‘‘গরীব শিক্ষার্থীরাও মেডিকেলে পড়তে পাচ্ছে’’

প্রকাশ:| রবিবার, ১৭ জানুয়ারি , ২০১৬ সময় ০৬:৩৬ অপরাহ্ণ

মেরিন সিটি মেডিকেলচট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন,সব ধর্মেই মানব সেবাকে গুরুত্ব দিয়েছে। সে বিবেচনায় ডাক্তারদের পেশাকে মানব সেবায় নিবেদিত করতে হবে। তাহলে সাধারণ রোগীরা উপকৃত হবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশের গরীব ঘরের মেধাবী শিক্ষার্থীরাও মেডিকেলে পড়ার সুযোগ পাচ্ছে সরকার ৫% হারে গরীব কোটায় বিনা ফিতে পড়ার সুযোগ দিয়ে যাচ্ছে। মেয়র বলেন, বর্তমান সরকার গরীব ও শিক্ষা বান্ধব সরকার। এ সরকার শিক্ষার আলোকে ঘরে ঘরে আলোকিত মানুষ গড়ার সুযোগ করে দিচ্ছে। জনাব আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, ধনী’র সন্তানদের চেয়ে গরীব ঘরের শিক্ষার্থীদের ভাল ফলাফল করার রেকর্ড সৃষ্টি হচ্ছে। সাধনা আর অধ্যাবসায় থাকলে কঠিনকে জয় করা যায়।

সিটি মেয়র মেরিন সিটি মেডিকেল কলেজে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদেরকে অধিকহারে মনযোগী হয়ে ভাল ডাক্তার হওয়ার পরামর্শ দেন। ১৭ জানুয়ারি রবিবার, দুপুরে নগরীর চন্দ্র নগরে অনুষ্ঠিত চট্টগ্রাম মেরিন সিটি মেডিকেল কলেজের এম বি বি এস ১ম বর্ষের শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র এসব কথা বলেন। ওরিয়েন্টেশন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অত্র মেডিকেল কলেজ এর অধ্যক্ষ ডা. শায়খুল ইসলাম। শুরুতে পবিত্র কোরআন, গীতা ও ত্রিপিটক পাঠের পর জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশন করা হয়। অনুষ্ঠানে ১ম বর্ষের ২ জন শিক্ষার্থী এবং সাজেদুল ইসলাম নামে একজন অভিভাবক তাদের অনুভূতি প্রকাশ করেন। এতে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ইউনিভার্সেল ষ্টীলের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবুল হাশেম বাবুল, স্বাগত বক্তব্য রাখেন অত্র কলেজের পরিচালক ও চট্টগ্রাম বি এম এ’র কোষাধ্যক্ষ ডা. আরিফুল আমিন। অনুষ্ঠানে ধন্যবাদ জ্ঞাপণ করেন অত্র মেডিকেল কলেজের অধ্যাপক ডা. শিব শংকর সাহা। অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীরা ছাড়াও তাদের অভিভাবকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বিশেষ অতিথি ছিলেন, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা অনুষদের ডিন. অধ্যাপক ডা. সেলিম মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর, বিএমএ, চট্টগ্রাম জেলা সভাপতি ডা. মুজিবুল হক খান ও কাউন্সিলর সাহেদ ইকবাল বাবু। বিশেষ অতিথি’র বক্তব্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা অনুষদের ডিন. অধ্যাপক ডা. সেলিম মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর বলেন, বাংলাদেশে শিক্ষা গ্রহণ যে কোন দেশের তুলনায় সহজলভ্য। এ দেশে বিনামূলে শিক্ষা উপকরণ, বইপত্র দেয়া হয়। তিনি বলেন মুখস্ত বিদ্যা দ্বারা চিকিৎসা সেবা সম্ভব নয়। একজন ভাল ডাক্তার হতে হলে বাস্তব ভিত্তিক হাতে কলমে চিকিৎসা সেবা আয়ত্ব করতে হবে। তিনি বাংলাদেশের মেধাবী শিক্ষার্থীদের দৃষ্টান্ত তুলে ধরে বলেন, ডাক্তারদের সততা ও মেধা থাকতে হবে। তাহলে দেশ ও জাতি উপকৃত হবে। অনুষ্ঠানে ৩য় ব্যাচের শিক্ষার্থীরা ১ম বর্ষের শিক্ষার্থীদের ফুল, রুটিন ও ক্যালেন্ডার দিয়ে বরণ করেন।