‘গণতন্ত্রের নামে নাটক চলছে’নজরুল ইসলাম খান

প্রকাশ:| সোমবার, ২৩ ডিসেম্বর , ২০১৩ সময় ১১:০০ অপরাহ্ণ

নজরুল ইসলাম খানবিএনপি স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, গণতন্ত্রের নামে নাটক চলছে, নির্বাচনের নামে খেলা চলছে, যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জনগণকে নিরাপত্তা দেবে, তা না করে উল্টো সরকারের নির্দেশে জনগণের ওপর নির্যাতন চালাচ্ছে। বর্তমানে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের ওপর যে নির্যাতন চলছে তা অতীতের যে কোন রেকর্ড ভঙ্গ করেছে।

অবরোধের তৃতীয় দিন আজ সোমবার সন্ধ্যায় বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।

নজরুল ইসলাম বলেন, রাষ্ট্র যখন জনগণের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয় তখন জনগণের দাঁড়ানোর আর কোন জায়গা থাকেনা।

তিনি বলেন, ৪০টি নিবন্ধিত দলের মধ্যে মাত্র ১২টি দল অংশ গ্রহণ করছে, যা এ স্বাধীন দেশে কখনো ঘটেনি। যেখানে প্রার্থী উপস্থিত নেই, জনগণ ভোট দিতে পারছেনা তার ওপর সরকারের কোন ভ্রুক্ষেপ নেই। ১৫৪টি আসনে বিজয়ী না করে ৩শ আসনের প্রার্থীকে তারা বিজয়ী করে দিতে পারতেন। নির্বাচনের নামে জনগণের সাথে এতো নাটক করার প্রয়োজন ছিলনা। জনগণের রাষ্ট্র জগণের ইচ্ছার কাছে সর্মপন করুন। জনগণ চায় নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন হোক এবং নির্বাচিতরা দেশ পরিচালনা করুক।

‘আওয়ামী লীগ নির্বাচন কমিশনকে সহযোগিতা করবে’ সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে নজরুল ইসলাম খান বলেন, এরশাদ ইসিকে চিঠি দিয়েছিলেন কাউকে লাঙ্গল প্রতীক না দেয়ার জন্য, কিন্তু নির্বাচন কমিশন তার কথা রাখেননি। একই ভাবে প্রধানমন্ত্রী নৌকা প্রতীক দেয়ার কথা বললে প্রার্থীদের নৌকা প্রতীক দেয়া হয়েছে। তাই সে নির্বাচন কমিশনকে আওয়ামী লীগতো সহযোগিতা করবেই।

প্রার্থীদের হলফনামা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, হলফনামায় প্রার্থীদের দূর্নীতি বিষয়ে সুস্পষ্টভাবে তুলে ধরা হয়েছে বলে সরকার নির্বাচন কমিশনকে অনুরোধ করেছে যাতে হলফনামা দেখানো বন্ধ করে দেয়া হয়।

দেশের চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি সম্পর্কে তিনি বলেন, সরকার সংবিধান রক্ষার নামে যে নির্যাতন করছে, সেই নির্যাতন বর্তমান সরকারের একটি কলঙ্কময় অধ্যায়।

বিভিন্ন রাষ্ট্র আগামী দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পর্যবেক্ষক পাঠাবে না উল্লেখ করে বিএনপির এ নেতা বলেন, এরপরও আওয়ামী লীগ সরকারের কানে পানি যাচ্ছে না। দেশে যাই হোক তাদেরকে ক্ষমতায় থাকতে হবে।

তিনি বলেন, হেফাজত ইসলাম কোন দল না, আর তাদের সঙ্গে বিএনপির কোন সম্পর্ক নেই। কিন্তু সরকার কোন বিরোধী মতকেই সহ্য করতে পারছেনা এটা স্পষ্ট।


আরোও সংবাদ