চট্টগ্রামে পরীক্ষামূলক থ্রিজি সেবা চালু করেছে এয়ারটেল

প্রকাশ:| বুধবার, ৯ অক্টোবর , ২০১৩ সময় ১১:৩৯ অপরাহ্ণ

ন্দরনগরী চট্টগ্রামে পরীক্ষামূলক থ্রিজি সেবা চালু করেছে এয়ারটেলরাজধানী ঢাকার বনানী ও গুলশানের পর এবার বন্দরনগরী চট্টগ্রামে পরীক্ষামূলক থ্রিজি সেবা চালু করেছে দেশের অন্যতম বেসরকারি মোবাইল ফোন অপারেটর এয়ারটেল।

বুধবার সকালে নগরীর এয়ারটেলের আগ্রাবাদ এক্সপেরিয়েন্স সেণ্টারে তরুণ প্রজন্মের প্রতিনিধি এক বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের সঙ্গে ভিডিও কলের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে এই থ্রিজি সেবার উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এম মনজুর আলম।

অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘বিশ্বমানের থ্রিজি সেবার সাহায্যে আমাদের জনগণের জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে এয়ারটেল বাংলাদেশ একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। বাংলাদেশের থ্রিজির বাজার উন্নয়নে এয়ারটেল তাদের আন্তর্জাতিক অভিজ্ঞতা প্রয়োগ করে গ্রাহকদের সর্বোত্তম সেবা দেবে।’

এর মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি চসিক মেয়র এম মনজুর আলম চট্টগ্রামে এয়ারটেলের ‘থ্রিজি এক্সপেরিয়েন্স জোন’র উদ্বোধন করেন।

এয়ারটেল এর সিইও ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর ক্রিস টবিট বলেন,‘ঢাকার পর চট্টগ্রামের গ্রাহকদের জন্য থ্রিজি সেবা নিয়ে আসতে পেরে আমরা বেশ আনন্দিত। আমরা বিশ্বাস করি এয়ারটেল থ্রিজির মাধ্যমে যোগাযোগ ও জ্ঞান আহরণের মধ্যে সেতু বন্ধন হিসেবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারবে।’

এ সেবা চালুর মাধ্যমে গ্রামাঞ্চল ও শহরাঞ্চল তথা ব্যবসায় ক্ষেত্রে প্রযুক্তিগত বৈষম্য দূরীকরণেও কাজ করবে এয়ারটেল বলে তিনি জানান।

মি. ক্রিস টবিট বলেন,‘গত সপ্তাহে আমরা ঢাকা শহরে থ্রিজি সেবা চালু করেছি। আমরা বিশ্বাস করি যে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক কেন্দ্র হিসেবে চট্টগ্রাম এয়ারটেলের থ্রিজি নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে সারা দেশ এমনকি বিশ্বব্যাপী বাণিজ্যিক কার্যক্রম ত্বরান্বিত করতে সক্ষম হবে।’

দেশের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসির হিসাবে গত জুলাই পযন্ত এয়ারটেলের গ্রাহক সংখ্যা ছিল প্রায় ৭৯ লাখ । আগস্টের তথ্য অনুযায়ী বিশ্বব্যাপী ভারতীয়ে এয়ারটেলের মোট গ্রাহক সংখ্যা ১৭৬ মিলিয়ন।

চলতি মাসের মধ্যে ঢাকা এবং চট্টগ্রামের গ্রাহকদের কাছে বাণিজ্যিকভাবে থ্রিজি সেবা চালুর পরিকল্পনা রয়েছে এয়ারটেলের। এ বছরের নভেম্বরের সিলেটের প্রধান এলাকাগুলোতে থ্রিজি চালু করা হবে।

এছাড়া চলতি বছরের ডিসেম্বর নাগাদ ঢাকা, চট্টগ্রাম এবং সিলেটের সব এলাকা এ সেবার আওতায় নিয়ে আসা হবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন। ২০১৪ সালের জানুয়ারির মধ্যে সাতটি বিভাগীয় জেলায় থ্রিজি সেবা নিয়ে নিয়ে যাবে এয়ারটেল।

অনুষ্ঠানে দৈনিক আজাদীর সম্পাদক এম এ মালেক, চট্টগ্রাম চেম্বারের সভাপতি মাহবুবুল হকসহ এয়ারটেলের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে অনুষ্ঠানে নগরীর আগ্রাবাদ বাণিজ্যিক এলাকা এবং সিইপিজেড এলাকায় ঈদুল আজহার আগেই এয়ারটেলের থ্রিজি সেবা উন্মুক্ত করা হবে বলে জানানো হয়।

প্রসঙ্গত বিটিআরসি’র অনুমোদন পাওয়া বেসরকারি চার মোবাইল অপারেটরের মধ্যে গ্রামীণফোন ও রবি সম্প্রতি চট্টগ্রামে থ্রিজি সেবা চালু করেছে।