চবিতে নির্দেশনা অমান্য করে আলাদা কর্মসূচী পালনের অভিযোগ

প্রকাশ:| সোমবার, ১৫ আগস্ট , ২০১৬ সময় ১০:১৮ অপরাহ্ণ

চবি প্রতিনিধি: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নাম ব্যবহার করে জাতীয় শোক দিবসে আলাদা আলাদা কোন কর্মসূচি পালন না করতে শাখা ছাত্রলীগের নির্দেশনা থাকার পরেও ‘দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া হল, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ’ নাম দিয়ে শোক দিবসে আলাদাভাবে কর্মসূচী পালনের অভিযোগ উঠেছে এক ছাত্রলীগ নেত্রীর বিরুদ্ধে। ফৌজিয়া নিজাম তামান্না নামের এ নেত্রী শাখা ছাত্রলীগের উপ ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক।
চবিতে নির্দেশনা অমান্য করে আলাদা কর্মসূচী পালনের অভিযোগ3

চবিতে নির্দেশনা অমান্য করে আলাদা কর্মসূচী পালনের অভিযোগ2

চবিতে নির্দেশনা অমান্য করে আলাদা কর্মসূচী পালনের অভিযোগ
ছাত্রলীগ সূত্র জানিয়েছে, রোববার রাতে শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আলমগীর টিপু এবং সাধারণ সম্পাদক ফজলে রাব্বী সুজন স্বাক্ষরিত একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি গণমাধ্যমে পাঠানো হয়। যাতে লিখা ছিলো “বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যলয় এককভাবে সকল কর্মসূচী পালন করছে। এর বাইরে গিয়ে যদি কেউ বাংলাদেশ ছাত্রলীগ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যলয় এর নাম ব্যাবহার করে কোন কর্মসূচি বা কার্যক্রম পালন করে তা হবে সম্পূর্ণ অননুমোদিত এবং জড়িতদের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ সাংগঠনিক ব্যাবস্থা নেয়া হবে”

কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের দুই শীর্ষ নেতার পক্ষ থেকে এমন কঠোর নির্দেশনা দেয়ার পরেও তা মানেননি শাখা ছাত্রলীগের উপ ছাত্রী বিষয়ক সম্পাদক ফৌজিয়া নিজাম তামান্না। রোববার দিবাগত রাতে তিনি তার অনুসারীদের নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের খালেদা জিয়া হলে ছাত্রলীগের নাম ব্যাবহার করে শোক দিবসের কর্মসূচি পালন করেন। এ বিষয়ে ফৌজিয়া নিজাম তামান্নার বক্তব্য নিতে তার মুঠোফোনে কয়েকবার কল করা হলেও তিনি কল রিসিভ করেননি।

এদিকে ঐ নেত্রী সংগঠনের নির্দেশ উপেক্ষা করে আলাদাভাবে কর্মসূচি পালন করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন চবি ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। তারা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ বিভিন্ন বগি বা উপদলে বিভক্ত। যার করনে দেশের অন্যতম বৃহৎ ইউনিট হওয়ার পরেও এর সুফল থেকে নেতাকর্মীরা বঞ্চিত। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশে সকল বগি ভিত্তিক রাজিনীতি নিষিদ্ধ করে চবি ছাত্রলীগ যখন নিজেদের মধ্যে ঐক্য প্রতিষ্ঠায় কাজ করছে, তখন সংগঠন বিরোধী এবং নিজেদের মধ্যে গ্রুপিং সৃষ্টিকারী এসব কার্যকলাপ ছাত্রলীগের মধ্যে বৃহত্তর ঐক্য সৃষ্টিতে বাধার সৃষ্টি করবে।

শাখা ছাত্রলীগের নির্দেশ অমান্য করে কর্মসূচি পালনের বিষয়ে চবি ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক ফজলে রাব্বী সুজনের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন, শোক দিবসে খালেদা জিয়া হলে পালিত কর্মসূচিটি একটি ঘরোয়া কর্মসূচি ছিলো। যে কেউ তার বাসা-বাড়ি কিংবা হলে জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে পারেন। এতে সংগঠনের নির্দেশ ভঙ্গ হয়নি। কিন্তু কর্মসূচিতে ছাত্রলীগের ব্যানার কেনো? এমন প্রশ্ন এড়িয়ে যান তিনি।

তবে সাধারণ সম্পাদকের এ বক্তব্যের সাথে দ্বিমত পোষণ করেছেন সভাপতি আলমগীর টিপু। নির্দেশ অমান্যকারী ঐ নেত্রীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘ছাত্রলীগের নাম ব্যবহার করে যেহেতু আলাদাভাবে এ কর্মসূচিটি পালন করা হয়েছে, তাই দলীয় ফোরামে এ নিয়ে আলোচনা করে ব্যবাস্থা নেয়া হবে।


আরোও সংবাদ