নানা আয়োজনে মহান স্বাধীনতা দিবস পালন করলো চসিক

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২৬ মার্চ , ২০১৫ সময় ০৫:৫৮ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের স্বাধীনতা স্মারক সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান

ccc261৪৫তম মহান স্বাধীনতা দিবস ২০১৫ উপলক্ষে নগরীর থিয়েটার ইনষ্টিটিউট মিলনায়তনে আয়োজন করা হয়
‘স্বাধীনতা স্মারক সম্মাননা পদক’ প্রদান অনুষ্ঠান। বিরল অবদানের জন্য চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন ৯জন গুনী ব্যক্তিকে এ সম্মাননা দিয়েছে। এবার জনসেবায় বিচারপতি ইমাম হোসাইন (মরনোত্তর) ও কামাল উদ্দিন নিযামী (মরনোত্তর), শিক্ষায় ড. এনামুল হক, সমাজসেবায় মুন্সি মিয়া (মরনোত্তর) ও চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সাবেক ডেপুটি মেয়র এস এম ফারুক, সাংবাদিকতায় সৈয়দ মর্তুজা আলী (মরনোত্তর), ক্রীড়ায় আকরাম খাঁন ও মিনহাজুল আবেদীন নান্নু এবং মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা আন্দোলনে বিরল অবদানের জন্য বীর মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট সুলতান-উল কবির চৌধুরী (মরনোত্তর)কে পদক প্রদান করা হয়। সিটি মেয়রের নিকট থেকে পদক গ্রহন করেন বিচারপতি ইমাম হোসেন চৌধুরীর পক্ষে তার নাতী সাকিব ইমাম চৌধুরী, এডভোকেট সুলতান উল কবির চৌধুরীর পক্ষে তার সুযোগ্য সন্তান চৌধুরী মোহাম্মদ গালিব, সাবেক ডেপুটি মেয়র এস এম ফারুক, ড. এনামুল হক এর পক্ষে প্রফেসর ড. এ কে এম শামসুউদ্দিন, সৈয়দ মুরতুজা আলী, কামাল নিজাম এর পক্ষে তার ছেলে মোহাম্মদ ইলিয়াছ, আকরাম খাঁন এর পক্ষে তার বোন রোকসানা আলম।
২৬ মার্চ ২০১৫খ্রি. বৃহস্পতিবার বিকেলে থিয়েটার ইনষ্টিটিউট হলে অনুষ্ঠিত পদক বিতরণ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সমাজকল্যাণ স্ট্যান্ডিং কমিটির চেয়ারম্যান ও কাউন্সিলর হাজী মো. জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব মোহাম্মদ মনজুর আলম। আলোচনা করেন প্যানেল মেয়র লায়ন মোহাম্মদ হোসেন, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মোহাম্মদ শফিউল আলম, সচিব রশিদ আহমদ, প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা অধ্যাপক মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ, সিটি ম্যাজিস্ট্রেট নাজিয়া শিরিন, মেয়রের একান্ত সচিব মো. মনজুরুল ইসলাম, । অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আবদুর রহিম। স্বাধীনতা স্মারক সম্মাননা পদক প্রাপ্তদের মধ্যে অনুভূতি ব্যক্ত করেন সাবেক ডেপুটি মেয়র এস এম ফারুক, সাংবাদিক সৈয়দ মুরতুজা আলীসহ অন্যদের প্রতিনিধি বৃন্দ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিটি মেয়র বলেন, রক্ত ও ত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতাকে অর্থবহ করতে হবে। তিনি বলেন, বাঙালির শ্রেষ্ঠ অর্জনকে চেতনায় ধারন করে প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম পরষ্পরায় পৌছে দিতে হবে। মেয়র বলেন, যার যার অবদানের স্বীকৃতি দিতে হবে। দেশপ্রেমের মন্ত্রে উজ্জীবিত হয়ে স্ব স্ব অবস্থান থেকে সর্বোচ্চ নিষ্ঠা, আন্তরিকতা ও সততার সঙ্গে দায়িত্ব সুচারুরূপে পালন করতে হবে। পরে মেয়র আলহাজ্ব মোহাম্মদ মনজুর আলম ৪৫তম স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠিত লোক সঙ্গীত, উপস্থিত বক্তৃতা, দেশের গান, আবৃত্তি, সাধারন নৃত্য ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।


