চাঁদাবাজির প্রতিবাদ করায় চালককে পুলিশের পিটুনী, মহাসড়ক অবরোধ

প্রকাশ:| শুক্রবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি , ২০১৪ সময় ০৬:৪৩ অপরাহ্ণ

মিরসরাই সংবাদদাতা
মিরসরাইয়ের বারইয়ারহাট পৌর বাজারে ট্রাফিক পুলিশের চাঁদাবাজির প্রতিবাদ করায় মো.শহীদ নামে এক পিকআপ চালককে পিটিয়ে আহত করেছে পুলিশ। চালককে পিটুনি দিয়ে আহত করা ও ট্রাফিক পুলিশের চাঁদাবাজির প্রতিবাদে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক শুক্রবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত একঘন্টা অবরোধ করে রাখে।
বারইয়ারহাট পিকআপ চালক সমিতির চালকরা জানান, জোরারগঞ্জ থানার ট্রাফিক উপ-পরিদর্শক মো.মোস্তফা বারইয়ারহাট ষ্ট্যান্ডের প্রতিটি পিকআপ থেকে মাসে ২০০টাকা করে চাঁদা দাবি করে। কিন্তু পিকআপ গুলোর কাগজপত্র ঠিক থাকায় কোন পিকআপ চালক ট্রাফিক পুলিশের দাবিকৃত চাঁদা দিতে রাজি হয়নি। শুক্রবার উপজেলা নির্বাচনের জন্য বারইয়ারহাট পৌর বাজারে পিকআপ রিকুজিশন শুরু করে ট্রাফিক উপ-পরিদর্শক মো. মোস্তফা। এসময় বারইয়ারহাট পৗর এলাকায় পিকআপ গুলো রিকুজিশন করলেও পৌর এলাকার বাহিরের পিকআপ গুলো রিকুজিশন না করে টাকা নিয়ে ছেড়ে দেয়। বারইয়ারহাটের চালকরা টাকা নিয়ে বাহিরের পিকআপ গুলো ছেড়ে দেয়ার প্রতিবাদ করলে মো.শহীদ নামে এক চালককে ট্রাফিক পুলিশ মোস্তফা পিটিয়ে আহত করে বলে চালকরা অভিযোগ করেন। চালককে পিটিয়ে আহত করার প্রতিবাদে ও পুলিশের চাঁদাবাজির প্রতিবাদে বারইয়ারহাটের পিকআপ চালকরা ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে।
বারইয়ারহাট পিকআপ মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো.নিজাম উদ্দিন জানান, এক সময় গাড়ির কাগজপত্র সঠিক না থাকার কারণে ট্রাফিক পুলিশকে প্রতি মাসে চালকরা চাঁদা দিতো। সম্প্রতি সরকার জরিমানা মওকুফ করে দেয়ার ঘোষনায় পিকআপ মালিকরা গাড়ির কাগজপত্র ঠিক করে নিয়ে আসে। এরপরও বারইয়ারহাটের দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশ চালকদের কাছে গাড়ি প্রতি মাসে ২০০ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদাবাজির প্রতিবাদ করায় পুলিশ কর্মকর্তা মো. মোস্তফা এক চালককে পিটিয়ে আহত করে। এর প্রতিবাদে চালকরা মহাসড়ক অবরোধ করে।
অভিযোগ সম্পর্কে বারইয়ারহাট পৌর বাজার এলাকায় দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশের উপ- পরির্দশক মো. মোস্তফা চালকদের কাছে চাঁদা চাওয়ার বিষয় অস্বীকার করে বলেন, আমি রাস্তায়ই থাকি না। প্রয়োজন পড়লে ডিউটি করতে রাস্তায় যায়। শুক্রবার উপজেলা নির্বাচনের জন্য গাড়ি রিকুজিশন করতে গেলে অনেক গাড়িতে কাজগপত্র পাওয়া যায়নি। এসময় চালকরা গাড়ির মালিকদের নিয়ে আসে। এ নিয়ে একটু ঝামেলা হয়। পরে তা মিটে গেছে।