গ্রামীণ পর্যায়ে উন্নয়ন করা প্রয়োজন

প্রকাশ:| শনিবার, ১ এপ্রিল , ২০১৭ সময় ০৯:৩৯ অপরাহ্ণ

হাটহাজারী মেখল ইউনিয়নে উন্নয়ন মেলায় সাবেক মূখ্যসচিব ও পিকেএসফ এমডি মো আবদুল করিম
হাটহাজারী প্রতিনিধি
শিক্ষা, প্রশিক্ষণ, সমন্বিত উন্নয়নের মাধমে দারিদ্র্য দূরিকরণের লক্ষ্যে দরিদ্র পরিবারসমুহের সম্পদ ও সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য হাটহাজারীর মেখল ইউনিয়নের প্রতিটি পরিবার তাদের আর্থ-সামাজিক গতিশীলতায় এগিয়ে যাচ্ছে। কৃষিখাতে উন্নয়ন, উৎপাদন বৃদ্ধি করে রপ্তানী খাতে নিজেদেরকে স্বাবলম্ভী হয়ে প্রতিটি পরিবারে হাসি ফুটাতে কাজ করছে সমৃদ্ধি কর্মসুচি।
গতকাল শনিবার (১ এপ্রিল) পিকেএসএফএর সহযোগিতায় বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা ঘাসফুলের আয়োজনে উপজেলার মেখল ইউনিয়ন এর উত্তর মেখল আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে সমৃদ্ধি কর্মসূচির উন্নয়ন মেলা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরাআন তেলাওয়াত করেন মাওলানা আবু সরোয়ার। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ঘাসফুলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আফতাবুর রহমান জাফরী। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক মূখ্যসচিব ও পিকেএসএফএর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো: আবদুল করিম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হাটহাজারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মাহবুবুল আলম চৌধুরী , হাটহাজারী উপজেলা সহকারী কশিনার (ভুমি) আরিফুর রহমান সরদার, উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান নাছির উদ্দিন মুনির, উপজেলা মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান মনোয়ারা বেগম, ইউপি চেয়ারম্যান মো: সালাহ উদ্দিন চৌধুরী ও বিশিষ্ট সমাজসেবক এস এম মুজাহিদ। আলোচনা সভা সভাপতিত্ব করেন পিকেএসএফ’র উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক, ড. মো: জসিম উদ্দিন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পিকেএসএফ’র মহা-ব্যবস্থাপক ও সমৃদ্ধি টিম লিডার মোঃ মশিয়ার রহমান, কর্মকর্তা গোলাম রাব্বানী, ঘাসফুল এর উপ-পরিচালক মফিজুর রহমান, মাক্রোফিন্যান্স প্রধান লুৎফুল কবির চৌধুরী শিমুল, অর্থ-হিসাব বিভাগ প্রধান মারুফুল করিম চৌধুরী, সহকারী পরিচালক আবেদা বেগমসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, স্কুলের শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ ও মেখল ইউনিয়নের সমৃদ্ধি কর্মসূচি সমন্বয়কারী মোঃ নাছির উদ্দিন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন জোবায়দুর রশীদ।
প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সাবেক মূখ্যসচিব ও পিকেএসএফএর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো: আবদুল করিম বলেন, সারা বাংলাদেশে পিকেএসএফ এর সহযেগিতায় ১শ ৫২টি ইউনিয়নে সমৃদ্ধি কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। উপজেলার মেখল ইউনিয়ন এখন একটি সমৃদ্ধ মডেল ইউনিয়ন, উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখাতে গ্রামীণ পর্যায়ে উন্নয়ন করা প্রয়োজন। পিকেএসএফ এর সহযোগিতায় সারাদেশে প্রতিবছর সহযোগী সংস্থা সমুহের মাধ্যমে ৪ হাজার কোটি টাকা ঋণ প্রদান করে থাকে। সমৃদ্ধি কর্মসূচি শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যুব প্রশিক্ষণ ভিক্ষুক পুনর্বাসন, অবকাঠামোগত উন্নয়ন, কৃষি ও সমন্বিত উন্নয়নের মাধ্যমে এ কর্মসূচি বাস্তবায়িত হচ্ছে।
অনুষ্ঠানে ১৯জন প্রবীণকে সম্মাননা ক্রেষ্ট, ০১জনকে সিনিয়র সিটিজেন সম্মাননা ক্রেষ্ট, ২০জনকে ছাতা , ২০জনকে লাঠি, ৭৬ জনকে বয়ষ্কভাতা, ১৫জনকে কম্বল, ১৫জনকে চাদর ও ৪০জনকে কমোড চেয়ার প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে ইতিমধ্যে ভিক্ষুকক পুনর্বাসন কর্মসূচির আওতায় পুনর্বাসিত ১০জন উদ্যেমী সদস্য ইতিমধ্যে প্রাপ্ত ১লক্ষ টাকা পরিমানের সম্পদ পাওয়ারট্রিলার, সেলাই মেশিন এবং একটি ভ্যানগাড়ী, গাভী ইত্যাদি প্রদান করা হয়।
অনুষ্ঠানে সেবাদানকারী সংস্থা লায়ন, সন্ধানী ও বিভিন্ন সরকারী বেসরকারী প্রতিষ্ঠানের স্বাস্থ্যবিষয়ক স্টল, রক্তদান, রক্তগ্রুপ পরীক্ষা, চক্ষুসেবা, ৩১ জন শিশুর খতনা , ডায়াবেটিকস পরীক্ষা ও পরামর্শ বিষয়ক স্টল ও একটি সমৃদ্ধ বাড়ীর প্রদর্শনী আয়োজন করে ঘাসফুল।


আরোও সংবাদ