‘গোলাম হিসেবে ছিলাম, থাকব’

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ২ জুন , ২০১৬ সময় ১০:০৩ অপরাহ্ণ

গফুর উদ্দিন

কায়সার হামিদ মানিক, উখিয়া :
০৫নং পালংখালী ইউনিয়নের নাগরিক কমিটির চেয়ারম্যান প্রার্থী গফুর উদ্দিন চৌধুরী ঘোড়া মার্কার সমর্থনে এক পথসভা অনুষ্ঠিত হয়। আজ বিকাল ৫ টা থেকে ঘোড়া মার্কার সমর্থনে হাজার হাজার মানুষ থাইংখালী ষ্টেশনে মিলিত হয়ে হেঁটে হেঁটে বালুখালী কাস্টম্স থেকে ফিরে বালুখালী ষ্টেশনে এক পথসভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় এম. গফুর উদ্দিন চৌধুরী বলেন, দীর্ঘ ৫ বছর ধরে পালংখালীতে আপনাদের গোলাম হিসেবে সেবা করে আসছিলাম। তাই আপনারা পুনঃরায় ঘোড়া মার্কায় ভোট দিয়ে আপনাদের সেবা করার সুযোগ দিন। দীর্ঘদিন ধরে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শাহাদাত হোসেন জুয়েল জনসম্মূখে আমাকে হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। আমাকে নাকি বেন্ডিজ দেওয়ার মত জায়গা রাখবেনা। আপনারাই জানেন গত ৫ বছরে এলাকার কত উন্নয়ন করেছি। এপর্যন্ত আপনারা আমাকে পাশে পেয়েছেন কোন দিনও আপনাদেরকে খালি হাতে ফিরিয়ে দেইনি। কারণ আপনারা আমাকে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান বানিয়েছেন। আমি আবারও আপনাদের সেবা করে যেতে চাই। দীর্ঘদিন ধরে প্রতিপক্ষরা আমার জয়প্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। আপনারা জানেন গত দেড় বছর আগে বালুখালীতে বিজিবি ও গ্রাম বাসী সংঘর্ষের ঘটনায় আমাকে মামলার আসামী করেছিল। আপনাদের সেবা করতে গিয়ে সাত মাস পালিয়ে বেড়িয়েছিলাম। আওয়ামীলীগের প্রার্থীরা নাকি এলাকায় উন্নয়ন করেছে, তারা ক্ষমতায় থাকলেই তো উন্নয়ন করবে! উক্ত পথসভায় ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী এম. গফুর উদ্দিন চৌধুরী আরও বলেন, আমি যে উন্নয়ন করেছি ৫ বছরেও কেউ এ উন্নয়ন করে দেখাতে পারেনি। ঘোড়া প্রতীকের সমর্থকদের হুমকি ধমকি দিয়ে দমিয়ে রাখতে পারবে না। বাঙ্গালী জাতি এটা প্রমান করেছে। তিনি আরো বলেন, নৌকা ও আনারস প্রতীকের প্রার্থীরা বিজয় অনিশ্চিত দেখে আমার লোকজনকে মিথ্যা মামলায় জড়ানোর হুমকি দিচ্ছে। এ মিথ্যা মামলার হুমকি ধমকির সঠিক রায় দেবে জনগণ আগামী ৪ জুন। গরীবের পকেটের টাকা ছিনতায় করে যারা নির্বাচন করছেন তাদেরকে বয়কট করার আহবান জানান। এ সময় বিভিন্ন স্থান থেকে মিছিল সহকারে আসা হাজার হাজার লোকজন পথসভায় যোগ দেন।


আরোও সংবাদ