ঘাটতি না হওয়া পর্যন্ত লবণ আমদানি হবে না

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৭ ফেব্রুয়ারি , ২০১৭ সময় ০৯:৩৮ অপরাহ্ণ

কক্সবাজারে লবণচাষী সমাবেশে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহামদ
সেলিম উদ্দিন, ঈদগাঁওপ্রতিনিধি: দেশে ঘাটতি না থাকলেও লবণ আমদানিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে একটি ষড়যন্ত্রকারী চক্র। এতে চাষীরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে। তাই যে কোনো ভাবেই সুবিধাবাদী ওই চক্রদের ষড়যন্ত্রকে রুখতে হবে। না হয় আবার দুর্দশায় পতিত হবে লবণ শিল্প ও চাষীরা। মঙ্গলবার ৭ ফেব্রুয়ারী কক্সবাজার পাবলিক হলের শহীদ দৌলত ময়দানে আয়োজিত ‘লবণচাষী সমাবেশে’ লবণচাষী নেতৃবৃন্দ দাবি জানান।
লবণচাষী নেতৃবৃন্দ বলেন, ‘দেশের উৎপাদিত লবণের প্রায় ৯০ ভাগ কক্সবাজারে উৎপাদিত হয়। এখানকার উৎপাদিত লবণ দিয়ে দেশের চাহিদা মেটানো যাচ্ছে। প্রায় সময় সরকারের লক্ষ্যমাত্রার অতিরিক্ত লবণও উৎপাদিত হচ্ছে। তারপরও অতিরিক্ত মোনাফার লোভে একটি অসাধু সিন্ডিকেট বিদেশ থেকে লবণ আমদানির পাঁয়তারা চালাচ্ছে। চক্রটি বিগত মৌসুমে সুবিধা করতে পারেনি। তবে চলতি মৌসুমে আবার উঠেপড়ে লেগেছে। ওই চক্রটিকে রোধ করে লবণ বর্তমান মূল্য বজায় রাখতে হবে।’
সমাবেশে লবণচাষী নেতারা লবণ চাষীদের ন্যায্য অধিকার প্রতিষ্ঠায় ‘লবণবোর্ড’ গঠন, লবণকে কৃষি পণ্যের স্বীকৃতি প্রদান ও মূল্য পতন রোধে অসাধু মিল মালিকসহ অসাধু সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান।
চাষীদের দাবির প্রেক্ষিতে লবণ সমাবেশের প্রধান অতিথি বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহামদ বলেন, ‘লবণ আমদানির উপর আমাদের উপর চাপ ছিলো। কিন্তু আমরা ভেবে দেখেছি লবণ আমদানি করলে আমাদের প্রবল ক্ষতি হবে।’
তিনি বলেন, ‘বিদেশ থেকে লবণ আমদানি করলে লবণের দাম বাড়বে এটা ঠিক। কিন্তু দাম কমলে বন্ধ হয়ে যাবে আমাদের লবণ চাষ। এতে শুধু চাষীরা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন তা না। দেশে যখন লবণ উৎপাদন হবে না তখন সব লবণ বিদেশ থেকে আমদানি করতে হবে। এতে বিরাট চাপে পড়বে দেশ। তাই সব দিক বিবেচনা করে ঘাটতি না হওয়া পর্যন্ত লবণ আমদানি করা হবে না।’
জেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে আয়োজিত জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. সিরাজুল মোস্তফার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত লবণ সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাক আহামদ চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যান, কক্সবাজার সদর-রামু আসনের সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনের সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ রফিক। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এড. ফরিদুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক নাজনীন সরওয়ার কাবেরী, কক্সবাজার পৌর মেয়র মাহবুবুর রহমান চৌধুরী, লবণচাষী কল্যাণ সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক কায়সার উদ্দীন, মহেশখালী উপজেলা লবণচাষী সমবায় সমিতির সভাপতি আনোয়ার পাশা চৌধুরী, টেকনাফ উপজেলা লবণচাষী কল্যাণ সমবায় সমিতির সভাপতি শফিক মিয়া, ইউনুছ বাঙ্গালী প্রমুখ। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন জেলা আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক মঞ্জুর আলম। সমাবেশে জেলার কুতুবদিয়া, মহেশখালী, পেকুয়া, টেকনাফসহ বিভিন্ন স্থানের লবণচাষী নেতা ও বিপুল চাষী উপস্থিত ছিলেন।