চাক্তাইকে চাঁদাবাজ ও সন্ত্রাস মুক্ত করার দাবি

প্রকাশ:| শনিবার, ৮ এপ্রিল , ২০১৭ সময় ১০:৪০ অপরাহ্ণ

ব্যবসায়ী আকতারের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা
বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ পাইকারী ব্যবসা কেন্দ্র চাকতাই এলাকার ব্যবসায়ীদের চাঁদাবাজ ও সন্ত্রাসীদের হাত থেকে রেহাই মিলছে না। চাকতাই এলাকায় চাঁদাবাজদের উপদ্রব দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। সরকারী সংগঠনের আশ্রয়ে গড়ে উঠা এসব সন্ত্রাসীরা দিন দিন বেপরোয়া হয়ে উঠছে। মাস কয়েক আগে এ এলাকায় মাদক ব্যবসায়ীদের হাতে আইডিয়াল স্কুলের ছাত্র আদিল নিহত হয়। গত সপ্তাহে চাক্তাই নবাব খান কলোনীর বাসিন্দারা সন্ত্রাসী টিপুর অত্যচারে অতিষ্ট হয়ে মানববন্ধন করেছে। আজকে চাক্তাই রাজাখালী এলাকার ব্যবসায়ীরা রাস্তায় মানববন্ধন করে গতকাল রাত্রে চিহ্নিত সন্ত্রাসী আলমগীর কর্তৃক মেসার্স হাজী রাইজ এজেন্সির কর্ণধার মোহাম্মদ আখতারের উপর হামলার প্রতিবাদে। গতকাল রাত ২ টায় এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী আলমগীর তার পেঠুয়া বাহিনী নিয়ে ব্যবসায়ী মিজানকে চাঁদা দাবি করে অস্ত্র তাক করে। মিজান পালিয়ে গেলে স্থানীয় ব্যবসায়ী আকতার এর প্রতিবাদ করলে আলমগীর উপর্যপুরি মিজানকে শরীরের বিভিন্ন স্থানে ৭-৮টি ছুরিকাঘাত করে। আকতার বর্তমানে চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাঁর অবস্থা আশংকা জনক। ব্যবসায়ী আকতারের উপর হামলার খরব ব্যবসায়ীদের মধ্যে পৌঁছলে অদ্য দুপুর ২ টা হতে রাজাখালী ফায়ার সার্ভিসের সামনে চাক্তাইয়ের ব্যবসায়ীরা আকতারের উপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করে। মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, অবিলম্বে ব্যবসায়ী আকতারের উপর হামলাকারীদের গ্রেপ্তার এবং চাক্তাই এলাকাকে সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজ মুক্ত করার জোর দাবি জানান। চাকতাই এলাকায় পুলিশী টহল জোরদার, কমিউনিটি পুলিশের কার্যক্রম সক্রিয় করা এবং ব্যবসায়ীদের উদ্যোগে এলাকায় সিসি ক্যামেরা বসানোর আহ্বান জানান।
মানববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করে অংশ নেন ব্যবসায়ী শান্তি সওদাগর, হাজী ইব্রাহিম সওদাগর, আব্দুর রহিম সওদাগর, সুমন সওদাগর, জাবেদ হোসেন সওদাগর, সালাম সওদাগর, মঞ্জু সওদাগর, সাব্বির সওদাগর, মিজান সওদাগর, মহিউদ্দিন জনি, মোঃ সানি, মোঃ রিপন, কালু মিয়া, আব্বাস উদ্দিন, জামাল হোসেন, রমজান আলী, আমিন উল্লাহ, মামুন মিয়া, বাপ্পি দে, ওবাইদুর রহমান, মোঃ সুমন প্রমুখ।


আরোও সংবাদ