাল ২৩ নভেম্বর, রোববার সকাল ১০টা থেকে কেন্দ্রীয় অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত শিক্ষা মেলায় জাপানে উচ্চশিক্ষা, শিক্ষাবৃত্তি, জাপানেবসবাস প্রভৃতি বিষয়ে দিক-নির্দেশনামূলক আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।
এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়েটের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো: জাহাঙ্গীর আলম। বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর মোহাম্মদ রফিকুল আলম।
চুয়েটের পেট্রোলিয়াম এন্ড মাইনিং ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রধান প্রফেসর ড. সজল চন্দ্র বনিকের চুয়েটে  জাপান শিক্ষা মেলা ২০১৪  অনুষ্ঠিতসঞ্চালনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জাপানের চট্টগ্রামস্থ অনারারি কনসাল জেনারেল জনাব মুহম্মদ নুরুল ইসলাম, জাপান দূতাবাসের ফার্স্ট সেক্রেটারি ও পাবলিক এ্যাফেয়ার্স এন্ড কালচারাল সেকশনের প্রধান মি. রিওজি ছুগে,পাবলিক এ্যাফেয়ার্স এন্ড কালচার এর রোমি আরিয়োশি, জাপান স্টুডেন্ট সার্ভিসেস অর্গানাইজেশন (জেএএসএসও)-এর ডেপুটি ডিরেক্টর মি. শিমবুকো কেনজি, চীফ এডমিনিস্ট্রেটিভ অফিসার মি. মিইয়াই তুমোহিরো,জাপানের কিয়োটো ইউনিভার্সিটির প্রফেসর ড. রাজীব শ’,এসোসিয়েট প্রফেসর ড. মিজুনু কেই, এনভায়রণমেন্টাল এডুকেশন ল্যাবরেটরির রিসার্চার মি. কোমিকো ফুজিতা, জাপানের আকিতা ইউনিভার্সিটির প্রফেসর ড. হিরোমি সুসাই,লেকচারার ড. মাহমুদুল কবির, ইলেকট্রনিক্স এন্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মো: আজাদ হোসাইন প্রমুখ।
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন চুয়েটের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. ফারুক-উজ-জামান চৌধুরী, ফেয়ার আয়োজক কমিটির সভাপতি ও চুয়েটের যন্ত্রকৌশল বিভাগের প্রফেসর ড. মো: মাহবুবুল আলম প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রফেসর ড. মো: জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বাংলাদেশ-জাপানের মধ্যে অত্যন্ত সুন্দর বন্ধুভাবাপন্ন সম্পর্ক বিদ্যমান। শিক্ষা-সংস্কৃতির ক্ষেত্রে সহযোগিতা বিনিময়ের মাধ্যমে এ সম্পর্ক আরো জোরদার হচ্ছে। তিনি বলেন, চুয়েটের সাথে জাপানের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের সমঝোতা স্মারক আছে। আরো কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন। আমরা আরো নিবিড় সম্পর্কের মাধ্যমে উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণায় এগিয়ে যেতে চাই।
শিক্ষা মেলার আয়োজক জাপান স্টুডেন্ট সার্ভিসেস অর্গানাইজেশন (জেএএসএসও), সহ-আয়োজক এ্যাম্বেসি অব জাপান ইন বাংলাদেশ এবং জাপানিজ ইউনিভার্সিটিজ এলামনাই এসোসিয়েশন ইন বাংলাদেশ (জেইউএএবি)। সার্বিক সহযোগিতা ও তত্ত্বাবধানে ছিল চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)।


আরোও সংবাদ