‘গণহত্যার দায়ে পাকিস্তানি সেনাদের ট্রাইব্যুনালে বিচার হতে হবে’

প্রকাশ:| সোমবার, ১৪ ডিসেম্বর , ২০১৫ সময় ১০:৩৪ অপরাহ্ণ

সৈয়দ হক ২

সব্যসাচী লেখক সৈয়দ সামশুল হক বলেছেন, একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে নৃশংস গণহত্যার জন্য দায়ী পাকিস্তানি সেনা কর্মকর্তাদের আন্তর্জাতিক ট্রাইব্যুনালে বিচারের মুখোমুখি করতে হবে আমার এই দাবি রাষ্ট্রের কাছে। এই বিচার না হলে মানবসভ্যতা পাপমুক্ত হবে না। তিনি আজ বিকেলে মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলার বিজয় মঞ্চে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির ভাষণে একথা বলেন। বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ সরফরাজ খান চৌধুরীর সভাপতিত্বে এতে মূখ্য আলোচক ছিলেন একুশে পদক প্রাপ্ত বুদ্ধিজীবি, প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক রাষ্ট্রদূত, উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি, মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আলম চৌধুরী ও আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পেশাজীবি সমন্বয় পরিষদ, চট্টগ্রাম এর সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক রিয়াজ হায়দার এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সেকান্দর চৌধুরী। মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এ.বি.এম. মহিউদ্দিন চৌধুরী ও মহাসচিব মোহাম্মদ ইউনুছ। সৈয়দ সামশুল হক বলেন, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় ৫ হাজার বৎসরের ইতিহাসে একমাত্র বাঙালি সশস্ত্র লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে স্বাধীনতা অর্জন করেছে। এই স্বাধীনতা কখনো বিলীন হতে পারে না।

তিনি মা-বোনদের প্রতি অশেষ শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, তারা একাত্তরে চরম আত্মত্যাগ করেছেন। তারা সম্ভ্রম হারিয়েছেন, মুক্তিযোদ্ধাদের আশ্রয় দিয়েছেন। তাদেরকে রাষ্ট্রীয়ভাবে সর্বোচ্চ সম্মান জানানোর জন্য আমি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে অনুরোধ জানাই। তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জাতীয় চার নেতাসহ এবং শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জীবনের ঝুকি নিয়ে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ও ফাঁসির রায় কার্যকর করে আমাদেরকে পাপমুক্ত করেছেন। তিনি জাতির অর্থনৈতিক মুক্তির পথে দেশকে চালিত করছেন। রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক মুক্তির অর্জনের পথে বাঙালি বিশ্ব সভায় মাথা উঁচু করে দাড়িয়েছে এ অর্জনকে ধরে রাখতে হবে।

মূখ্য আলোচক প্রফেসর ড. অনুপম সেন বলেন, এই বাংলায় নবাব ও রাজা ছিল কিন্তু বাঙালি কখনো স্বাধীন ছিল না। ১৯৭১ এ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীন বাঙালি জাতিসত্তার আবির্ভাব করেছেন।