ঈদঁগা কাঁচারাস্তার মাথা ডিটি রোডে স্বাধীনতা স্তম্ভ শুভ ঊদ্বোধন করলেন সিটি মেয়র

৪৫তম স্বাধীনতা দিবস ২৬ মার্চ ২০১৫খ্রি: বৃহস্পতিবার দুপুর ১১টায় নগরীর ডিটি রোডস্থ ঈদঁগা কাচাঁঁরাস্তার মাথায় ১৯৭১ সনের মহান মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের সম্মানার্থে চট্রগ্রাম সিটি কপোরেশনের ঊদ্যোগে নির্মিত “স্বাধীনতা স্তম্ভ” ফলক ঊম্মোচন ও মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শুভ ঊদ্বোধন করলেন চট্টগ্রাম সিটি কপোরের্শনের মেয়র আলহাজ্ব মোহাম্মদ মনজুর আলম। সিটি কর্পোরেশনের রাজস্ব তহবিল থেকে প্রায় ৯লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মিত হলো “স্বাধীনতা স্তম্ভ^”। এ স্তম্ভটি নির্মাণের দাবী ছিল মুক্তিযোদ্ধাদের সংগঠন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ চট্টগ্রাম মহানগর ইউনিট কমান্ড এর। ঐতিহাসিক এ “স্বাধীনতা স্তম্ভ” শুভ ঊদ্বোধন উপলক্ষে অনুষ্ঠিত সুধি সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নিবার্হী কর্মকর্তা কাজী মোহাম্মদ শফিউল আলম। এতে বক্তব্য রাখেন কাউন্সিলর হাজী বাবুল হক, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সচিব রশিদ আহমদ, মেয়রের একান্ত সচিব মোহাম্মদ মনজুরুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও মহানগর ইউনিট কমান্ডার মোজাফ্ফর আহমদ, ডেপুটি কমান্ডার খলিল উল্ল্যাহ সর্দ্দার, বীর মুক্তিযোদ্দা মোহাম্মদ হারিছ, ফাহিম উদ্দিন, সাধন চন্দ্র বিশ্বাস, আবুল কাসেম, হাজী মোহাম্মদ আইয়ুব, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের তত্ত্ববধায়ক প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম মানিক, সহকারী প্রকৌশলী বিপ্লব দাশ, সমাজসেবক মো. ওমর, মো. জাহাঙ্গীর আলম, ইবনুল হাসান, শফিকুর রহমান, আলী হায়দার, আজহারুল ইসলাম, জাহানারা বেগম, বোরহান উদ্দিন, খালেদা বোরহান সহ অন্যরা। স্বাধীনতা স্তম্ভ এর ফলক উদ্বোধন ও সুধী সমাবেশে সিটি মেয়র আলহাজ্ব মোহাম্মদ মনজুর আলম বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধাদের দাবী ছিল“স্বাধীনতা স্তম্ব” গডে তোলা। তাদের দাবী ও ১৯৭১ সনের মহান মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি ও শহীদের স্মৃতি প্রজন্ম পরম্পরায় চিরজাগ্রক রাখতেই এ উদ্যোগ। মেয়র বলেন, স্বাধীনতা কারোর দয়ার দান না। রক্ত, ইজ্জত ও ত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত হয়েছে স্বাধীনতা। তিনি স্বাধীনতাকে অর্থবহ করতে দেশকে উন্নত করতে হবে এবং নাগরিক অধিকার সুরক্ষা করতে হবে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন।

