চিকিৎসা সেবা খাত থেকে দুর্নীতিবাজদের উৎপাটন করতে হবে

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ২০ ডিসেম্বর , ২০১৬ সময় ০৯:২৬ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব এ.বি.এম মহিউদ্দিন চৌধুরী আসন্ন বিএমএ নির্বাচনে পেশাজীবী চেতনাসম্পন্ন, আত্মমর্যাদাবান ও পেশাগত দায়িত্ব পালনে স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ মনোনীত ডা. নাসির উদ্দিন মাহমুদ-ডাঃ আ.ম.ম মিনহাজুর রহমান প্যানেলের পূর্ণ সমর্থন করে এই প্যানেলকে জয়যুক্ত করার জন্য চিকিৎসকদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। আজ সকালে তাঁর চশমা হিলস্থ বাসভবনে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় তিনি এই আহবান জানান।
সভায় মহিউদ্দিন চৌধুরী আরো বলেন, এ প্যানেলের নেতৃবৃন্দ চট্টগ্রাম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় বাস্তবায়নে আমার সহযোদ্ধা হিসেবে প্রথম থেকে আমার পাশে থেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় প্রকল্প বাস্তবায়নে অগ্রসৈনিক হিসেবে নিবেদিত ছিলেন, আছেন। ডাঃ নাসির-ডাঃ মিনহাজ পরিষদের নির্বাচনী ইশতেহারে আন্দরকিল্লাস্থ চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালকে মেডিকেল কলেজে রূপান্তর, চট্টগ্রামে একটি কার্ডিয়াক হাসপাতাল, একটি ক্যান্সার ইনষ্টিটিউট, একটি ট্রমা সেন্টার, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে নতুন একটি ৫০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল নির্মাণ ইত্যাদি অঙ্গীকারসমূহ বাস্তবায়নে আমি বর্তমান সরকারের সম্মতি আদায় করে এ পরিষদের পাশে থাকবো। আগামী ২২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য এ নির্বাচনে চট্টগ্রাম জেলা ও পুলিশ প্রশাসনকে নিরপেক্ষ অবস্থানে থেকে একটি সুষ্ঠু, অবাধ ও চিকিৎসকদের জন্য নিরাপদ ভোট প্রদানের পরিবেশ নিশ্চিত করার আহবান জানিয়ে এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, এ নির্বাচন যেন চট্টগ্রামে চিকিৎসকদের উৎসব ও মিলন মেলায় পরিণত হয়। তিনি চট্টগ্রামের সকল চিকিৎসককে নির্ভয়ে, নির্বিঘেœ ভোট কেন্দ্রে এসে চাপ ও শংকামুক্ত থেকে ভোট উৎসবে যোগদানের আহবান জানান। তিনি গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজে বিদ্যমান দুর্নীতি, অনিয়ম, স্বজনপ্রীতি, রোগীর খাদ্য ও ঔষধপত্র লুটপাঠের ফলে এই হাসপতালে চিকিৎসা সেবা মারাত্মকভাবে অবনতিশীল। রোগী, চিকিৎসক ও কর্মচারীদের একটি চক্র জিম্মি করে রেখেছে। এই অবস্থান থেকে ত্রাণ পেতে শুদ্ধাচারী ডা. নাসির-মিনহাজ পরিষদের বিজয় অপরিহার্য।
ডাঃ নাসির উদ্দিন মাহমুদের সভাপতিত্বে ও ডাঃ আ.ম.ম.মিনহাজুর রহমানের সঞ্চালনায় এ সভায় বক্তব্য প্রদান করেন স্বাচিপ ও বিএমএ সাবেক কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ডাঃ নুরুল ইসলাম, চট্টগ্রাম জেলা স্বাচিপের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ডাঃ আ.ন.ম.ফারুক অর রশিদ, সাবেক সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আবু তৈয়ব, ডাঃ সরফরাজ খাঁন চৌধুরী, সাবেক সহকারী পরিচালক ডাঃ আলী আকবর ভূঁইয়া, সাবেক ইউএইচএফসি ডাঃ ফিরোজ খাঁন, ডাঃ হারুন অর রশিদ, অধ্যাপক ডাঃ এম এ রউফ, ডাঃ নাজির মোহাম্মদ খান টিপু, ডাঃ আবু মনসুর মোঃ নিজাম উদ্দিন খালেদ, ডাঃ আবুল মনসুর মোঃ দিদারুল আলম, ডাঃ মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ, ডাঃ বিপ্লব পালিত, ডাঃ সেলিম আহমেদ, ডাঃ জামাল উদ্দিন, ডাঃ সুরঞ্জিত বিশ্বাস, ডাঃ প্রদীপ চৌধুরী, ডাঃ নাহিদা আকতার, ডাঃ সুমি, ডাঃ দিদারুল মুনীর ডাঃ মুশফিকুর রহমান, ডাঃ কাজী মোঃ ইদ্রিস, ডাঃ সুরজিত ঘোষ, ডাঃ সৌমেন পালিত, ডাঃ ধীমান বড়–য়া, ডাঃ নোবেল কুমার বড়–য়া, ডাঃ সৌমেন বড়–য়া, ডাঃ তাহিয়া আহমেদ, ডাঃ জিসানুর রহমান, ডাঃ মাইকেল চৌধুরী, ডাঃ জয়জিৎ চৌধুরী, ডাঃ আরিফ ইসলাম, ডাঃ মুনতাসির উদ্দিন ও ডাঃ কথক দাশ প্রমুখ।