গুম-খুনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগই দায়ী-এমকে আনোয়ার

প্রকাশ:| সোমবার, ১২ মে , ২০১৪ সময় ১০:৫১ অপরাহ্ণ

দেশে চলামান গুম-খুনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগই দায়ী বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য এমকে আনোয়ার। বলেছেন, শুধুমাত্র আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে দোষ দিয়ে লাভ নেই। শ্রীলঙ্কার একটি পত্রিকার বরাত দিয়ে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের একশ জনের একটি বাহিনীকে ‘ক্রুজার ওয়ান হান্ডেড’ শিরোনামে ভারত প্রশিক্ষণ দিয়েছিল। সে বাহিনী এখন দেশে গুম খুন করছে। দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘শত নাগরিক’ আয়োজিত ‘গুম খুন অপহরণ: বিপর্যস্ত জনজীবন’ শীর্ষক গোলটেবিল আলোচনায় তিনি একথা বলেন। আনোয়ার বলেন, আমরা শুধু দোষ দিচ্ছি র‌্যাব-পুলিশের। এ জন্য শুধুমাত্র আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে দোষ দিয়ে লাভ নেই। তারা পরস্পরের স্বার্থে যা করার তাই করে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে এককভাবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে দোষ দিয়ে লাভ নেই। আনোয়ার বলেন, গুলি করে মানুষ মেরে ফেলা এ সরকারের কাছে কিছুই না। আর যখনই কোন কিছু হয় তখন তা চাপিয়ে দেয়া হয় বিএনপির উপর। যখনই দেশে কোন গুম-খুনের ঘটনা ঘটে তখনই আমাদের প্রধানমন্ত্রী বলেনÑ এটা বিএনপি করছে। তিনি জাতীয় সংসদে রানা প্লাজার রানাকেও বিএনপির সদস্য বলেছেন। তিনি সংসদে যা বলছেন তার ৯০ ভাগ ভিত্তিহীন মনগড়া। সুতরাং তার থেকে অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার ব্যাপারে আশা করা যায় না। এমকে আনোয়ার বলেন, দেশের যে পরিস্থিতি তাতে মনে হয় দেশে সরকার বলে কিছু নেই। একটি ফ্যাসিস্ট গ্রুপ ক্ষমতায় বসে আছে। যারা ক্ষমতায় বসে আছেন তারা নিজেদের বুদ্ধিতে চলতে পারছেন না। অন্যের বুদ্ধির উপর ভর করে চলছেন। আর বুদ্ধিদাতারা যা বলছে সরকার তাই করছে। তিনি বলেন, একটি সভ্য সরকার ক্ষমতায় থাকলে যেভাবে আন্দোলন করা যেত, এ সরকারের আমলে সেভাবে করা যাচ্ছে না। তারপরও নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বলব, এ সংগ্রামে আমাদের সবাইকে শরিক হতে হবে। জেলে যেতে হবে। তা না হলে যে দুর্বৃত্তায়ন সৃষ্টি হয়েছে তা থেকে রক্ষা পাওয়া যাবে না। আর অবৈধভাবে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চাইলে বর্তমান সরকারের বিদায়ও হবে বেদনাদায়ক। আগামীতে একদিন জনগণের সরকার ক্ষমতায় যাবে। সেদিন এ সরকারের প্রতিটি অপকর্মের বিচার করা হবে।


আরোও সংবাদ