চীনা মোবাইল ফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অপ্পো বাংলাদেশে

প্রকাশ:| রবিবার, ১৯ অক্টোবর , ২০১৪ সময় ১১:০০ অপরাহ্ণ

চীনা মোবাইল ফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অপ্পো বাংলাদেশে তাদের কার্যক্রম শুরু করেছে। ১০০ জনেরও বেশি বাংলাদেশি কর্মী নিয়ে অপ্পো মোবাইল ব্র্যান্ডটিকে জনপ্রিয় করার চেষ্টা চালাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। ইতিমধ্যে অপ্পোর হাই-এন্ডের বেশ কয়েকটি স্মার্টফোন বাজারে জনপ্রিয়তাও পেয়েছে।
অপ্পোর ব্র্যান্ড ব্যবস্থাপক মাইকেল বাংলাদেশে এর কার্যক্রম প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, ২০০৪ সালে চীনে যাত্রা শুরু করেছিলঅপ্পো ব্র্যান্ড। বর্তমানে ২০টিরও বেশি দেশে এর কার্যক্রম সম্প্রসারিত হয়েছে। সম্প্রতি বাংলাদেশকেও গুরুত্বপূর্ণ বাজার বিবেচনা করে এদেশে কার্যক্রম শুরু করেছে প্রতিষ্ঠানটি।
চীনা মোবাইল ফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অপ্পো বাংলাদেশেবাংলাদেশে অপ্পোর লক্ষ্য সম্পর্কে অনলাইন ব্র্যান্ড নির্বাহী সাদমান তানভীর প্রথম আলোকে জানিয়েছেন, ‘স্মার্টফোন ও নতুন প্রযুক্তি সম্পর্কে বাংলাদেশি গ্রাহকদের কাছে পরিচয় করিয়ে দেওয়া ও বাংলাদেশের স্মার্টফোন বাজারে স্থান করে নেওয়ার লক্ষ্য আমাদের। বর্তমানে ঢাকার বসুন্ধরা সিটি, ইস্টার্ন প্লাজা, অর্কিড পয়েন্ট ও বাইতুল ভিউ টাওয়ারে অপ্পো শোরুম স্থাপন করেছে। ঢাকা ছাড়াও বাংলাদেশের অন্যান্য স্থানে অপ্পোর কার্যক্রম সম্প্রসারণের কাজ চলছে।’
বাজারে অন্যান্য ব্র্যান্ডের সঙ্গে প্রতিযোগিতা প্রসঙ্গে অপ্পোর ব্র্যান্ড ব্যবস্থাপক বলেন, ‘অপ্পো হাই-এন্ডের স্মার্টফোন বাংলাদেশের বাজারে এনেছে। নকশা ও ফিচারের দিক থেকে অপ্পোর স্মার্টফোনগুলো ব্যবহারের ক্ষেত্রে দারুণ অভিজ্ঞতা দেবে। উদাহরণ হিসেবে অপ্পো ফাইন্ড ৭-এর কথা বলা যায়। ফোরজি নেটওয়ার্ক সুবিধার স্মার্টফোনটিতে রয়েছে সাড়ে পাঁচ ইঞ্চি মাপের সাধারণ এইচডির চেয়েও দ্বিগুণ রেজুলেশনের ডিসপ্লে। অ্যান্ড্রয়েডনির্ভর স্মার্টফোনটিতে ৫০ মেগাপিক্সেল আলট্রা এইচডি ক্যামেরা রয়েছে। স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসর স্মার্টফোনটির র‌্যামই তিন গিগাবাইট। তিন হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারির স্মার্টফোনটিতে ভিওওসি চার্জার রয়েছে যাতে আধ ঘণ্টায় ৭৫ শতাংশ চার্জ সম্পন্ন হয়।
বাংলাদেশে অপ্পোর ওয়েবসাইটে ইতিমধ্যে ২০১৪ কালেকশন নামে স্টার সিরিজে সাতটি স্মার্টফোন প্রদর্শন করছে। এগুলো হচ্ছে ফাইন্ড ৭, ফাইন্ড ৭ এ, এনওয়ান মিনি, আর ওয়ান কে, নিও ৩, অপ্পো জয় ও ইয়োইয়ো।
আরও পড়ুন: স্মার্টফোনে এবার ৫০ মেগাপিক্সেলের ছবি!