চুয়েটে ‘‘এন্টারপ্রাইজ আর্কিটেকচার’’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৩০ জুন , ২০১৫ সময় ০৮:৪২ অপরাহ্ণ

চুয়েট সভা

শফিউল আলম, রাউজানঃ চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (চুয়েট)-এ ‘Enterprise Architecture’ শীর্ষক এক সেমিনার গতকাল ৩০ জুন সোমবার অনুষ্ঠিত হয়।
চুয়েটের ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন এন্ড কমিউনিকেশন টেকনোলজি (আইআইসিটি)-এর সেমিনার কক্ষে এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়েটের মাননীয় প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর মো. রফিকুল আলম। সভাপতিত্ব করেন আইআইসিটি-এর পরিচালক প্রফেসর ড. কৌশিক দেব।
সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সম্প্রতি এ বিষয়ে সিঙ্গাপুরে উচ্চতর প্রশিক্ষণ সম্পাদন করে আসা চুয়েটের আইআইসিটি-এর প্রোগ্রামার জনাব মো: তৌহিদুর রহমান।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর মো. রফিকুল আলম বলেন, যে কোন সিস্টেম বাস্তাবায়নের জন্য একটি সুন্দর কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন দরকার। এন্টারপ্রাইজ আর্কিটেকচার সে ধরনের একটি আধুনিক কর্মপদ্ধতি। আধুনিক ম্যানেজমেন্ট এবং কন্ট্রোল সিস্টেমের মাধ্যমে চলতে হলে আমাদেরকে এন্টারপ্রাইজ আর্কিটেকচার পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে। তিনি আরো বলেন, বর্তমান যুগ তথ্য-প্রযুক্তি সমৃদ্ধ। সবকিছুতেই এখন অগ্রসর তথ্য-প্রযুক্তির জয়-জয়কার। আমাদেরকেও এসব বিষয় অবলম্বনে কর্মপদ্ধতি গড়ে প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করতে হবে। চুয়েট এ ব্যাপারে সবসময় সচেষ্ট আছে।
আইআইসিটি-এর পরিচালক প্রফেসর ড. কৌশিক দেব বলেন, এন্টারপ্রাইজ আর্কিটেকচার বর্তমান বিশ্বে ব্যবহৃত একটি অগ্রসর তথ্য-প্রযুক্তি সমৃদ্ধ পদ্ধতি। এ বিষয়ে সার্বিক সচেতনতা ও প্রয়োগের জন্য এ ধরনের সেমিনার আয়োজন অত্যন্ত গুরুত্ব বহন করে।
মূল প্রবন্ধ উপস্থাপক আইআইসিটি-এর প্রোগ্রামার জনাব মো: তৌহিদুর রহমান বলেন, এন্টারপ্রাইজ আর্কিটেকচার পদ্ধতি অনুসরণ করতে পারলে যে কোন অফিসিয়াল কার্যক্রমের সার্বিক গতিশীলতা অনেক বৃদ্ধি পাবে। এই পদ্ধতির মাধ্যমে অনেক দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। একটি প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন কার্যক্রমের সমন্বয় সাধনের মাধ্যমে দ্রুত ও যথাযথভাবে এগিয়ে যেতে হলে আমাদেরকে এই পদ্ধতিতে সার্বিক কার্যক্রম পরিচালনা করা প্রয়োজন।


আরোও সংবাদ