চট্টগ্রামে মুসলমান আগমনের ইতিকথা গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠান

প্রকাশ:| সোমবার, ১২ জুন , ২০১৭ সময় ০৮:৩৩ অপরাহ্ণ

গবেষণা ও তথ্য সমৃদ্ধ ইতিহাস “চট্টগ্রামে মুসলমান আগমনের ইতিকথা” শীর্ষক গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেছেন, “চট্টগ্রামে মুসলমান আগমনের ইতিকথা” বিষয়টি অতিপ্রাচীন ও মূল্যবান বিষয়। ১৪ শত বছর আগের কথা ঐতিহাসিক মূল্যায়নে এর গুরুত্ব অপরিসীম। নবী মুহম্মদ (দঃ) এর পবিত্র ইসলাম ধর্ম ও প্রচার প্রসার ও মহাগ্রন্থ আল-কোরআন আজ সমগ্র বিশ্বময় শান্তির বাণী ও মহান আল্লাহ্তায়ালার প্রদর্শিত পথ দেখিয়ে চলছে। পবিত্র মক্কা ও মদিনার পথের প্রান্ত থেকে আজ বিশ্বব্যাপী এ পবিত্র ধর্ম ইসলাম মানুষকে কল্যাণের পথে আহ্বান করছে। চট্টগ্রাম ও বাংলাদেশে ইসলাম ধর্মের আগমনের সময় নির্ণয় কঠিন ছিল। সেই বিষয়টি চট্টগ্রামে মুসলমান আগমনের ইতিকথা গ্রন্থের লেখক সোহেল মুহাম্মদ ফখরুদ-দীন মূল্যবান সময় ব্যয় করে গবেষণার মাধ্যমে তাঁর গ্রন্থে প্রকাশ করেছেন। এটি চট্টগ্রামবাসী, বাঙালি মুসলমানদের তথা ইতিহাসের কাছে নতুন তথ্য সমৃদ্ধ করেছে। বক্তারা আরো বলেছেন, আলোচিত বইয়ের মাধ্যমে প্রমাণিত যে, নবী করিম (দঃ) এর যুগে বিখ্যাত সাহাবী সাদ ইবনে আবু ওয়াক্কাস (রা.) সর্ব প্রথম চট্টগ্রামে এসে ইসলামের দাওয়াত মানুষের কাছে পৌঁছেদেন। তাঁর সফর সঙ্গী ছিলেন ছয়জন। ইতিহাস-ঐতিহ্যের এই চট্টগ্রাম, পীর আউলিয়ার চট্টগ্রাম, বার আউলিয়ার চট্টগ্রাম এর সাথে গবেষণায় প্রমাণিত হলো আজ সাহাবায়ে ক্বেরামগণের পদধূলায় ধন্য এই চট্টগ্রাম। এই তথ্যের পথ ধরে চট্টগ্রামে মুসলমান আগমনের আরো গুরুত্বপূর্ণ তথ্য বের হবে। এজন্য আমাদের লেখক গবেষক ও চিন্তাবিদগণকে আরো দৃঢ়তার সাথে কাজ করতে হবে। ১০ জুন বিকালে চট্টগ্রাম নগরীর হোটেল জামানের হল রুমে বিশিষ্ট ইতিহাস গবেষক, চট্টগ্রাম ইতিহাস চর্চা কেন্দ্রের সভাপতি সোহেল মুহাম্মদ ফখরুদ-দীন রচিত “চট্টগ্রামে মুসলমান আগমনের ইতিকথা” গ্রন্থের প্রকাশনা অনুষ্ঠান চট্টগ্রাম ইতিহাস চর্চা কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আবদুর রহিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সাংবাদিক একেএম আবু ইউসুফের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ইসলামিক স্ট্যাডিজ ডিপার্টমেন্টের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোহাম্মদ মুছা কলিমুল্লাহ। সম্মানিত আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ অধ্যক্ষ ড. মোঃ সানাউল্লাহ, দৈনিক আমাদের চট্টগ্রামের সম্পাদক মিজানুর রহমান চৌধুরী, আল্লামা রুমি সোসাইটির সভাপতি এসএম সিরাজুদ্দৌলা, আনন্দ মাল্টিমিডিয়া ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মুহাম্মদ হোসেন মুরাদ, ইতিহাসবিদ এবিএম ফয়েজ উল্লাহ, বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ আফিল উদ্দিন মাহমুদ, আলী মোকাররিম মুনিরুল হক খোরাসানি, প্রাবন্ধিক নুর মোহাম্মদ রানা, সৈয়দ শিবলী ছাদেক কফিল, সাংস্কৃতিক সংগঠক খুরশিদুল আলম খোকন, প্রাবন্ধিক এসএম ওসমান, প্রধান শিক্ষক ইউনুচ কুতুবী, রাজনীতিবিদ ও সংগঠক শহিদুল আলম, প্রাবন্ধিক আবদুল্লাহ মজুমদার, কবি শিহাব উদ্দিন চৌধুরী, বিশিষ্ট সাংবাদিক কবি কাজী হুমায়ুন কবির, আহসাব উদ্দিন, ডাঃ মোহাম্মদ রুম্মান, এসএম শাহনেওয়াজ আলী মির্জা, মাওলানা মোহাম্মদ আনোয়ার প্রমূখ। সভায় গ্রন্থটির লেখক সোহেল মুহাম্মদ ফখরুদ-দীন শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন। প্রকাশনা অনুষ্ঠান শেষে আলোচিত গ্রন্থের উৎসর্গকারী চট্টগ্রামে অন্যতম কৃতি সন্তান বিশিষ্ট লেখক গবেষক ও বৃটিশ আমলের প্রাক্তন জেলা জজ মরহুম মৌলভী সৈয়্যেদ মুফিজুল হক আলী আইউবী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মুনাজাত ও দোয়া করা হয়।