চট্টগ্রামে ৩৫ ইটভাটার মালিকের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশ:| বুধবার, ২২ জানুয়ারি , ২০১৪ সময় ১০:০১ অপরাহ্ণ

লোহাগাড়া, সাতকানিয়া ও ফটিকছড়ি উপজেলায় গুণগতমান যাচাই ছাড়া পণ্য উৎপাদন, বিক্রয় ও বিতরণ করার অভিযোগে ৩৫ ইট ভাটা ও ২টি ময়দার মিলের মালিকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বুধবার চট্টগ্রাম মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে মামলাগুলো দায়ের করেন দেশে পণ্যের মান নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউট (বিএসটিআই)।

মামলা অভিযুক্তরা হলেন, ফটিকছড়ির মনির আহমেদ ব্রিক্সের মালিক ছাপানুল করিম, আপন ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের মো. জুলফিকার আলী, ফাইন ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের সরোয়ার আলম চৌধুরী, বক্কর ব্রিক্সের রেজাউল করিম চৌধুরী, রয়েল ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিং কোম্পানির মো. ইদ্রিচ চৌধুরী, রশিদ কামাল ব্রিক্সের মো. এরশাদ উল্লাহ লাভলু, রহমতিয়া মডার্ণ ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের মো. সেলিম, খাজা আজমীর ব্রিক্সের মো. আনোয়ারুল আজিম, আজিজ মডার্ণ ব্রিক্সের আজিজুল হক চৌধুরী, শ্বেতকুয়া ব্রিক্সের শফিউল আজম, মডার্ণ ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের শহীদ মিয়া, হারুয়ালছড়ি ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের আবুল কালাম আজাদ, জে.এন ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের শাহ আলম, ন্যাশনাল ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের ওসমান উদ্দিন, শাহ আমানত মো. ব্রিক্সের সেকান্দর, আমান উল্লাহ মিয়া ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিং মো. আমান উল্লাহ মিয়া, জনতা ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের ফোরকানুল আমিন, রহমানিয়া ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের হাজী আবুল বশর, বাংলা বাজার ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের মো. আবুল হাশেম, গ্রামীণ ব্রিক্সের মো. নাসির উদ্দিন, জান্নাত ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের মো. ওসমান গণি, পাইন্দং ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের মো. নাছির উদ্দিন।

এছাড়া লোহাগাড়া উপজেলার কেএন ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের মালিক খায়ের আহম্মেদ, লোহাগাড়া ব্রিক্স কোম্পানির মালিক সৈয়দ আহম্মেদ, আরব ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের আব্দুল কাইয়ুম, শাহ আমানত ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের জামাল হোসেন, ইসলাম ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের আনোয়ার হোসেন মিজবা, এমএম ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের বদিউল আলম, খাজা ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের এসএম নাছির উদ্দিন চৌধুরী, শাহ আমানত ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের নাজিম উদ্দীন, রহমানিয়া ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের জয়নাল আবেদীন (জুনু), শাহ মজিদিয়া ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের নুরুল আলম, এএইচ ব্রিক্সের মালিক হাজী আহম্মেদ হোসেন। সাতকানিয়া নুর হোসেন ব্রিক্স ম্যানুফেকচারিংয়ের মালিক নুর হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়।

বিএসটিআইয়ের উপপরিচালক (মেট) শওকত ওসমান জানান, ফটিকছড়ি, লোহাগাড়া ও সাতকানিয়া উপজেলার ৫০টি ইটভাটায় ইটের গুণগত মান যাচাইয়ের লক্ষ্যে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এ সময় ৩৫টি ইটভাটা গুণগতমান যাচাই ছাড়া পণ্য উৎপাদন, বিক্রয় ও বিতরণ করায় তাদের বিরুদ্ধে মূখ্য মহানগর হাকিম আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এছাড়া বিএসটিআইয়ের লাইসেন্স ছাড়া পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাত করায় ফটিকছড়ির দুটি ময়দার মিলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ময়দার মিল দুটির মধ্যে ন্যাশনাল ফুডের মালিক মো. কামাল উদ্দিন ও এমএস ফ্লাওয়ার মিলের আলী আজম সাদেক ও শাহ আলমকে আসামি করে দুটি মামলা দায়ের করা হয়।


আরোও সংবাদ