চট্টগ্রামকে মেগাসিটি করবো-নাছির

প্রকাশ:| রবিবার, ২৬ এপ্রিল , ২০১৫ সময় ০৭:৪৩ অপরাহ্ণ

0

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রচার-প্রচারণার শেষ দিনে গতকাল রোববার (২৬ এপ্রিল) সারাদিন নগরীর বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ করে ব্যস্ত সময় কাটিয়েছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত নাগরিক কমিটির মেয়র প্রার্থী আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দিন। শেষ দিনে নাছির উদ্দিন বিভিন্ন এলাকার মুরুব্বীদের সাথে সাক্ষাৎ, দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় এবং গণসংযোগ করেন।
এ সময় তিনি নগরবাসীর উদ্দেশে বলেছেন, চট্টগ্রামকে সত্যিকার অর্থে বাণিজ্যিক রাজধানী প্রতিষ্ঠায় পরিকল্পিত উন্নয়ন দরকার। এই শহরকে বাসযোগ্য মেগাসিটি করতে হলে সম্মিলিত প্রচেষ্টা চালাতে হবে। আমার স্বপ্ন আমাদের এই শহর হবে দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার মেগাসিটি। চট্টগ্রামের পরিকল্পিত উন্নয়নের জন্য, পরিবর্তনের জন্য, বাসযোগ্য শহর প্রতিষ্ঠার জন্য আপনারা আমাকে হাতি মার্কায় ভোট দিয়ে একবার মেয়র নির্বাচিত করুন। আমি সরকারের কাছ থেকে ন্যায্য হিস্যা আদায় করে উন্নয়নের মাধ্যমে চট্টগ্রামের চেহারা পরিবর্তন করে দেবো ইনশাআল্লাহ। আমি কথা দিচ্ছি, মেয়র নির্বাচিত হলে এখানকার সমস্যা সমাধানে সবার পরামর্শ নেবো, সবাইকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করবো। সম্মিলিত প্রচেষ্টায় চট্টগ্রামবাসীকে দুর্ভোগ থেকে মুক্তি দেবো। জলাবদ্ধতার দুর্ভোগে আর থাকতে হবে না।
সময়ের স্বল্পতার কারণে নগরীর প্রতিটি ওয়ার্ডের প্রতিটি ভোটারের কাছে যেতে না পারায় আ জ ম নাছির উদ্দিন প্রচারণা শেষ দিনে নগরবাসীর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন। তিনি বলেন, আমি নির্বাচিত হলে প্রত্যেক এলাকায় যাবো, সবার পরামর্শ নেবো, সব ধরনের নাগরিক সমস্যার সমাধান করবো ইনশাআল্লাহ। এ জন্য আপনারা আমাকে একবার নির্বাচিত করুন।
তিনি সকালে নগরীর সাগরিকা রোডের সেলিম অ্যান্ড ব্রাদার্সের তৈরি পোশাক কারখানায় গণসংযোগ করেন। সেখানে আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, মেয়র নির্বাচিত হলে নগরীর সকল পোশাক কারখানার শ্রমিকদের বেতন বৈষম্য দূরীকরণসহ আবাসন সংকট ও নিরাপত্তা বিধান করা হবে। শ্রমিকদের জীবন মান উন্নয়নে বিশেষ প্রকল্প হাতে নেওয়া হবে।
আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, পোশাক শ্রমিকরা দেশের উন্নয়নে যেমন অবদান রাখছে। তেমনি সমাজ গঠন ও উন্নয়নে ব্যাপক ভুমিকা রাখছে। আর এসব শ্রমিকদের জন্য আমার কিছু করা দায়িত্ব ও কর্তব্য মনে করি। কিন্তু আপনাদের জন্য কিছুই করার সুযোগ পায়নি আমি।
তিনি বলেন, কিছু করার জন্য প্লাটফর্ম দরকার। দরকার সদিচ্ছা ও নৈতিকতার। আমি কথা দিচ্ছি, আপনাদের ভোটে যদি আমি মেয়র নির্বাচিত হই, তাহলে পোশাক শ্রমিকদের বিশেষ প্রকল্পের আওতায় এনে সকল সমস্যা সমাধানের উদ্যোগ নেওয়া হবে।
আ জ ম নাছির উদ্দিন আরো বলেন, পোশাক শ্রমিকরা দিনভর কাজ করে অধিকাংশ কারখানায় মাসের শেষে ঠিকসময়ে বেতন পায় না। রয়েছে বেতন বৈষম্যও। ফলে অর্থাভাবে পর্যাপ্ত খাবার খেতে পারে না। ঘুমাতে হয় মানবেতরভাবে। ঠিকমত স্বাস্থ্যসেবা পায় না। কারখানা এবং ঘরে বাইরে সবক্ষেত্রে রয়েছে নিরাপত্তাহীনতায়। যা আমার জানা।
দুপুর ১২টায় বাসা থেকে বের হয়ে তিনি নগরীর কাজীর দেউরি ব্যাঙ্কুইটে যান। সেখানে হাতী প্রতিকের এজেন্টদের প্রশিক্ষণ কর্মশালায় বক্তব্য দেন তিনি। কর্মশালায় আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেন, আপনাদের ওপর যে দায়িত্ব অর্পণ করা হয়েছে তা যথাযথভাবে পালন করবেন। নির্বাচনী আচরণবিধি মেনে চলবেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে সহযোগিতা করবেন।
বিকাল ৩টায় তিনি সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন। বিকাল থেকে রাত পর্যন্ত আ জ ম নাছির উদ্দিন নগরীর বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করছিলেন। গণসংযোগকালে দলীয় নেতাকর্মী ছাড়াও তার সাথে উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক, রূপালি ব্যাংকের পরিচালক সাংবাদিক আবু সুফিয়ান, নগর আওয়ামী লীগের সদস্য আবদুল লতিফ টিপু, চট্টগ্রাম জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট চন্দন বিশ্বাস, অ্যাডভোকেট চন্দন তালুকদার প্রমুখ।