মাজারে জবাই, দা ও রক্তমাখা কাপড় উদ্ধার

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৬ অক্টোবর , ২০১৫ সময় ১১:২৭ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রামে মাজারে ঢুকে দু’জনকে হত্যার ঘটনায় ব্যবহৃত দা ও রক্তমাখা কাপড়চোপড় উদ্ধার করেছে নগর গোয়েন্দা পুলিশ।

মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) দুপুরে গ্রেপ্তার হওয়া জেএমবি সদস্য সুজন ওরফে বাবুকে নিয়ে বায়েজিদ বোস্তামি থানার শেরশাহ বাংলাবাজার এলাকায় অভিযানে যায় পুলিশ।  এসময় তার দেখানোমতে একটি নর্দমার ভেতর থেকে দা এবং বাসা থেকে রক্তমাখা শার্ট-প্যান্ট, গেঞ্জি উদ্ধার করেছে পুলিশ।

খুন ১২নগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (উত্তর-দক্ষিণ) বাবুল আক্তার  বলেন, হত্যাকান্ডের পর মাজার থেকে কিছু দূরে একটা নর্দমার মধ্যে দা ফেলে গিয়েছিল সুজন।  ওই নর্দমায় তল্লাশি করে দা পাওয়া গেছে।

এছাড়া মাজারের অদূরে বক্সনগর হক মার্কেট এলাকায় সুজন যে মেসে থাকত সেখানে অভিযান চালিয়ে রক্তমাখা শার্ট-প্যান্ট, গেঞ্জি পাওয়া গেছে বলে তিনি জানান।

 

৪ সেপ্টেম্বর বায়েজিদ বোস্তামি থানার বাংলাবাজারে মাজারে ঢুকে ল্যাংটা ফকির ও আব্দুল কাদের নামে দু’জনকে খুনের মিশনে অংশ নিয়েছিল একজন জেএমবি সদস্য।  মো. সুজন ওরফে বাবু নামে এক জেএমবি সদস্য একাই দু’জনকে খুন করেছিল বলে সে পুলিশের কাছে দাবি করেছে।  পুলিশও তদন্তে পাওয়া তথ্য যাচাই বাছাই করে এ দাবির সঙ্গে একমত বলে জানিয়েছে।

সোমবার (৫ অক্টে‍াবর) নগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (উত্তর-দক্ষিণ) বাবুল আক্তারের নেতৃত্বে পুলিশ নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে জেএমবি’র সামরিক প্রধান মো. জাবেদ (২৪) সহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করে।  বাকি চারজন হল, বুলবুল আহমেদ(২৬) ওরফে ফুয়াদ, সুজন ওরফে বাবু(২৫), মাহবুব(৩৫) এবং সোহেল ওরফে কাজল (৩৫)।