/strong>

২৬ মার্চ ২০১৫খ্রি. ৪৫তম মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস। এ দিবস স্মরণে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন দিন ব্যাপি কর্মসূচি পালন করেছে। কর্মসূচির মধ্যে ছিল স্বাধীনতা স্মারক সম্মাননা পদক প্রদান, কুচকাওয়াজ, ডিসপ্লে, ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা সহ নানা কর্মসূচি। সূর্যোদয়ের সাথে সাথে ভবনে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের পর নগরীর বাকলিয়া সিটি কর্পোরেশন ষ্টেডিয়ামে সিটি কর্পোরেশনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহের ছাত্র-ছাত্রীদের কুচকাওয়াজ ও ডিসপ্লে অনুষ্ঠিত হয়। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব মোহাম্মদ মনজুর আলম ০১ মিনিটের সময় প্যানেল মেয়র, কাউন্সিলর ও কর্পোরেশনের কর্মকর্তাদের সাথে নিয়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পন করে মহান স্বাধীনতার বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। সকাল ৮.৩০টার সময় নগরীর বাকলিয়া ষ্টেডিয়ামে জাতীয় সঙ্গীতের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা উত্তোলন, কর্পোরেশনের পতাকা উত্তোলন, ফেষ্ঠুন সহ বেলুন উত্তোলন ও পায়রা উড়িয়ে ৪৫তম স্বাধীনতা দিবসের কর্মসূচি শুভ উদ্বোধন করেন সিটি মেয়র আলহাজ্ব মোহাম্মদ মনজুর আলম। কর্পোরেশন পতাকা উত্তোলন করেন কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মোহাম্মদ শফিউল আলম। এ সময় প্যানেল মেয়র লায়ন মোহাম্মদ হোসেন, কাউন্সিলর হাজী নুরুল হক, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মোহাম্মদ শফিউল আলম, সচিব রশিদ আহমদ, প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা অধ্যাপক মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ, সিটি ম্যাজিস্ট্রেট নাজিয়া শিরিন, মেয়রের একান্ত সচিব মোহাম্মদ মনজুরুল ইসলাম, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী এয়াকুব নবী, আনোয়ার হোসাইন ও মাহফুজুল হক সহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন। পরে সিটি মেয়র ছাত্র-ছাত্রীদের কুচকাওয়াজ পরিদর্শন ও সালাম গ্রহন করেন এবং ছাত্র-ছাত্রীদের মনোজ্ঞ ডিসপ্লে উপভোগ করেন। ডিসপ্লে ও কুচকাওয়াজের অংশ গ্রহনকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থান অর্জনকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সমূহকে পুরস্কার তুলে দেন সিটি মেয়র আলহাজ্ব মোহাম্মদ মনজুর আলম। পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মোহাম্মদ শফিউল আলম। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব মোহাম্মদ মনজুর আলম। আলোচনা করেন প্যানেল মেয়র লায়ন মোহাম্মদ হোসেন, কাউন্সিলর হাজী নুরুল হক, সচিব রশিদ আহমদ, ম্যাজিস্ট্রেট নাজিয়া শিরিন, মেয়রের একান্ত সচিব মোহাম্মদ মনজুরুল ইসলাম, প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ, তত্ত্বাবধাক প্রকৌশলী এয়াকুব নবী, আনোয়ার হোসাইন, মাহফুজুল হক সহ অন্যরা। সিটি মেয়র আলহাজ্ব মোহাম্মদ মনজুর আলম মহান স্বাধীনতার শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন, স্বাধীনতা অর্জনের পেছনে যাদের অবদান রয়েছে তাদেরকে জাতি চিরদিন স্মরণে রাখতে। তিনি স্বাধীনতার লক্ষ্য সুখী, সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়ে তোলার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রতি আহবান জানান। তিনি বলেন, সুশিক্ষিত হয়েই দেশ সেবায় ব্রত হতে হবে।


চট্টগ্রাম- ২৬ মার্চ ২০১৫খ্রি