চবিতে সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা, তদন্ত কমিটি

প্রকাশ:| শুক্রবার, ১ মে , ২০১৫ সময় ১১:৩২ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) ছাত্রলীগের বগিভিত্তিক দুই সংগঠন সিক্সটি নাইন ও বাংলার মুখের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় পাল্টাপাল্টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া ঘটনা তদন্তে তিন সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করেছে চবি কর্তৃপক্ষ।

শুক্রবার সকালে হাটহাজারী থানায় মামলা দুইটি দায়ের করা হয়।

মামলা দু’টি দায়ের করেন- বাংলার মুখের কর্মী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষার্থী মো. মহসিন বাদী হয়ে সিক্সটি নাইনের আবু কাইজার রনি, আরিফুল ইসলাম, ইকবাল হোসেন টিপু, তানজিদসহ ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করেন।

অন্যদিকে সিক্সটি নাইন গ্রুপের কর্মী সুরজ মহলদার বাদী হয়ে বাংলার মুখের সৌমেন পালিত, প্রবীন দেব, সুমন, সমির, সোহেলসহ ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা দায়ের করেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে হাটহাজারী থানার ওসি মো. ইসমাইল হোসেন বাংলামেইলকে বলেন, ‘বৃহস্পতিবার দুপুরে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় দুইটি মামলা দায়ের করেছে ছাত্রলীগের দু’গ্রুপ। আর ঘটনা তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য তদন্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’
চবিতে সংঘর্ষের ঘটনায়
হাটহাজারী থানার উপ পরিদর্শক মিজানুর রহমান ও উপ-পরিদর্শক স্বপন কুমার মামলা দু’টি তদন্ত করার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বলে জানান ওসি ইসমাইল হোসেন।

এদিকে ছাত্রলীগের সংঘর্ষের ঘটনায় তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করেছে চবি কর্তৃপক্ষ। তদন্ত কমিটিতে আইন অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড.আবদুল্লাহ আল ফারুককে আহ্বায়ক, সহকারী প্রক্টর মোরশেদুল হককে সদস্য সচিব এবং এফ রহমান হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক মনিরুল হাসানকে সদস্য করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর সিরাজ উদ দৌলাহ বলেন, ‘বৃহস্পতিবার ছাত্রলীগের বগিভিত্তিক দুই সংগঠনের সংঘর্ষের ঘটনার বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। এ তদন্ত কমিটিকে দুই একদিনের মধ্যে তাদের তদন্ত প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

প্রসঙ্গত আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন সমর্থিত দুইটি গ্রুপ পুলিশের উপস্থিতিতেই ধারালো অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে সাংবাদিক-পুলিশসহ ১০জন আহত হয়।

চবি ছাত্রলীগের বিলুপ্ত কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দিয়াজ ইরফান চৌধুরী নিয়ন্ত্রণ করেন বাংলার মুখ এবং সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর টিপু নিয়ন্ত্রণ করে সিক্সটি নাইন।