গরু, হাঁস-মুরগীসহ ৩ বসতঘর পুড়ে ছাই

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| বুধবার, ২০ জুন , ২০১৮ সময় ০৬:৫৬ অপরাহ্ণ

শফিউল আলম, রাউজান (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি:চট্টগ্রামের রাউজানে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে পুড়েছে ৩ বসতঘর। মঙ্গলবার রাত ১টার দিকে উপজেলার ডাবুয়া ইউনিয়নের ২ নং ওয়ার্ডের মনু হাজীর বাড়িতে এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন, মঙ্গলবার রাতে নুরুল ইসলামের ঘর থেকে বিদ্যুৎতের শর্ট সাকিট থেকে অগ্নিকান্ড সংগঠিত হয় । আগুনে ৩ বসতঘরের নগদ টাকা, শিক্ষার্থীদের বই, আসবাবপত্র, গরু, হাঁস-মুরগীসহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র পুড়ে ছাই হয়ে যায়। ক্ষতিগ্রস্তরা হলেন, নুরুল ইসলাম, নুর মোহাম্মদ, জহিরুল ইসলাম প্রকাশ কালু। অগ্নিকান্ডে প্রায় ১০ লাখ টাকা ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো। স্থানীয় মেম্বার নাজিম উদ্দিন বলেন, অগ্নিকান্ডে খবর রাউজান ফায়ার সার্ভিসে জানানো হলেও বন্যায় একটি ব্রীজ ভেঙে যাওয়ায় ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি এলাকায় প্রবেশ করতে পারেনি। পরে মসজিদে মাইকিং করা হলে স্থানীয়রা গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। অগ্নিকান্ডে নুরুল ইসলামের গরু, ও কালুর দুই মেয়ের বই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। বই পুড়ে যাওয়ায় কাঁদছেন ৫ম শ্রেণীর শিক্ষার্থী সায়মা আকতার ও ২য় শ্রেণীর ছাত্রী নাঈমা আকতার (৮)। অগ্নিকান্ডের সংবাদ পেয়ে স্থানিীয় চেয়ারম্যান আবদুল রহামান চৌধুরূ গতকাল সকালে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শন করেন। অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ তিনটি পরিবারকে স্থানীয় চেয়ারম্যান আবদুল রহমান চৌধুরী ২০ হাজার টাকা ও ২০ কেজি চাউল প্রদান করেন । অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থ তিন পরিবারনকে রাউজান উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৫ হাজার টাকা ও ৬টি কম্বল প্রদান করা হয় বলে রাউজান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শামীম হোসেন রেজা জানান। অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত হতদরিদ্র ৩ টি পরিবার বর্তমানে খোলা আকাশের নিচে মানবেতর জীবন-যাপন করছেন। ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে বিত্তবানরা এগিয়ে এমনটাই প্রত্যাশা এলাকাবাসীর


আরোও সংবাদ