গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য সরকারকে বাধ্য করা হবে

প্রকাশ:| রবিবার, ৪ জুন , ২০১৭ সময় ০৭:৪৩ অপরাহ্ণ

আন্দোলনের মাধ্যমে সহায়ক সরকারের অধীনে গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য সরকারকে বাধ্য করা হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে রোববার রাজধানীতে এক আলোচনা সভায় একথা বলেন তিনি। সরকার লুটপাটের মাধ্যমে দেশের অর্থনীতি ধ্বংস করছে বলেও মন্তব্য করেন বিএনপি মহাসচিব।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বিএনপির নেতা-কর্মীদের কারাগারে পাঠিয়ে বা আদালতের সামনে হাঁটিয়ে নির্বাচন করার কথা কেউ চিন্তা করলে তারা বোকার স্বর্গে বাস করছেন। ৫ জানুয়ারির মতো প্রহসনের নির্বাচন আর হতে দেওয়া হবে না।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, আওয়ামী লীগ মানুষের মৌলিক অধিকার কেড়ে নিয়েছে, ভোটের অধিকার কেড়ে নিয়েছে। এখন বেঁচে থাকার অধিকার কেড়ে নিচ্ছে। সে জন্য সবাইকে সংগঠিত হতে হবে, রুখে দাঁড়াতে হবে। একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য সরকারকে বাধ্য করতে হবে।

২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট নিয়ে সরকারের সমালোচনা করে ফখরুল বলেন, তারা চুরি, লুটপাট করে বিদেশে বাড়ি বানাবে আর সেটার খেসারত দিতে হবে মানুষের করের টাকা দিয়ে। বাজেটকে কেউ ভালো বলছে না। আওয়ামী লীগের প্রতি যেসব অর্থনীতিবিদের দুর্বলতা আছে, তাঁরাও বলছেন এটা সবচেয়ে খারাপ বাজেট। জনগণের ওপর বোঝা চাপিয়ে দেওয়া হয়েছে।

স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারীর সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমান, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমেদ, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন-নবী খান প্রমুখ।


আরোও সংবাদ