গণতন্ত্রের উপর আঘাত আসলে আবারও রুখে দাঁড়াব

প্রকাশ:| সোমবার, ১৩ মার্চ , ২০১৭ সময় ১০:৩৯ অপরাহ্ণ

গণতন্ত্রের উপর আঘাত আসলে ওয়ান ইলেভেনের মতো আবারও রুখে দাঁড়াবেন বলে ‍জানিয়েছেন চট্টগ্রামের দুই শীর্ষ আইনজীবী ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল ও শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী।

ওয়ান ইলেভেন পরবর্তী জরুরি অবস্থার সময় সেনাসমর্থিত তত্তাবধায়ক সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ মিছিল বের করে আটক হয়েছিলেন এই দুই আইনজীবী।  ২০০৭ সালের ৭ মার্চ আটকের পর তাদের দীর্ঘদিন কারাভোগ করতে হয়েছিল।

সোমবার (১৩ মার্চ) চট্টগ্রামের আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে আয়োজন করা হয় সেই সময়ের স্মৃতিচারণ অনুষ্ঠান।

বর্তমানে বার কাউন্সিলের সদস্য ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল বলেন, আমরা আমাদের বিবেকের তাড়নায় সেদিন প্রতিবাদ করেছিলাম।  কিছু পাওয়ার প্রত্যাশা আমাদের ছিল না।  এখনও কিছু পাওয়ার প্রত্যাশা আমরা করি না।

তিনি বলেন, অগণতান্ত্রিকভাবে ক্ষমতায় যারাই এসেছেন তারা বেশিদিন টিকতে পারে নাই। জনগণের প্রতিরোধের মুখে তাদের ক্ষমতা ছেড়ে পালাতে হয়েছে।  পরিণতি হয়েছে ভয়াবহ।  আজকের দিনেও কেউ অন্ধকার কিংবা অগণতান্ত্রিক পথে ক্ষমতায় আসার চেষ্টা করলে তাদের পরিণতিও খারাপ হবে।

শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী বলেন, আইনের শাসন ও গণতন্ত্র রক্ষায় আমরা প্রতিবাদ করেছিলাম। যুগে যুগে গণতন্ত্র রক্ষার আন্দোলনে আইনজীবীরা লড়াই-সংগ্রাম করেছে।  এজন্য তাদের কারাবরণ করতে হয়েছে।  সেনাশাসকদের নির্যাতনের শিকার হতে হয়েছে।

‘গণতন্ত্রের উপর আঘাত আইনজীবীরা কখনও মেনে নেয়নি।  ভবিষ্যতেও যদি কোনদিন দেশে অগণতান্ত্রিক কোন সরকার আসে, আমরা আবারও রুখে দাঁড়াব। ’ বলেন সাইমুল

সভায় আরও বক্তব্য রাখেন জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি রতন কুমার রায়, সাধারণ সম্পাদক আবু হানিফ, সাবেক সভাপতি একেএম সিরাজুল ইসলাম, মুজিবুল হক, রেজাউল করিম চৌধুরী, কফিল উদ্দিন চৌধুরী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মনতোষ বড়ুয়া ও অশোক কুমার দাশ, জেষ্ঠ্য আইনজীবী আবুল হাশেম, ফখরুদ্দিন চৌধুরী, অনুপম চক্রবর্ত্তী, শফিউল আলম, নোমান চৌধুরী, নাসির উদ্দিন, দুলাল চন্দ্র দেবনাথ, মিলি চৌধুরী, জাফর ইকবাল, ইকবাল হোসেন, অহিদুল্লাহ, তপন কুমার দাশ, একরাম চৌধুরী, আজহারুল হক, রাসেল সরকার এবং শাহরিয়ার তানিম।


আরোও সংবাদ