চলাচলের রাস্তায় বন্ধ করে দিয়েছে প্রভাবশালীরা: ২৫ পরিবারের দূর্ভোগ

প্রকাশ:| শুক্রবার, ৬ মার্চ , ২০১৫ সময় ১০:৪৬ অপরাহ্ণ

গিয়াস উদ্দিন, পেকুয়া::
কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার সদর ইউনিয়নের পূর্ব গোয়াখালী গ্রামে একটি সরকারী চলাচলের গ্রামীন রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে প্রভাবশালীরা। ফলে ওই রাস্তা দিয়ে চলাচলকারী ওই গ্রামের ২৫ পরিবারের দুই শতাধিক লোক চরম দূর্ভোগের শিকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। চলাচলের রাস্তা খুঁটি দিয়ে বন্ধ করে দেওয়ার ঘটনায় এলাকায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। যেকোন মূহুর্তে গ্রামবাসীদের সঙ্গে ওই প্রভাবশালীর রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা করা হচ্ছে।

এদিকে এ ঘটনার প্রতিকার চেয়ে পেকুয়া সদর ইউনিয়নের পূর্ব গোয়াখালী গ্রামের বদিউল আলমের পুত্র আবুল কাসেমসহ ১০জন গ্রামবাসী একটি গত কয়েক দিন পূর্বে পেকুয়ার ইউএনও‘র কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ওই প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে। আর ইউএনও অভিযোগটি সরেজমিনে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পেকুয়া থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন। ওসি বিষয়টি সরেজমিনে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য এএসআই জাফরকে দায়িত্ব দিয়েছেন। অভিযোগ পেয়ে পেকুয়া থানার এএসআই জাফর সরেজমিনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বলে জানা গেছে।

প্রাপ্ত অভিযোগে সূত্রে জানা গেছে, পেকুয়া সদর ইউনিয়নের পূর্ব গোয়াখালী গ্রামের মো.হোসেনের পুত্র প্রভাবশালী জসিম উদ্দিন চলতি বছরের ১০ জানুয়ারী সকাল ১০ঘটিকার সময় পূর্ব গোয়াখালী একটি গ্রামীন সরকারী সড়কের প্রবেশমূখে বড় বড় গাছের খুঁটি পুঁতে দিয়ে জনসাধারনের চলাচলের উপর অঘোষিত নিষেধাজ্ঞা জারী করে। এসময় তাকে গ্রামবাসীরা বাধা দিতে চেষ্টা তাদের বিভিন্ন ধরনের হুমকি দেওয়া হয়। চলাচলের রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে ওই গ্রামের ২৫ পরিবারের লোকজন কার্যত অচল হয়ে পড়েছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ওই প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে পেকুয়া থানায় ২টি জিডি রয়েছে। যার নং ১৮, তাং ১৩/০১/১৫ ও ৮৬৬ তাং ২১/০৭/২০০৭ইং।

পূর্ব গোয়াখালী গ্রামের বদিউল আলমের পুত্র আবুল কাসেম অভিযোগ করেছেন, ওই প্রভাবশালী জসিম উদ্দিন এখন চলাচরের রাস্তা বন্ধ করে দিয়ে আমাদের কাছ থেকে ৪০হাজার টাকা চাঁদা দাবী করছে। তার দাবীকৃত চাঁদা না দেওয়ায় রাস্তার খুঁটি সরিয়ে নিচ্ছেনা।

অভিযোগের ব্যাপারে জানতে জসিম উদ্দিনের সাথে যোগাযোগ করে বক্তব্য নেওয়ার জন্য বহুবার চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।