চবি ভর্তি পরীক্ষা নির্বিঘ্নে করার জন্য পুলিশ, র‌্যাব, ট্রাফিক, রেলওয়েসহ চট্টগ্রামের অন্যান্য প্রশাসনের সাথে বৈঠক

প্রকাশ:| শনিবার, ৯ নভেম্বর , ২০১৩ সময় ১০:৩৩ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৩-১৪ শিক্ষবর্ষের প্রথম বর্ষ ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে ১৬ নভেম্বর থেকে। শেষ হবে ২৫ নভেম্বর।cu চবি

এ বছর চবির ৯টি ইউনিটের অধীনে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে ১ লাখ ৬২ হাজার ৩৬৫ জন ভর্তিচ্ছু।

পুরো পরীক্ষার কার্যক্রম নির্বিঘ্নে করার জন্য পুলিশ, র‌্যাব, ট্রাফিক, রেলওয়েসহ চট্টগ্রামের অন্যান্য প্রশাসনের সাথে বৈঠক করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

শনিবার নগরীর বাদশা মিয়া রোডস্থ চারুকলা ইনস্টিটিউটে বিকেল সাড়ে ৪টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন চবি উপাচার্য অধ্যাপক মো. আনোয়ারুল আজিম আরিফ।

সভায় পরীক্ষার দিন সকাল থেকে শহর হতে বিশ্ববিদ্যালয়ের যাতায়াতের জন্য গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলো সর্বোচ্চ জ্যাম মুক্ত রাখা, পরীক্ষা চলাকালীন নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ, সড়ক মেরামত, শাটল ট্রেনের বগি বৃদ্ধি, সর্বোচ্চ আইন শৃঙ্খলা ব্যবস্থা গ্রহণসহ সার্বিক বিষয়ে স্ব স্ব প্রশাসনের সাথে আলোচনা করা হয়। প্রতিটি বিভাগই তাদের নিজেদের পক্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা চলাকালীন সর্বোচ্চ সহায়তার আশ্বাস প্রদান করেন।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিতি ছিলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. সফিউল আলম, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের ডিনবৃন্দ, প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ড. খান তৌহিদ ওসমান, সহকারী প্রক্টরবৃন্দ, ট্রাফিক উত্তরের এডিসি অনিন্দিতা বড়ুয়া, সিএসবি’র এডিসি রবিউল হোসেন ভুঁইয়া, শিক্ষার এডিসি তানভির সিদ্দিকী, বিভাগীয় রেলওয়ে ম্যানেজার সুকুমার ভৌমিক, হাটহাজারী সার্কেলের এএসপি আ ফ ম নিজাম উদ্দিন, চট্টগ্রাম রেলওয়ে জেলার ডিআইও হুমায়ুন কবির প্রমুখ।

সভায় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষকে পরীক্ষার সময় বগি বৃদ্ধি করার জন্য আহ্বান জানানো হয়। তবে বটতলী রেলওয়ে স্টেশনের সংস্কার কাজ চলায় ট্রেন ষোলশহর রেলওয়ে স্টেশন থেকে ছাড়বে বলে জানায় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।


আরোও সংবাদ