চসিক মেয়রের সাথে তুরস্ক রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাত

প্রকাশ:| রবিবার, ৩ জানুয়ারি , ২০১৬ সময় ০৮:৩১ অপরাহ্ণ

তুরস্ক’র রাষ্ট্রদূততুরস্কে কর্মরত বাঙালি শ্রমিকদের কাজের প্রশংসা করেছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত ডেভরিম ওজতার্ক। রোববার চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে রাষ্ট্রদূত এ প্রশংসা করেন।

গার্মেন্টস খাত বাংলাদেশের জন্য অনেক সুনাম ও বৈদেশিক মুদ্রা নিয়ে আসছে অভিমত দিয়ে রাষ্ট্রদূত বলেন, তুরস্কে বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের চাহিদা বাড়ছে।

তিনি মনোরম ও নৈসর্গিক স্থান বন্দরনগরী চট্টগ্রামের সাথে প্রাচীন স্থাপত্য সংরক্ষণ, আইটি, কারিগরি, স্বাস্থ্য, জাহাজ নির্মাণ খাতসহ বিভিন্ন খাতে ব্যবসায়িক সম্পর্ক স্থাপনে আগ্রহ ব্যক্ত করেন।

মেয়র তুরস্ককে বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু দেশ আখ্যায়িত করে বলেন, বন্দরনগরী চট্টগ্রাম ভৌগোলিক ও অর্থনৈতিক দিক থেকে গার্মেন্টস শিল্প, স্বাস্থ্য, শিক্ষাসহ বিবিধ খাতে পুঁজি বিনিয়োগ ও পর্যটন শিল্পের জন্য উপযোগী ও নিরাপদ এলাকা।

মেয়র বলেন, বহু বিদেশি কোম্পানি সাফল্যের সাথে চট্টগ্রামে তাদের ব্যবসা-বাণিজ্য পরিচালনা করে যাচ্ছে।

তিনি নগরীর আন্দরকিল্লায় অবস্থিত প্রাচীন শাহি জামে মসজিদটির সংস্কারে পবিত্র নগরী মদিনার মসজিদে নববীর আদলে এ মসজিদের স্থাপত্য শিল্প অটুট রেখে সংস্কারের এবং চট্টগ্রাম-ইস্তাম্বুলের মধ্যে টু-ইন-সিটির সম্পর্ক স্থাপনের প্রস্তাব দেন।

মেয়র বলেন, নগরীর পতেঙ্গা নেভাল অ্যাভেনিউকে ইতিপূর্বে কামাল আতার্তুক অ্যাভেনিউ নামকরণ করা হয়েছে।

বৈঠকে তুর্কির অনারারি কনসাল জেনারেল সালাউদ্দিন কাসেম খান, চসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মোহাম্মদ শফিউল আলম, সচিব রশিদ আহমদ, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাজিয়া শিরিন, জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আবদুর রহিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পরে রাষ্ট্রদূত চসিক পরিচালিত জেনারেল হাসপাতাল, শাহি জামে মসজিদ ও চন্দনপুরা মসজিদ পরিদর্শন করেন।