‘‘গরীব হয়ে জন্ম গ্রহণ করা কোন অভিশাপ নয়’’

প্রকাশ:| শুক্রবার, ৫ ফেব্রুয়ারি , ২০১৬ সময় ১০:১১ অপরাহ্ণ

গরীব কোন অভিশাপ নয়নগরীর ৯ নং উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মোহাম্মদ জহুরুল আলম জসিম এর উদ্যোগে ৬৬০ জন গরীব দুুঃস্থ নারী/পুরুষের মাঝে শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ করা হয়। ০৫ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সন্ধ্যায় স্থানীয় পূর্ব ফিরোজশাহ মাঠে অনুষ্ঠিত এক সুধি সমাবেশে শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও ০৯ নং উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ জহুরুল আলম জসিম। শীত বস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, গরীবের ঘরের সন্তানরাও উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ করে ভাগ্য পরিবর্তন করতে পারে তাই এলাকার গরীব ছেলে মেয়েদের স্কুলে পাঠানোর জন্য অভিভাবকদের আহবান জানান। তিনি বলেন, একাগ্রতা, ঐকান্তিক ইচ্ছা ও সাধনা থাকলে জীবনে দারিদ্রকে জয় করা কঠিন কোন কাজ নয়। দরিদ্র নারী ও পুরুষদেরকে হাত পা গুটিয়ে বসে থাকার কোন সুযোগ নেই। হাতকে কর্মীর হাতে পরিণত করে উপার্জনের পথ বের করে জীবন ধারন করতে হবে। আজ যিনি গরীব বা দুঃস্থ আগামী দিনে সে পরিবারটিকে নিজ পায়ে দাঁড়াতে হবে। অনেকেই জন্ম সূত্রে গরীব। গরীব হয়ে জন্ম গ্রহণ করা কোন অভিশাপ নয়। কর্ম, সাধনা ও পরিশ্রমের মাধ্যমে দারিদ্রকে জয় করতে হবে। মেয়র বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার সামাজিক বেষ্টনীর আওতায় দেশের হতদরিদ্র ও দরিদ্র জনগোষ্ঠির ভাগ্যের পরিবর্তন করে যাচ্ছে। দেশ থেকে দারিদ্র ধীরে ধীরে কমে যাচ্ছে। মেয়র আশা করেন উন্নয়ন অব্যাহত থাকলে ২০২১ সনের পূর্বেই বাংলাদেশ মধ্য আয়ের দেশে পরিনত হবে। মেয়র বলেন, এলাকার উন্নয়নের পূর্ব শর্ত হচ্ছে শিক্ষা ও যোগাযোগ। মেয়র ২০১৭ সালের মধ্যে পরিকল্পিত ও পরিবেশ বান্ধব চট্টগ্রাম নগরী গড়ে তোলার প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলেন, অত্র এলাকার উন্নয়নে ১৩ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলছে। আগামী ২ বছরের মধ্যেই এই এলাকায় কোন কাঁচারাস্তা থাকবে না। আধুনিক ও ডিজিটাল যাত্রী ছাওনী নির্মান করা হবে এবং গণশৌচাগার এর সুব্যবস্থাও করা হবে। ৪১ টি ওয়ার্ডের অলিগলি আলোকায়ন এবং রাস্তায় কোন ধরনের ডাষ্টবিন থাকবে না। মেয়র ভবিষ্যতে ঘরে ঘরে গিয়ে আবর্জনা সংগ্রহ করার পরিকল্পনার কথা সুধি সমাবেশকে অবহিত করেন। তিনি বলেন, এলাকায় সিটি কর্পোরেশনের অব্যহৃত ও বেদখল জায়গাগুলো পূনঃরুদ্ধারের মধ্যে দিয়ে আয়বর্ধক প্রকল্প গ্রহণ করা হবে। এসময় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন ৯নং উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক কাউন্সিলর এস এম আলমগীর, সহ সভাপতি ইলিয়াছ খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মুনসুরুল আলম, মোস্তফা কামাল বাচ্চু, মুজিবুর রহমান হাওলাদার, অলি আহমদ, আবদুল মোনাফ মাষ্টার, মহিলানেত্রী মিলি আকতার। এতে আরো উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামলীগ নেতা মো. ঈসা, যুবলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা আবদুল মান্নান ফেরদৌস, মহানগর যুবলীগ নেতা জাবেদুল আলম সুমন দেবনাথ সহ প্রমূখ। পরে সিটি মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন হত দরিদ্রদের হাতে কম্বল তুলে দেন।


আরোও সংবাদ