চমেকে পুলিশি প্রহরায় থাকা অাসামীর পলায়ন

প্রকাশ:| শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর , ২০১৫ সময় ১১:২০ অপরাহ্ণ

ফটিকছড়ি থানায় গণপিটুনির শিকার হয়ে পুলিশি প্রহরায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা সৈয়দ আলম (৩৫) নামে এক আসামি পালিয়েছে। এঘটনায় দায়িত্বে অবহেলার দায়ে জেলা পুলিশের দুই পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

শুক্রবার বিকেলে চমেক হাসপাতালের ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যাহার হওয়া পুলিশ সদস্যরা হলেন-এএসআই ফয়জুর রহমান ও কনেস্টেবল ফয়সাল আহমেদ।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জেলা পুলিশ সুপার এম হাফিজ আক্তার বলেন, ‘ফটিকছড়ি থানা থেকে গণপিটুনির শিকার এক আসামি পুলিশি প্রহরায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় থেকে পালিয়েছে। দায়িত্বে অবহেলার দায়ে দুই পুলিশ সদস্যকে ক্লোজড করা হয়েছে। কালকে তদন্ত করে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বোয়ালখালীর পূর্ব গোমদন্ডী গ্রামের নবাব সওদাগর বাড়ির সামশুল আলমের ছেলে সৈয়দ আলম সংঘবদ্ধ ছিনতাইকারী দলের নেতা। এ চক্রে রয়েছেন, তার স্ত্রী রোকসানা বেগম (২৬) এবং সহযোগী আব্দুল গফুর। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ফটিকছড়ির পাইন্দগাও এলাকায় সিএনজি অটোরিকশার আড়ালে ছিনতাই করতে গিয়ে গণপিটুনির শিকার হয় তিনজনই । এদের মধ্যে গুরুতর আহত সৈয়দ আলমকে চমেক হাসপাতালের ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছিল। চিকিৎসাধীন সৈয়দ আলমের প্রহরায় জেলা পুলিশ লাইন থেকে এএসআই ফয়জুর রহমান ও কনস্টেবল ফয়সাল আহমেদেকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল। শুক্রবার দুপুরে তাদের চোখ ফাঁকি দিয়ে সৈয়দ আলম পালিয়ে গেছে।


আরোও সংবাদ