চট্টগ্রাম বন্দর থেকে কন্টেইনার পাচারের অভিযোগে ১৫ কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারি , ২০১৪ সময় ০৮:৪৬ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম বন্দর থেকে কন্টেইনার পাচারের অভিযোগে ১৫ কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বৃহস্পতিবার দুপুরে দুদক চট্টগ্রাম-১ এর উপসহকারী পরিচালক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে বন্দর থানায় মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার আসামিরা হলেন, হুমায়ুন কবির, অধীর কান্তি চক্রবর্তী, প্রদীপ কুমার মহাজন, মোস্তাফিজুর রহমান, শ্যামল কৃষ্ণ ভৌমিক, আতিকুর রহমান, ছালেহ জহুর, সিরাজুল হক মোল্লা, এএসআই আলী আজম চৌধুরী, মনির আহম্মদ, ছগির আহম্মদ, হারুন চৌধুরী, মিজানুর রহমান, কামাল উদ্দিন চৌধুরী, নজরুল ইসলাম।

এরা সবাই চট্টগ্রাম বন্দরের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা ও কর্মচারী।

এছাড়াও আসামি করা হয়েছে, নগরীর আগ্রাবাদ এলাকার সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট এবকো এন্টারপ্রাইজের স্বত্ত্বাধিকারী আলম শাহ এবং এবকো এন্টারপ্রাইজের সরকার বরুণ কাস্তি সেন।

আসামিদের মধ্যে বন্দরের নিরাপত্তা বিভাগের নয়জন, পরিবহন বিভাগের ছয়জন কর্মকর্তা-কর্মচারী ও সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টরে দুইজন আছেন।

বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদুল ইসলাম বলেন, ‘বন্দরের সংরক্ষিত এলাকা থেকে নিরাপত্তা বিভাগ ও কর্মচারীদের যোগসাজসে প্রায় ৪০ লাখ টাকার পণ্য বোঝাই একটি কন্টেইনার পাচারের অভিযোগে দুদক মামলাটি দায়ের করেছে।’

মামলার বাদী ও দুদক জেলা কার্যালয় চট্টগ্রাম-১ এর উপসহকারী পরিচালক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম জানান, আসামিরা পরস্পর যোগসাজসের মাধ্যমে চট্টগ্রাম বন্দরের সংরক্ষিত জেটি এলাকা থেকে আমদানিপণ্য বোঝাই কন্টেইনার পাচার করেছে। এ নিয়ে গঠিত কমিটির তদন্তে তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেছে।


আরোও সংবাদ